Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ , ১০ ফাল্গুন ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (15 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০১-১৬-২০২০

সরকারি মাটি ইটভাটায় বিক্রি করছেন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা

সরকারি মাটি ইটভাটায় বিক্রি করছেন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা

লক্ষ্মীপুর, ১৭ জানুয়ারি - লক্ষ্মীপুরে চন্দ্রগঞ্জ থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক বাবুল আনসারী সরকারি খাল থেকে মাটি কেটে ইটভাটায় বিক্রি করছেন। সম্প্রতি তিনি সদর উপজেলা চরশাহী ইউনিয়নের একটি খাল থেকে মাটি বিক্রি করে অন্তত পাঁচ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন।

এদিকে অবৈধভাবে মাটি কাটার কারণে হুমকির মুখে পড়েছে ফসলি জমি ও আশপাশের এলাকা। এতে স্থানীয়দের অভিযোগের ভিত্তিতে বুধবার (১৫ জানুয়ারি) দুপুরে চরশাহীর ওই বাইজ্জার দাঁড়া খাল এলাকা থেকে মাটি পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত পাঁচটি পিকআপ ভ্যান জব্দ করে পুলিশ। এ সময় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

জানা গেছে, গত নভেম্বরে চরশাহী এলাকার ওয়াপদা খাল থেকে বালু উত্তোলন করে বিক্রির ঘটনায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা বাবুল আনসারীর বিরুদ্ধে প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দেয় স্থানীয়রা।

স্থানীয়দের অভিযোগ, উপজেলার চরশাহীর সোনালী ব্রিক ফিল্ডের পশ্চিম পাশে বাইজ্জার দাঁড়া খাল থেকে বাবুল প্রায় ১৫ দিন ধরে মাটি কেটে বিক্রি করছেন। প্রতিদিন একটি খনন যন্ত্র দিয়ে পাঁচটি পিকআপ ভ্যানের মাধ্যমে বিভিন্ন ইটভাটায় মাটি বিক্রি করা হচ্ছে। অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনাস্থল থেকে পাঁচটি পিকআপ জব্দ করে পুলিশ। এ সময় ঘটনাস্থলে থাকা বাবুল আনসারী কৌশলে পালিয়ে যান।

এ বিষয়ে বাবুল আনসারী বলেন, ইউপি চেয়ারম্যান খাল সংস্কারের জন্য মাটি কাটিয়েছেন। মাটিগুলো আশপাশের সড়ক এবং গর্তে ফেলা হয়েছে। তবে খাল থেকে মাটি কেটে বিক্রি করার বিষয়টি সঠিক নয়।

চরশাহী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলজার মোহাম্মদ বলেন, ব্রিক ফিল্ডের কারণে খাল ভরাট হয়ে গেছে। এতে খালের পানির প্রবাহ বন্ধ হয়ে যায়। পানি প্রবাহ চলমান রাখতে মাটি কাটতে বলেছি। মাটিগুলো আশপাশের সড়ক ও গর্তে ফেলা হয়েছে।

চন্দ্রগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জসিম উদ্দিন বলেন, মাটি পরিবহনের কারণে অভ্যন্তরীণ সড়কগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। ঘটনাস্থল গিয়ে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়। কাগজপত্র না থাকায় গাড়িগুলো জব্দ করা হয়।

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শফিকুর রিদোয়ান আরমান শাকিল বলেন, বিষয়টি কেউ আমাকে জানায়নি। তবে ইউপি চেয়ারম্যান কোনোভাবেই বালু উত্তোলন ও মাটি কাটার অনুমতি দিতে পারবেন না। কেউ যদি খাল থেকে বালু উত্তোলন ও মাটি কাটে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ১৭ জানুয়ারি

লক্ষীপুর

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে