Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ৩ এপ্রিল, ২০২০ , ২০ চৈত্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-২১-২০২০

খেলতে নয়, শেখার জন্যই দলে নেয়া হয়েছে মোস্তাফিজকে

খেলতে নয়, শেখার জন্যই দলে নেয়া হয়েছে মোস্তাফিজকে

ঢাকা, ২২ ফেব্রুয়ারি - জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের স্কোয়াডে ছয়টি পরিবর্তন এনেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। পাকিস্তানের মাটিতে সবশেষ টেস্টের স্কোয়াড ছিলো ১৪ জনের, ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের স্কোয়াডে রাখা হয়েছে ১৬ জন ক্রিকেটারকে।

পাকিস্তান সফরের টেস্ট স্কোয়াড থেকে বাদ পড়েছেন সৌম্য সরকার, আলআমিন হোসেন, রুবেল হোসেন এবং মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। বিপরীতে দলে নেয়া হয়েছে ইয়াসির আলি রাব্বি, হাসান মাহমুদ, তাসকিন আহমেদ, মেহেদি হাসান মিরাজ, মুশফিকুর রহীম এবং মোস্তাফিজুর রহমানকে।

এদের মধ্যে প্রথমবারের মতো স্কোয়াডে সুযোগ পেয়েছেন ইয়াসির আলি রাব্বি, হাসান মাহমুদ। প্রক্রিয়া মেনেই বাদ পড়ার পর আবার দলে ফিরেছেন তাসকিন ও মিরাজ। তবে মুশফিক ফিরেছেন এক ম্যাচ পর, নিরাপত্তার কারণ দেখিয়ে তিনি যাননি পাকিস্তান সফরে। এবার টেস্ট দেশের মাটিতে হওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই দলে ফেরানো হয়েছে তাকে।

চারজনকে বাদ দেয়া এবং এ পাঁচজনকে নেয়ার ব্যাপারে খুব একটা প্রশ্ন তোলার সুযোগ নেই। কিন্তু স্কোয়াডে ঠিক কী কারণে জায়গা পেলেন মোস্তাফিজ- সে ব্যাপারে শুরু থেকেই ছিলো সংশয়। পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচের স্কোয়াড থেকে বাদ দেয়ার সময় বলা হয়েছিল, তিনি টেস্ট খেলার জন্য ফিট নন।

কিন্তু সপ্তাহদুয়েকের মধ্যেই আবার জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে রাখা হলো স্কোয়াডে। যা সৃষ্টি করেছিল ধোঁয়াশার। প্রশ্নবিদ্ধ করে দিচ্ছিল নির্বাচকদের সিদ্ধান্ত। আজ (শুক্রবার) ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে সেসব সংশয়, সন্দেহ দূর করে দিলেন টাইগারদের হেড কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো।

তিনি সাফ জানিয়েছেন, এ টেস্টে খেলবেন না মোস্তাফিজ। বরং নতুন বোলিং কোচের সঙ্গে টেকনিক্যাল বিষয় শেখার জন্য রাখা হয়েছে স্কোয়াডে। আর মোস্তাফিজকে দলে নেয়ার বিষয়ে যে একটা ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে সবার, সেটিও মনে করিয়ে দিলেন ডোমিঙ্গো। তার ভাষ্যে, ‘আমি জানি মোস্তাফিজের বিষয়টিকে ঘিরে কিছু ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে সবার।’

ডোমিঙ্গো আরও বলেন, ‘আমি মনে করি না মোস্তাফিজ টেস্ট খেলার জন্য প্রস্তুত আছে। এখনও কিছু টেকনিক্যাল কাজ করতে হবে তার। যাতে করে ডানহাতি ব্যাটসম্যানের জন্য ভেতরের দিকে বল ঢোকাতে পারে সে। স্কোয়াডে সুযোগ পাওয়াটা আসলে এই প্রক্রিয়ারই একটা অংশ। যাতে করে আমাদের নতুন বোলিং কোচের সঙ্গে সে কাজ করতে পারে।’

যদি টেস্টে না-ই রাখা হয় তাহলে স্কোয়াডে ডাকা হলো কেন। যেখানে মোস্তাফিজ ছাড়াও রয়েছেন আরও চার পেসার! এই প্রশ্নেরও অবসান ঘটিয়েছেন ডোমিঙ্গো। মূলত আগামী পাঁচদিন যেনো বোলিং কোচের সঙ্গে নিবিড়ে কাজ করতে পারেন, এ কারণেই নেয়া হয়েছে মোস্তাফিজকে। আর তা করতে পারলে সাদা পোশাকের ক্রিকেটেও ফায়দা হবে বলে মনে করে টাইগারদের প্রোটিয়া কোচ।

তিনি বলেন, ‘আমার মতে, তাকে খেলানোর জন্য স্কোয়াডে ডাকা হয়নি। তাকে নেয়ার মূল উদ্দেশ্য অনুশীলন করানো এবং নিজের সেরা ছন্দে ফিরিয়ে আনা। মোস্তাফিজ এই টেস্ট খেলছে না। আমি আপনাদের বলে দিলাম, সে এই ম্যাচ খেলছে না। আগামী পাঁচদিন সে শুধু বোলিং করে যাবে এবং নিশ্চিত করবে যেনো নিজের সেরা ফর্মটা ফিরে পায়। যা তাকে টেস্ট ক্রিকেট, এমনকি সাদা বলের ক্রিকেটেও সহায়তা করবে। এ মুহূর্তে তাকে টেস্টে খেলার মতো দেখছি না আমি। এটা তাকেও বলেছি আমি এবং পরামর্শ দিয়েছি যেনো টেকনিক্যাল বিষয় নিয়ে কাজ করে।’

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ২২ ফেব্রুয়ারি

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে