Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ২৯ মার্চ, ২০২০ , ১৫ চৈত্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-২১-২০২০

দ. কোরিয়ায় জরুরি অবস্থা

দ. কোরিয়ায় জরুরি অবস্থা

সিউল, ২২ ফেব্রুয়ারি - প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের আক্রমণে দ্বিতীয় মৃত্যুর ঘটনার পর দক্ষিণ কোরিয়ায় নতুন করে ১০০ জন আক্রান্ত হওয়ায় দেশটিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে সেখানে দ্রুতই বিধ্বংসী এ ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে। দক্ষিণ কোরিয়ার প্রধানমন্ত্রী চুং সি-কিয়োন পরিস্থিতি ব্যাখ্যা করে জরুরি অবস্থার ঘোষণা করেন।

দক্ষিণ কোরিয়ার দক্ষিণাঞ্চলের শহর দেয়াগো ও চেয়োংদোকে ‘বিশেষ নজরদারি এলাকা’ ঘোষণা করা হয়েছে। অন্যদিকে তিন সেনার শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হওয়ায় সেনা ঘাঁটিগুলো অন্যান্য এলাকা থেকে বিচ্ছিন্ন রাখা হয়েছে। দেয়াগো শহরের শপিংমল ও সিনেমা হলগুলো বন্ধ রাখা হয়েছে। গণপরিবহনগুলো একেবারে সীমিত পর্যায়ে নিয়ে আসা হয়েছে। রাস্তাঘাট ফাঁকা হয়েছে। স্থানীয় এক অধিবাসী ফোনে বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানিয়েছেন, “পরিস্থিতি দেখে মনে হচ্ছে, শহরের মাঝখানে কেউ বোমা ফেলেছে। অনেকটা জঙ্গি হামলার মতো বিপর্যয় ঘনিয়ে এসেছে বলে মনে হচ্ছে। দেয়াগো শহরে একটি চার্চে প্রার্থনায় যোগ দেওয়া ৯০ জন মানুষের মধ্যে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ধরা পড়ার পর শহরটির মেয়র অধিবাসীদের ঘরে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। কোরোনা আক্রান্ত এক নারী সাংবাদিকদের বলেছেন, আমরা নজিরবিহীন সংকটে আছি। ৬১ বছর বয়সী এই নারীও চার্চের প্রার্থনায় যোগ দিয়েছিলেন। তার করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। চার্চের সবাইকেই ভাইরাস পরীক্ষা করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এদিকে চীনের চারটি কারাগারে পাঁচ শতাধিক মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে দুটি কারাগার চীনের হুবেই প্রদেশে আর বাকি দুটি হুবেইয়ের বাইরে অবস্থিত। গতকাল শুক্রবার একটি রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হুবেই প্রদেশের একটি মহিলা কারাগারে ২৩০ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। অপরদিকে সায়াং হানজিন কারাগারে ৪১ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। শুক্রবার সিনহুয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীনের সাংডং প্রদেশের রেনচেং কারাগারে ২০৭ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এদের মধ্যে সাতজনই ওই কারাগারের কর্মকর্তা এবং বাকিরা কারাগারের কয়েদি।

গত ৩১ ডিসেম্বর হুবেই প্রদেশের উহান শহরেই প্রথমবারের মতো করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়ে। এর পর থেকেই চীনের বিভিন্ন স্থানসহ বিশ্বের অনেক দেশেই এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ২২৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে আর আক্রান্ত হয়েছেন ৭৫ হাজার জন।

সূত্র : আমাদের সময়
এন এইচ, ২২ ফেব্রুয়ারি

এশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে