Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ২৫ মে, ২০২০ , ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

গড় রেটিং: 3.0/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০২-১১-২০২০

টাইমস স্কয়ারে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত তথ্য দিচ্ছে রোবট

টাইমস স্কয়ারে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত তথ্য দিচ্ছে রোবট

নিউইয়র্ক, ১১ ফেব্রুয়ারি- নতুন করোনাভাইরাস নিয়ে যখন বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক ও শঙ্কা বিরাজ করছে  তখন নিউ ইয়র্কের টাইমস স্কয়ারে ভাইরাসটি সংক্রান্ত তথ্য ও পরামর্শ দিয়ে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে ৫ ফুট উচ্চতার একটি রোবট।

বন্ধুত্বপূর্ণ মুখাবয়বের এ ‘প্রমোবট’টি সোমবার পর্যটকধন্য টাইমস স্কয়ারে প্রাণঘাতী নভেল করোনাভাইরাস নিয়ে অসংখ্য লোকের কৌতুহল ও উদ্বেগ মিটিয়েছে বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে বানানো স্বয়ংক্রিয় রোবটকে প্রমোবট নামে ডাকা হয়।

টাইমস স্কয়ার ঘুরে বেড়ানো প্রমোবটটির বুকের সঙ্গে আইপ্যাডের মতো একটি টাচস্ক্রিন লাগানো ছিল। করোনাভাইরাস নিয়ে আগ্রহী যে কোনো ব্যক্তি ওই টাচস্ক্রিনে থাকা প্রশ্ন বা তথ্যতে ক্লিক করলে রোবটটি তার উত্তর জানায়। কেউ কেউ এমনকী প্রমোবটটির সঙ্গে আলাপও জুড়েছিলেন।

স্বয়ংক্রিয়ভাবে সেবা দিতে সক্ষম এ রোবটটি বানিয়েছে রাশিয়ানদের পরিচালিত ফিলাডেলফিয়াভিত্তিক একটি স্টার্টআপ প্রতিষ্ঠান।

“আমরা একটি বিশেষ সফটওয়ার বানিয়েছি, যা করোনাভাইরাসের লক্ষণ শনাক্ত করতে পারে। আমরা বুঝতে পারছি, এই (করোনাভাইরাস) সমস্যা কতখানি গুরুতর; মানুষ দিশেহারা, আতঙ্কিত এটি নিয়ে। কিন্তু তারা যদি সামান্য কিছু জানে, যেমন- করোনাভাইরাসের লক্ষণ কী, কীভাবে সুরক্ষিত থাকা যাবে, তাহলে সবাই ভালো থাকবে, সবাই খুশি হবে,” বলেছেন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা ওলেগ কিভোরকুৎসেভ।

লক্ষণ বলতে পারলেও টাইমস স্কয়ারে তথ্য ও পরামর্শ দেওয়া রোবটটি করোনাভাইরাস শনাক্ত করতে পারে না বলে রয়টার্স জানিয়েছে।

প্রমোবটটি মূলত মানুষজনকে করোনাভাইরাসের বিভিন্ন লক্ষণ, যেমন তাদের জ্বর আছে কি না, সে বিষয়ে প্রশ্ন করতে পারে। কোনো ব্যক্তি যদি ওই প্রশ্নগুলোর জবাবে টাচস্ক্রিনের ‘না’ বাটনে চাপ দেন, তাহলে রোবট ব্যক্তিটিকে ‘করোনাভাইরাসে আক্রান্ত নন’ বলে আশ্বস্ত করে।

“এটি খুবই বুদ্ধিদীপ্ত, সত্যিই, সত্যিই বুদ্ধিদীপ্ত কাজ,” বলেছেন লন্ডন থেকে নিউ ইয়র্ক ঘুরতে আসা টারা হিলি।

কেউ কেউ অবশ্য ঠিক তার মতো এতটা উচ্ছ্বসিত নন।

“খানিকটা পাগলামি। তবে আমার কাছে এ সবকিছু নিয়েই নিউ ইয়র্ক,” বলেছেন স্কটল্যান্ড থেকে আসা টমাস ম্যাকঅ্যালিন্দেন।

আর/০৮:১৪/১১ ফেব্রুয়ারি

উত্তর আমেরিকা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে