Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২০ , ৫ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.1/5 (78 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৯-৩০-২০১১

সীমান্তে হত্যা সুসম্পর্কের অন্তরায়: বিজিবিপ্রধান

সীমান্তে হত্যা সুসম্পর্কের অন্তরায়: বিজিবিপ্রধান
ঢাকা, সেপ্টেম্বর ৩০ (বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম)- সীমান্তে বাংলাদেশি হত্যা পুরোপুরি বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে এতে ভারতীয় কর্তৃপক্ষের আশ্বাস পেয়েছেন বিজিবিপ্রধান মেজর জেনারেল আনোয়ার হোসেন।
ঢাকায় বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত সম্মেলনের পর শুক্রবার যৌথ সংবাদ সম্মেলনে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের মহাপরিচালক আনোয়ার বলেন, সীমান্তে হত্যার ঘটনা অগ্রহণযোগ্য এবং তা দুই দেশের সুসম্পর্ক নষ্ট করছে।

ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী- বিএসএফের মহাপরিচালক রমন শ্রীবাস্তব সীমান্তে হত্যার ঘটনা কমে আসার তথ্য তুলে ধরে বলেন, "আমরা এটা শূন্যের পর্যায়ে নামিয়ে আনতে চাই।"

সোমবার থেকে শুরু হওয়া বিজিবি-বিএসএফ মহাপরিচালক পর্যায়ে সম্মেলনে উভয় দেশের সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর প্রধান নিজ নিজ দেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন।

সীমান্তে হত্যার বিষয়ে বিজিবি মহাপরিচালক বলেন, "এ কারণে দুদেশের মধ্যে উত্তেজনা ছিলো, তবে স?প্রতি দুদেশের প্রধানমন্ত্রীদের মধ্যে আলোচনার পর তা কমে এসেছে।"

"আমরা আন্তর্জাতিক রীতি মেনে চলি এবং কোনো ভারতীয় অবৈধভাবে সীমান্ত পার হলে আমরা তার ওপর গুলি চালাই না, শুধু গ্রেপ্তার করি," সীমান্তে নিজেদের সহনীয় আচরণ তুলে ধরে তা বিএসএফকেও অনুসরণ করতে বলেন বিজিবিপ্রধান।

বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স-বিএসএফের মহাপরিচালক রমন শ্রীবাস্তব সীমান্তে হত্যাকাণ্ডের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, "হত্যার উদ্দেশ্য আমাদের নেই এবং এটা উল্লেখযোগ্য হারে কমে এসেছে।"

২০০৯ সালে সীমান্তে নিহতের সংখ্যা ৫৫ হলেও ২০১১ সালে এ সংখ্যা সাত জনে নেমে এসেছে জানিয়ে তিনি বলেন, "আমি আবারো বলছি, আমরা এটি শূন্যের পর্যায়ে নামিয়ে আনতে চাই।"

বিএসএফপ্রধান জানান, নিজেদের সংযত করতে ইতোমধ্যেই অনেক এলাকায় প্রাণঘাতী নয়, এমন অস্ত্র ব্যবহার শুরু করেছে বিএসএফ।

তিন বিঘা করিডোর

তিনি বিঘা করিডোর ২৪ ঘণ্টার জন্য খুলে দেওয়ার পর শুরুর দিকে কিছুটা সমস্যা হলেও এখন সব ঠিক আছে বলে জানান বিজিবি মহাপরিচালক আনোয়ার।

সেপ্টেম্বর মাসের শুরুর দিকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের বাংলাদেশ সফরের সময় দহগ্রাম-আঙ্গরপোতা ছিটমহলে যাওয়া-আসার জন্য তিন বিঘা করিডোর ২৪ ঘণ্টা অবাধ চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হয়।

সীমান্ত ব্যবস্থাপনা পরিকল্পনা

দুুদেশের মধ্যে যৌথ সীমান্ত ব্যবস্থাপনার জন্য একটি পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়েছে বলে জানান বিজিবি মহাপরিচালক।

তিনি বলেন, "সীমান্ত এলাকায় মাদক ও মানবপাচার এবং অবৈধ পারাপার নিয়ন্ত্রণে কাজ করবো আমরা।"

বিএসএফ মহাপরিচালক বলেন, ৩১ অক্টোবরের মধ্যে সীমান্ত ব্যবস্থাপনা পরিকল্পনা সম্পূর্ণরূপ পাবে।

অপরাধীদের তালিকা

বিএসএফ মহাপরিচালক রমন বলেন, অপরাধী, বিচ্ছিন্নতাবাদী ও জাল অর্থ পাচারকারীদের একটি তালিকা বাংলাদেশকে দেওয়া হয়েছে এবং এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।

তিনি বলেন, "এ ব্যাপারে প্রশংসাযোগ্য সহযোগিতা করছে বাংলাদেশ।"

বাংলাদেশে জাল মুদ্রা তৈরি না হলে এ ভূখণ্ড পাচারের ট্রানজিট হিসেবে ব্যবহার হয় বলে উল্লেখ করেন বিএসএফপ্রধান।

বিজিবি মহাপরিচালক আনোয়ার জানান, গত বছর বিজিবি একটি তালিকা হস্তান্তর করে, তবে অভিযান চালিয়ে কিছু পায়নি স্থানীয় কর্তৃপক্ষ।

বাংলাদেশের ভূখণ্ড ব্যবহার করে সন্ত্রাসী কাজ করতে না দেওয়ার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর হুঁশিয়ারির কথা তুলে ধরে বিজিবিপ্রধান বলেন, "আমরা অপরাধীদের খুঁজে বের করবো।"

পরিসংখ্যান

সংবাদ সম্মেলনে সীমান্ত পরিস্থিতি বিষয়ে একটি বিস্তারিত পরিসংখ্যান তুলে ধরেন বিএসএফপ্রধান রমন শ্রীবাস্তব।

তিনি জানান, ২০০৯ সালে ৫৫ বাংলাদেশিকে হত্যা করে বিএসএফ। ২০১০ সালে সংখ্যাটি ছিলো ৩২ জন। তবে চলতি বছরে সীমান্তে হত্যাকাণ্ডের সংখ্যা সাত।

তিনি দাবি করেন, ২০০৯ সালে অবৈধভাবে সীমান্ত পার করার সময় ৩৭ ভারতীয় এবং ২০১০ সালে ২৩ ভারতীয়কেও হত্যা করে বিএসএফ। তবে ২০১১ সালে এ সংখ্যাটিও পাঁচ জনে নেমে আসে।

রমন জানান, এছাড়া অপরাধীদের হাতে ২০০৯ সালে ১১ বিএসএফ সদস্য আহত হয়। ২০১০ সালে এ সংখ্যা বেড়ে ৫৭-তে দাঁড়ায়। ২০১১ সালে অপরাধীদের হাতে এক বিএসএফ সদস্য নিহতসহ ৭৭ সদস্য আহত হয়।

তিনি আরো বলেন, ২০০৯ সালে ৬৮৫ বাংলাদেশিকে গ্রেপ্তার করে বিএসএফ। ২০১০ সালে ১ হাজার ৬৩৮ জনকে এবং ২০১১ সালে ২ হাজার ৩০০ বাংলাদেশিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এছাড়া ২০০৮ সালে সীমান্তের বেড়া কাটার ঘটনা ঘটে ৩৩৩টি, ২০০৯ সালে ৫৬৬টি. ২০১০ সালে ৯২৪টি এবং ২০১১ সালে ৬৩৮টি।

এশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে