Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ২ এপ্রিল, ২০২০ , ১৮ চৈত্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-১৬-২০২০

বাসন্তী সাজে জবি

বাসন্তী সাজে জবি

ঢাকা, ১৬ ফেব্রুয়ারি - নতুনের প্রত্যাশায় ঋতুরাজ বসন্তকে বরণ করে নিয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) শিক্ষার্থীরা। বসন্তকে ঘিরে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস সেজেছে রঙিন সাজে। বসন্তকে বরণ করতে ফাল্গুনের দ্বিতীয় দিন রোববার বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগ আয়োজন করে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের। বসন্ত বরণে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা বাসন্তী সাজে উপস্থিত হয় অনুষ্ঠানস্থলে। বাঙালি সংস্কৃতির অন্যতম এই উৎসবে মেয়েরা বাসন্তী রঙের শাড়ির সঙ্গে খোঁপায় হলুদ গাঁদা কিংবা রজনীগন্ধা গুঁজে হাজির হয় ক্যাম্পাসে। কারো কারো কপালে টিপের সঙ্গে মাথায় ছিল নানা রকমের ফুলে জড়ানো টায়রা। ছেলেদের পাঞ্জাবি বা অন্যান্য পোশাকেও ছিল বসন্তের সঙ্গে সাদৃশ্যপূর্ণ রঙের আবহ। কেন্দ্রীয় মিলনায়তনকেও সাজানো হয়েছিলো ফাগুনের রঙে।

‘আসবে বসন্ত ম্যানেজমেন্টে’ প্রতিপাদ্যে জবির ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগের ‘বসন্তোৎসব’ অনুষ্ঠিত হয়। রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মিলনায়তনে এ বসন্ত বরণ উৎসব শুরু হয়ে চলে দিনব্যাপী।

এ বসোন্তৎসবের উদ্বোধন করেন উপাচার্য ড. মীজানুর রহমান। এসময় উপস্থিত ছিলেন কোষাধ্যক্ষ ড. কামালউদ্দিন, প্রক্টর ড. মোস্তফা কামাল, ব্যবসায় অনুষদের ডিন ড. এ কে এম মনিরুজ্জামান, রেজিস্টার ড. ওহিদুজ্জামান ও বিভাগের চেয়ারম্যান ড. গোলাম মোস্তফা।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে এই ধরনের সাংস্কৃতিক আয়োজন করা একান্ত জরুরি। আমি মনে করি এগুলোর মাধ্যমে আমাদের বাঙালিত্ব, আমাদের শাশ্বত জাতিসত্তা ফুটে ওঠে। আর যারা এসব আয়োজনের সাথে যুক্ত থাকে তাদের যোগ্যতাও বিকশিত হয়।

বিভাগের ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী বিকাশ সরকার বলেন, ব্যবস্থাপনা শিক্ষা বিভাগের এ ধরণের ঐতিহ্যবাহী আয়োজন সবসময় একটু ভিন্নরকম। কারণ বাঙালিয়ানা সকল সংস্কৃতিকেই লালন করে এই বিভাগ। জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে ষড়ঋতুর বাংলাদেশের বৈচিত্র্য বিলুপ্তির পথে। এ ধরনের আয়োজনের মাধ্যমে আমরা আমাদের প্রাকৃতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য লালন করতে চাই।

তিনি বলেন, আবহমান বাঙালির উৎসব হিসেবে বসন্ত খুবই তাৎপর্যপূর্ণ। বসন্তোৎসব বাঙালি সংস্কৃতির বীরত্ব হিসেবে উৎসবে পরিণত হয়েছে। আমরা ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ বিভাগ পলাশ-শিমুলের বসন্তকে রঙিনভাবে রাঙিয়ে তুলতে সর্বাত্মক চেষ্টা করেছি।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ১৬ ফেব্রুয়ারি

শিক্ষা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে