Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯ , ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১১-১৯-২০১৩

হাসিনা-এরশাদের পা ছুঁয়ে চুন্নু-সালমার সালাম

সাজিদুল হক



	হাসিনা-এরশাদের পা ছুঁয়ে চুন্নু-সালমার সালাম

ঢাকা, ১৯ নভেম্বর- দশম সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে ‘সর্বদলীয়’ মন্ত্রিসভার শপথ অনুষ্ঠান ঘিরে পুরো বঙ্গভবন জুড়ে ছিল উৎসবের আমেজ।

সোমবার সন্ধ্যায় শপথ নেয়া নতুন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীর ছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনানসহ বঙ্গভবনের দরবার হলে আমন্ত্রিত অতিথিদেরও বেশ উৎফুল্ল দেখা গেছে।
 
প্রধানমন্ত্রীকে সালাম করলেন চুন্নু-সালমা
ছয় মন্ত্রীর শপথ নেয়ার পর প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন জাতীয় পার্টির সালমা ইসলাম এবং মুজিবুল হক চুন্নু।
 
শপথ নেয়ার পর প্রথমে সালমা ইসলাম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পা ছুঁয়ে সালাম করেন।
 
মুজিবুল হক চুন্নু প্রথমে সালাম করেন প্রধানমন্ত্রীর পাশের চেয়ারে বসা দলীয় চেয়ারপারসন হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদকে। পরে তিনি প্রধানমন্ত্রীকে সালাম করেন।
 
চুন্নুর পর এরশাদের পা ছুঁয়ে সালাম করেন সালমা ইসলাম।
 
শপথ নিতে সালমা দরবার হলে ঢোকার পর থেকেই আমন্ত্রিত অতিথিদের সঙ্গে কুশল-বিনিময় শুরু করেন।
 
রওশন এরশাদ দরবার হলে ঢোকার পর বেশ ব্যস্ত হয়ে পড়তে দেখা যায় জাতীয় পার্টির সংরক্ষিত আসনের এই সংসদ সদস্যকে।
মূল অনুষ্ঠান শুরু আগে নিজের নির্ধারিত চেয়ারে খুব কম সময়ই বসে থাকতে দেখা যায় দৈনিক যুগান্তরের সম্পাদক-প্রকাশক সালমাকে, যার স্বামী এই সংবাদপত্রটির মালিক।
 
শ্যালক-দুলাভাইয়ের কুশল বিনিময়
রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের শ্বশুরবাড়ি কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জে, ওই এলাকার সংসদ সদস্য মুজিবুল হক চুন্নু। ব্যক্তিগত মহলে তারা শ্যালক-দুলাভাই হিসেবেই পরিচিত।
 
রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ স্পিকারের দায়িত্বে থাকাকালীন শ্যালক-দুলাভাইয়ের এ সম্পর্ক নিয়ে চুন্নু সংসদের ফ্লোরেও হাস্যরস করেছেন। তৎকালীন স্পিকার আবদুল হামিদও তাতে সাড়া দিতেন।
 
প্রতিমন্ত্রী শপথ নেয়ার পর রাষ্ট্রপতি তার ‘শ্যালকের’ দিকে তাকিয়ে বলেন, “থ্যাঙ্কয়ু”। এসময় চুন্নু এগিয়ে এলে রাষ্ট্রপতি তাকে সই করার জন্য নির্ধারিত টেবিলে যেতে বলেন। সই করে আসার পর রাষ্ট্রপতির সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন চুন্নু।
 
আসন ছেড়ে দিলেন চুন্নু
অনুষ্ঠান শুরুর আগে এরশাদ ও জিএম কাদের একসঙ্গে দরবার হলে ঢোকেন। এরশাদ প্রধানমন্ত্রীর পাশের আসনে বসলেও তার ভাই ও জাতীয় পার্টির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কাদেরের জন্য সংরক্ষিত কোনো চেয়ার ছিল না।
 
এসময় প্রতিমন্ত্রীর শপথ নিতে আসা মুজিবুল হক চুন্নু নিজের নির্ধারিত চেয়ার জি এম কাদেরের জন্য ছেড়ে দিয়ে পেছনের সারিতে বসেন।
 
ছয় মন্ত্রী শপথ নেয়ার সময় অবশ্য চুন্নু শপথনামায় সই করার নির্ধারিত টেবিলে বসে ছিলেন।

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে