Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.5/5 (8 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১১-১৮-২০১৩

আজ মানবাধিকার কমিশনে যোগ দিলেন প্রাক্তন ডিজি


	আজ মানবাধিকার কমিশনে যোগ দিলেন প্রাক্তন ডিজি
কলকাতা, ১৮ নভেম্বর-  বিতর্কের মাঝেই আজ মানবাধিকার কমিশনে যোগ দিলেন রাজ্য পুলিসের প্রাক্তন ডিজি নপরাজিত মুখোপাধ্যায়। এর আগেই তাঁর এই নিয়োগকে ঘিরে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। এমনকি এই নিয়োগকে ঘিরে মামলাও হয় কলকাতা হাইকোর্টে। 
 
এরই মধ্যে আজ মানবাধিকার কমিশনে যোগ দিলেন নপরাজিত মুখোপাধ্যায়। তাই এই নিয়োগের প্রতিবাদে বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে বিভিন্ন মানবাধিকার কমিশনের সদস্যরা।
 
মানবাধিকার কমিশনে নপরাজিত মুখোপাধ্যায়ের নিয়োগ নিয়ে রাজ্যকে আইনি নোটিস দিয়েছিল এপিডিআর। স
 
নপরাজিতের নিয়োগ নিয়ে আগেই নিজেদের আপত্তির কথা জানিয়েছিল বাম দলগুলি। নপরাজিত মুখোপাধ্যায় রাজ্যের ডিজি থাকাকালীন বেশ কয়েকটি বিতর্কিত ঘটনার স্বাক্ষী থেকেছে রাজ্য।
 
৮ অগাস্ট, ২০১২- বেলপাহাড়িতে মুখ্যমন্ত্রীর সভাস্থল থেকে মাওবাদী তকমা দিয়ে গ্রেফতার শিলাদিত্য চৌধুরী।
 
২০১১ সালের অগাস্টে বাগদা থানায় তপন বারুই ও তাঁর দুই ছেলেকে অবৈধভাবে আটক এবং শারীরিক নিগ্রহ।
 
২১ সেপ্টেম্বর, ২০১১- হোমিওপ্যাথ চিকিতসক দীপঙ্কর দেকে বর্ধমান থানায় মারধর।
 
১৪ ডিসেম্বর থেকে ২৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত পুলিস হেফাজতে থাকাকালীন মতিউর রহমান নামে এক আসামীকে শারীরিক নিগ্রহ। পরে বা হাতের একটি আঙুল কেটে বাদ দিতে হয় তাঁর। আলম মণ্ডল, বুলান মুন্সি, বাবর আলি, হাতিম শেখের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিতে অস্বীকার মন্তেশ্বর থানার পুলিসের।
 
২৯ নভেম্বর, ২০১১- কুতুবউদ্দিন মণ্ডলের স্ত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ হরিহরপাড়া থানার পুলিসের বিরুদ্ধে।
 
১৮ জানুয়ারি, ২০১৩-ধনেখালি থানায় পুলিস হেফাজতে মৃত্যু তৃণমূল নেতা নাসিরুদ্দিন কাজীর।
 
 
এই আইনি নোটিসের কারণ স্পষ্ট করেছেন মানবাধিকারকর্মী রঞ্জিত শূর। নপরাজিত মুখোপাধ্যায় ডিজি থাকাকালীন যে ঘটনাগুলির তদন্ত এখনও চলছে সেগুলি হল,
 
সুটিয়ায় বরুণ বিশ্বাস খুনের ঘটনা।
 
বরুণ বিশ্বাস খুনের ঘটনার সিবিআই তদন্ত চাওয়ায় নন্দদুলাল দাসকে মাওবাদী তকমা দেয় পুলিস।
 
নদিয়ার গেদেতে তেরো বছরের স্কুল ছাত্রীকে বাড়ি ফেরার সময় গণধর্ষণ।
 
কামদুনিতে কলেজ ছাত্রীকে গণধর্ষণের ঘটনা।
 
খরজুনায় এক মহিলাকে ধর্ষণ করে খুনের ঘটনা।
 
আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য, নপরাজিত মুখোপাধ্যায় ডিজি থাকাকালীন ২০১১ থেকে ২০১২ সালের মধ্যে ৫ হাজার ৪৫৬টি ঘটনা মানবাধিকার কমিশনে নথিভুক্ত হয়। ২০১২-২০১৩ সালে অভিযোগের সংখ্যা প্রায় দ্বিগুন হয়ে দাঁড়ায় ৯ হাজার ৪১৫টিতে।
 
তাঁর ডিজি থাকাকালীন ৪টি ভুয়ো সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এবং ৫টি ক্ষেত্রে পুলিসের গুলি চালনায় ৫ জনের মৃত্যু হয়েছিল। সাত দিনের মধ্যে এই নোটিসের উত্তর দিতে হবে রাজ্যকে। না হলে আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে এপিডিআর। 

পশ্চিমবঙ্গ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে