Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ , ৫ ফাল্গুন ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০১-১৪-২০২০

দায়িত্ব বুঝে নিয়ে যা বললেন বার্সার নতুন কোচ

দায়িত্ব বুঝে নিয়ে যা বললেন বার্সার নতুন কোচ

অনেক জল্পনা-কল্পনার পর অবশেষে বরখাস্ত করা হয়েছে বার্সেলোনার কোচ আর্নেস্ত ভালভার্দেকে। তার জায়গায় দায়িত্ব দেয়া হয়েছে স্পেনের সাবেক ফুটবলার ও রিয়াল বেটিসের সাবেক কোচ কিকে সেতিয়েনকে। ২০২২ সালের জুন পর্যন্ত মেসি-সুয়ারেজদের কোচিং করাবেন সেতিয়েন।

মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে নতুন কোচকে সবার সামনে পরিচয় করিয়ে দিয়েছে বার্সেলোনা। পরে সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গী কথা বলেছেন ৬১ বছর বয়সী এ স্প্যানিশ কোচ। জানিয়েছেন বার্সেলোনায় তার লক্ষ্যের কথা, নিশ্চয়তা দিয়েছেন তার অধীনে ভালো ফুটবল খেলবে দল।

দায়িত্ব বুঝে নেয়ার প্রথম দিনেই দলের খেলোয়াড়দের সঙ্গে অনুশীলনে নেমে পড়েছিলেন সেতিয়েন। গত মে মাসের পর থেকে তিনি ছিলেন এক অর্থে বেকার। প্রায় ৮ মাস পর হুট করে বার্সেলোনার মতো বড় ক্লাবের দায়িত্ব পেয়ে রোমাঞ্চিত তিনি। বার্সার প্রস্তাব লুফে নিতে পাঁচ মিনিটও ভাবেননি সেতিয়েন।

নিজের রোমাঞ্চের কথা গোপন রাখেননি সেতিয়েন। তিনি বলেন, ‘ক্লাবকে ধন্যবাদ। আমি দূরতম কল্পনাতেও ভাবতে পারিনি যে এখানে (বার্সেলোনা) আসবো। আজ (মঙ্গলবার) আমার জন্য একটি বিশেষ দিন, আমি কৃতজ্ঞ। এই প্রকল্প এবং চ্যালেঞ্জ নিয়ে আমি রোমাঞ্চিত। গতকাল আমি নিজের শহরে ছিলাম আর আজ বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়দের কোচিং করাচ্ছি!’

তিনি আরও বলেন, ‘অবশ্যই আমার এটা গ্রহণ করতে পাঁচ মিনিটের বেশি লাগেনি। তাদের কল আমার কাছে বিস্ময় হয়েই এসেছিল। আমার অনেক বড় প্রোফাইল নেই, তাই কখনও ভাবিনি বার্সেলোনা আমার ব্যাপারে আগ্রহী হবে।’

বার্সেলোনা ও নেদারল্যান্ডের কিংবদন্তি ফুটবলার ইয়োহান ক্রুইফের সুন্দর ফুটবলের অনেক বড় ভক্ত সেতিয়েন। তার কাছে ফলাফলের চেয়ে মাঠে ভালো খেলাটাই বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এ দর্শনকে সামনে রেখেই বার্সেলোনা ভালো খেলবে বলে নিশ্চয়তা দেন তিনি।

সেতিয়েনের ভাষ্যে, ‘আমার যেটা আছে, সেটা দর্শন, যেটা আমি ভালোবাসি। আমি নিশ্চিত ছিলাম না, এটা যথেষ্ট কি না, কিন্তু আমি কৃতজ্ঞ। যখন আমি কোনো দলে যাই, একটা ব্যাপারে আমি নিশ্চয়তা দিতে পারি, দল ভালো খেলবে। আমি জানি না, আমার পথই সেরা কি না। তবে এটাই আমার পথ। আমি বিশ্বাস করি, আমি যে পরিকল্পনা পছন্দ করি, সেটা ওদের কাছে নিয়ে যেতে পারব এবং সব কিছুরই উন্নতি করা সম্ভব। অবশ্যই মূল লক্ষ্য হবে যত সম্ভব সব জেতা।’

নিজের দর্শনের প্রতি জোর দিয়ে তিনি বলেন, ‘গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হচ্ছে দর্শন। আমাদের পদ্ধতিতে আমরা কিছু ব্যাপার হয়তো পরিবর্তন করব। আমাদের খেলোয়াড়দের মূল্যায়ন করতে হবে এবং ওদের সঙ্গে কথা বলতে হবে। কিন্তু দর্শনের কোনো পরিবর্তন হবে না। এই ক্লাব চায়, প্রতি বছর উন্নতি করতে, যত বেশি সম্ভব শিরোপা জিততে এবং একই সঙ্গে ভালো খেলতে। বাস্তবতা হচ্ছে, যতক্ষণ না নতুন ক্লাবের ভেতরে যাওয়া যাচ্ছে, ততক্ষণ পর্যন্ত এর সব কিছু জানা সম্ভব নয়, সব কিছুই নতুন।’

খেলোয়াড়দের বুঝে উঠতে আরও খানিক সময়ের প্রয়োজন বলে মনে করেন বার্সার নতুন কোচ। পারস্পরিক শ্রদ্ধা ও নিজেদের অবস্থান থেকে সেরাটা দেয়ার মানসিকতাই দলকে সাফল্যে এনে দিতে পারবে বলেন জানান তিনি।

‘এই দল, এই খেলোয়াড়দের খেলা দেখাটা আমি অনেক বছর ধরে উপভোগ করছি। বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়কে অনুশীলন করানো- আমি এখনও পুরোপুরি বুঝে উঠতে পারিনি এর অর্থটা কী। আমি তার এবং অন্যদের সঙ্গে কথা বলেছি। একটা ব্যাপার হচ্ছে শ্রদ্ধা, আরেকটা হচ্ছে সবাই নিজের জায়গায় থাকবে।’

এসময় সেতিয়েন জানান, তিনি বার্সার বিদায়ী কোচ ভালভার্দের সঙ্গেও কথা বলেছেন। যাতে করে দল সম্পর্কে ভালো ধারণা পেতে পারেন, ‘ভালভার্দেকে আমার সব সময়ই সঠিক ব্যক্তি মনে হয়েছে। কিছু ব্যাপারে আলোচনা করতে আমি তার সঙ্গে কথা বলেছি। কারণ, তার কাজে অনেক কিছুই আমার জন্য কার্যকর হবে।’

সূত্র: জাগোনিউজ

আর/০৮:১৪/১৫ জানুয়ারি

ফুটবল

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে