Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ৭ এপ্রিল, ২০২০ , ২৪ চৈত্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-১৬-২০২০

সেই জি কে শামিমের ১০টি সরকারি চুক্তি বাতিল করা হল

আরমান হোসেন


সেই জি কে শামিমের ১০টি সরকারি চুক্তি বাতিল করা হল

ঢাকা, ১৬ ফেব্রুয়ারি- ক্যাসিনো বিরোধী অভিযানের সময় আটক জি কে শামিমের প্রতিষ্ঠান জি কে বিল্ডার্সের সাথে করা ১০টি সরকারি নির্মাণ চুক্তি বাতিল করা হয়েছে। এই ১২ চুক্তির মধ্যে সচিবালয়ের নতুন ভবন নির্মাণ, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের নতুন ভবন নির্মাণসহ আরো নানা হেভিওয়েট প্রকল্প ছিল। রবিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) চুক্তি বাতিলের কথা ঘোষণা করা হয়। জিকে শামিম সঙ্গে সম্পৃক্ততার অভিযোগে জাতীয় গৃহায়ণ কর্তৃপক্ষের(এনএইচএ) পাঁচ প্রকৌশলীকে নোটিশ দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন(দুদক)। প্রকৌশলীদের বর্তমান পদবী, কর্মস্থল, স্থায়ী ও বর্মমান ঠিকানা, জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বার পাসপোর্ট ও মোবাইল নম্বার চেয়েছে দুদক। সুষ্ঠু অনুসন্ধান ও তদন্তের স্বার্থে উল্লিখিত তথ্যাদি তদন্ত দলের প্রধান সংস্থাটির পরিচালক-২, সৈয়দ ইকবাল হোসেন এর দপ্তরে পাঠানোর জন্য বলা হয়েছে। যে সব প্রৗেশলীর তথ্যাদি চাওয়া হয়েছে তারা হলেন নির্বাহী প্রকৌশলী মুনিফ আহমে কাওছার মোর্শেদ, আশরাফুজ্জামান পলাশ,উপবিভাগীয় প্রকৌশলী শেখ সোহেল রানা এবং ডিপ্লোমা প্রকৌশলী রাদিউজ্জামান।

এ বিষয়ে প্রকৌশলী কাওছার মোর্শেদ বলেন, আমার সঙ্গে জিকে শামিমের কোন দিন দেখাও হয় নি। আর নোটিশ করেছে তাও শুনিনি। আমার মনে হচ্ছে কোথাও ভুলবুঝাবুঝি হচ্ছে। দুদক উদ্দেশ্যমূলকভাবে এই নোটিশ করেছে। অপর প্রকৌশলী শেখ সোহেল রানা বলেন, আমার লেভেলে কোন কাজই ছিলো না জিকে শামিমের। সুতরাং এই নোটিশ কেন করা হলে বুঝিনা। গত ২০ সেপ্টেম্বর রাজধানীর নিকেতন এলাকা থেকে শামীম ও তার দেহরক্ষীদের আটক করে র‌্যাব। শামীমের ব্যবসায়িক কার্যালয়ে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ মদ, আটটি আগ্নেয়াস্ত্র, নগদ এক কোটি ৮০ লাখ টাকা ও ১৬৫ কোটি টাকার এফডিআর ও বিদেশি মুদ্রা জব্দ করা হয়। বর্তমানে সে একাধিক মামলার আসামী হিসেবে কারান্তরীন।

অপর দিকে জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের হিসাব সহকারি মো: আশরাফুল আলমকে ৮ ডিসেম্বর দিনাজপুর ডিভিশনের আওতায় বগুড়ায় বদলী করা হয়। দিনাজপুর ডিভিশনের নির্বাহী প্রকৌশলী মোর্শেদ মাহমুদ চৌধুরি ২৯ ডিসেম্বর কর্তৃপক্ষকে জানান, ওই কর্মচারি বদলীকৃত স্থানে যোগদান করেন নি। এ বিষয়ে মো: আশরাফুল আলমের বক্তব্য হচ্ছে যারা সিবিএ করেন এবং দায়িত্বশীল পদে কাজ করছেন তাদের ঢাকার বাইরে বদলীর কোন বিধান নাই। এই সংক্রান্ত আইন জাতীয় সংসদে পাশ হয়েছে। অপর দিকে সংস্থাটির অফিস সহায়ক রাকিবুজ্জামানকে ৮ ডিসিম্বের একই আদেশে বগুড়ায় বদলী করা হলেও তিনি বদলীকৃত কর্মস্থলে যোগদান করেন নি।

সংস্থাটির একাধিক কর্মকর্তা জানান, এক শ্রেণীর কর্মচারি আছেন যারা নিজেদের সর্বেসর্বা ভাবেন। তাদের চলন বলন এমন যে তারাই সব। সাধারণ কর্মচারিদের ওপর তারা নিয়মিত খবরদারি করেন। কর্মকর্তাদের সঙ্গে অশোভন আচরণ করেন অনেকে। আতসম্মানের কারণে অনেক কর্মকর্তা তা প্রকাশ করেন না। ইতিপূর্বে এক কর্মচারিকে কুমিল্লায় বদলী করা হলে তিনি অফিস না করলেও হাজিরা খাতায় তার স্বাক্ষর রয়েছে। বিষয়টি সংস্থাটি চেয়ারম্যানর নজরে আসলে তিনি ওই কর্মচারিকে অনুপস্থিত দেখানো এবং বেতন কেটে রাখার নির্দেশ দেন। সংস্থাটিতে বিভিন্ন কাজে আসা সাধারণ প্লট বিংবা ফ্ল্যাট মালিকদের বিভিন্নভাবে হয়রানির অভিযোগ রয়েছে।

সূত্র : বিডি২৪লাইভ
এন কে / ১৬ ফেব্রুয়ারি

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে