Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১ জুন, ২০২০ , ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৩-০৮-২০২০

উত্তরা থেকে নিখোঁজ: এক মাসেও সন্ধান মেলেনি পাপিয়ার

উত্তরা থেকে নিখোঁজ: এক মাসেও সন্ধান মেলেনি পাপিয়ার

ঢাকা, ৮ মার্চ- নিখোঁজের ১ মাস পেরিয়ে গেলেও ড্যাফোডিলের সাবেক মেধাবী ছাত্রী পাপিয়া ঘোষকে (২৪) উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ প্রশাসন। গত ৫ ফেব্রুয়ারি রাত সাড়ে ৯টার দিকে বান্ধবীর বাসা থেকে বাড়িতে ফেরার সময় ঢাকার উত্তরা পশ্চিম থানা এলাকার ১০নং সেক্টরের ১৭নং রোডের ২০নং বাড়ি সামনে থেকে নিখোঁজ হন তিনি। অভিযোগ রয়েছে, অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা প্রাইভেটকারে করে তাকে অপহরণ করে।

এ ঘটনার পর পাপিয়ার কোন সন্ধান না পেয়ে গত ১৬ ফেব্রুয়ারি ভাই সম্রাট ঘোষ উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি মামলা (নং-১৬) দায়ের করেন।

অপহরণের শিকার পাপিয়া ঘোষ ঢাকা বিজিএমইএ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফ্যাশান ডিজাইনিং বিভাগের (বিইউএফটি) মাস্টার্স ১ম বর্ষের শিক্ষার্থী ও সদর উপজেলার ঝাউডাঙ্গা গ্রামের পরিতোষ কুমার ঘোষ ও মাতা তাপষী রানীর মেয়ে।

মামলার বাদী সম্রাট ঘোষ জানান, গত ৫ ফেব্রুয়ারি বিকালে পাপিয়া তার বান্ধবী সিরাজুন মনিরা (২৬) ও অংকিতা সাহা নিপার (২৪) সাথে ক্লাসের এস্যাইমেন্টের কাজ করার জন্য উত্তরা পশ্চিম থানার ১০নং সেক্টরের ১৭নং রোডের ২০নং বাড়িতে (লিফটের-৩) যায়। যাওয়ার সময় পাপিয়ার রুমমেট তামান্নাকে ফিরতে দেরি হবে বলে ফোনে জানিয়ে দেয়। রাত সাড়ে ৯টার দিকে কাজ শেষে নিজ রুমে ফেরার কথা থাকলেও বাসায় না ফেরার বিষয়টি রুমমেট তামান্নার কাছে জানতে পারেন।

পাপিয়ার ভাই সম্রাট ঘোষ আরও জানান, এ ঘটনার পর সম্ভব্য সকল স্থানে অনেক খোঁজ করেও তাকে পাওয়া যায়নি। অবশেষে উত্তরা থানার ১০নং সেক্টরের ১৭নং রোডের বাসিন্দাদের মাধ্যমে জানতে পারেন- ৫ ফেব্রুয়ারি বান্ধবীর বাসা থেকে ফেরার জন্য বাসার নীচে অবস্থানকালে পাপিয়াকে একটি প্রাইভেটকারযোগে দুর্বৃত্তরা অপহরণ করে নিয়ে গেছে।

তিনি জানান, ওই এলাকার একটি সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়- অজ্ঞাত একটি প্রাইভেটকার কিছু সময় অবস্থান করে দ্রুত এলকা ছেড়ে চলে যায়। এ ঘটনা জানতে পেরে সম্রাট তার মামাতো ভাই সঞ্জয় ঘোষকে সাথে নিয়ে ঢাকার উত্তরা পশ্চিম থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

সঞ্জয় ঘোষ অভিযোগ করে বলেন, মামলা দায়ের করার পর প্রায় এক মাস পেরিয়ে গেলেও পুলিশ পাপিয়াকে উদ্ধার বা তার কোন সন্ধান দিতে পারেনি। পুলিশ আজ পর্যন্ত কোন কার্যকর ভূমিকাই গ্রহণ করেননি যা খুবই উদ্বেগের বিষয়। অপহরণের পর থেকে পাপিয়ার ব্যবহৃত দুইটি মোবাইল ফোন বন্ধ রয়েছে।

এদিকে পাপিয়া ঘোষের অপহরণকারীদের গ্রেপ্তারের দাবি ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ব্যর্থতার অভিযোগ তুলে ২৯ ফেব্রুয়ারি বিকাল ৪টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বেশকিছু প্রগতিশীল সংগঠন মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করে। একইসাথে তারা পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করে অবিলম্বে পাপিয়া ঘোষকে উদ্ধার করার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এ বিষয়ে জানতে উত্তরা পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তপন চন্দ্র সাহা বলেন, এ বিষয়ে তদন্ত চলছে। এখনো আমরা পাপিয়া ঘোষের কোন খোঁজ-খবর আমরা পাইনি।

আর/০৮:১৪/০৮ মার্চ

ঢাকা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে