Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ৩ এপ্রিল, ২০২০ , ২০ চৈত্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-২২-২০২০

ক্যারিবীয় স্যামিকে নাগরিকত্ব দেয়ার সিদ্ধান্ত পাকিস্তানের

ক্যারিবীয় স্যামিকে নাগরিকত্ব দেয়ার সিদ্ধান্ত পাকিস্তানের

ইসলামাবাদ, ২৩ ফেব্রুয়ারি - পাকিস্তানের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরানোর ক্ষেত্রে অসামাণ্য অবদান রেখে চলেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাবেক অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি। এমন একজন উপকারী বন্ধু নাগরিকত্ব চাইলেন আর তাতে চুপ থাকবে পাকিস্তানি কর্তৃপক্ষ তা যেন হতেই পারে না। এ কারণে পাকিস্তানি কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নিয়েছে ড্যারেন স্যামিকে সম্মানসূচক নাগরিকত্ব দেয়ার।

পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি তার কাছে পাঠানো ড্যারেন স্যামির আবেদন পত্রে স্বাক্ষর করে দিয়েছেন। এবার পাকিস্তানি নাগরিক হিসেবে আগামী ২৩ মার্চ ইসলামাদে দেশটির সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার নিশান-ই পাকিস্তান গ্রহণ করবেন।

ড্যারেন স্যামি একমাত্র ক্রিকেটার যিনি দু’বার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতেছেন। দু’বারের বিশ্বকাপ জয়ী ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক ডারেন স্যামি পাকিস্তানের নাগরিক হওয়ার বিষয়ে সবচেয়ে বেশি অবদান রেখেছেনে জাভেদ আফ্রিদি। যিনি পিএসএলে পেশোয়ার জালমির মালিক। তার অনুপ্রেরণাতেই নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করেন স্যামি।

দেশকে দু’বার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এনে দেওয়া এই ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে টি-টোয়েন্টি লিগ খেলে বেড়াচ্ছেন। খেলেছেন আইপিএলেও। আইপিএলে সফল না-হলেও পাকিস্তান সুপার লিগ তথা পিএসএল খেলতে এই মুহূর্তে পাকিস্তানে রয়েছেন স্যামি।

পিএসএলের পঞ্চম সংস্করণে পেশোয়ার জালমিকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন তিনি। স্যামিকে সাম্মানিক নাগরিকত্ব দেওয়ার জন্য প্রস্তাব পাঠানো হয় পাকিস্তানের প্রেসিডেন্টের কাছে। অবশেষে সেই নাগরিকত্বের আবেদন গ্রহণ করে নিয়েছে পাকিস্তান।

পিএসএলের আগে নিয়মিত আইপিএলেও খেলতেন স্যামি। তবে তিন মৌসুমে আলাদা আলাদা ফ্র্যাঞ্চাইজির জার্সিতে খেলেছেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদ, আরসিবি এবং কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের হয়ে। ২০১৭ সালে শেষবার প্রীতি জিনতার ফ্র্যাঞ্চাইজি কিংস ইলেভেনের হয়ে শেষবার আইপিএলে অংশ নিয়েছেন তিনি।

২০১৬ সাল থেকেই পিএসএলে পেশোয়ার জালমির হয়ে খেলছেন স্যামি। তবে সেন্ট লুসিয়ার এই ক্রিকেটার দলটির নেতৃত্ব দিচ্ছেন ২০১৭ সাল থেকে। প্রথম আসরে তাদের অধিনায়ক ছিলেন শহিদ আফ্রিদি।

টানা পাঁচ মৌসুম পাকিস্তান সুপার লিগে খেলছেন। প্রতিবারই পাকিস্তানে এসে সে দেশের প্রতি ভালোবাসার কথা জানিয়েছেন। স্যামিই প্রথম আন্তর্জাতিক তারকা ক্রিকেটার, যিনি পাকিস্তানের মাটিতে খেলতে রাজি হয়েছিলেন। তখন থেকেই এই ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটারের পাকিস্তান প্রেম।

পিএসএল ফ্র্যাঞ্চাইজি কর্তা জাভেদ আফ্রিদি ক্রিকেট পাকিস্তান.কম.পিকে-কে জানিয়েছেন, ‘স্যামিকে যাতে দেশের সাম্মানিক নাগরিকত্ব দেওয়া হয়, সেই প্রস্তাব আমরা পাঠাতে সহায়তা করেছি। এই প্রস্তাব প্রেসিডেন্টের কাছে পাঠানো হয়। পিসিবি চেয়ারম্যানকেও আমরা অনুরোধ করে জানিয়েছি, তিনি যেন বার্তা দেন।’

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ২৩ ফেব্রুয়ারি

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে