Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ , ১৩ ফাল্গুন ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০১-২০-২০২০

সিটি নির্বাচনে কারচুপি হলেই সরকার পতনের আন্দোলন : মির্জা আব্বাস

সিটি নির্বাচনে কারচুপি হলেই সরকার পতনের আন্দোলন : মির্জা আব্বাস

ঢাকা, ২০ জানুয়ারি - ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) বিরোধিতা করলেও এর মাধ্যমে সঠিক ফলাফল এলে তা মেনে নেয়ার কথা জানালেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস। তিনি বলেন, ইভিএমে যদি সুষ্ঠু ও সঠিক ফলাফল আসে তাহলে আমরা নির্বাচন মেনে নেব। কিন্তু যদি কোনো কারচুপির আশ্রয় নেন তাহলে এই মেয়র নির্বাচন থেকে আপনাদের (সরকার) পতনের আন্দোলন শুরু হবে।

সোমবার (২০ জানুয়ারি) ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়রপ্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেনের ১১তম দিনের প্রচারণা শুরুর আগে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সামনে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে মির্জা আব্বাস এসব কথা বলেন।

আব্বাস বলেন, পত্রিকায় দেখলাম, বিএনপির টার্গেট এ নির্বাচনকে বিতর্কিত করা-কাদের (ওবায়দুল কাদের) সাহেবের এমন বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে আমি বলতে চাই, বিএনপির টার্গেট নির্বাচনে জয়ী হওয়া, নির্বাচনকে বিতর্কিত করা নয়। কারণ আপনারা জবরদস্তি করে বিজয়ী হওয়ার চেষ্টা করছেন। বিএনপি কখনই বিতর্কের মধ্যে ছিল না, নেই, থাকবেও না। আমরা চাই সুষ্ঠু ও সুন্দর নির্বাচন।

তিনি বলেন, আমরা যখন মেয়র ছিলাম তখন ঢাকার শহর এত নোংরা ছিল না। ঢাকা শহর এত যানজটের শহর ছিল না। আজকের এই ১৩ বছরে আওয়ামী লীগ সরকারের শাসন আমলে ঢাকা শহরকে ধ্বংস করে দিয়েছে।

‘বিগত ১৩ বছরে ঢাকা শহর যেই ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে সেই ধ্বংসস্তূপ থেকে উদ্ধার করার জন্য বিএনপি থেকে আমরা সাদেক হোসেন খোকার একজন যোগ্য উত্তরসূরি ইশরাক হোসেনকে মনোনয়ন দিয়েছি। ইশরাক যেকোনো প্রার্থী থেকে একজন যোগ্য প্রার্থী। ইনশাল্লাহ ইশরাক হোসেন ঢাকা শহরকে বাসযোগ্য সুন্দর নগরী উপহার দেবেন,’বলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস।

তিনি বলেন, ‘ব্যারিস্টার হাসনাত বিএনপির মেয়র ছিলেন, আমি মির্জা আব্বাস বিএনপির মেয়র ছিলাম, সাদেক হোসেন খোকা বিএনপি মেয়র ছিলেন। সে সময় ঢাকা পরিচ্ছন্ন নগরী ছিল সবুজ নগরী ছিল, ঢাকা শহর ধ্বংস হয়নি। ইশরাককে আপনারা সহযোগিতা করবেন, ইশরাককে আপনারা একটি ভোট দেবেন। আমার অভিজ্ঞতা ও সাদেক হোসেন খোকার অভিজ্ঞতা মিলিয়ে ইশরাক হোসেনকে সৎ পথে পরিচালনা করব।’

এ সময় অন্যদের মধ্যে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, যুগ্ম-মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, বিএনপি নেতা মীর সরাফত আলী সপু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবদলের সভাপতি রফিকুল আলম মজনু, সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা শাহিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ২০ জানুয়ারি

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে