Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ২৭ মে, ২০১৯ , ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.9/5 (141 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১২-১৮-২০১১

স্বাধীনতার ঘোষক নিয়ে মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ হাই কমিশনে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে উত্তেজনা

স্বাধীনতার ঘোষক নিয়ে মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ হাই কমিশনে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে উত্তেজনা
১৭ ডিসেম্বর, ২০১১
স্বাধীনতার ঘোষক নিয়ে শুক্রবার মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ হাই কমিশনের উদ্যোগে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিদের মধ্যে উত্তেজনা

মহান স্বাধীনতার ঘোষক নিয়ে শুক্রবার মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশ হাই কমিশনের উদ্যোগে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। এ অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপ্রধানদের দেওয়া বাণীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বাধীতার ঘোষক বলায় তাৎক্ষনিক এর তীব্র প্রতিবাদ জানান উপস্থিত বিএনপি ও এর সহযোগি সংগঠনের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। এ নিয়ে এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে কিছুটা উত্তেজনা দেখা দেয়।

তবে কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। এক পর্যায়ে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দলীয় নেতৃবৃন্দ তাদের স্ব স্ব অবস্থান থেকে স্বাধীনতার ঘোষকা নিয়ে বক্তব্য দেন।

শুক্রবার সকালে মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরের আমপাং এলাকায় বাংলাদেশ হাই কমিশন কার্যালয়ে কমিশন মহান বিজয় দিবসের ৪০ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে আলোচনা সভার আয়োজন করে।

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশী হাই কমিশনের কমিশনার এম আতিকুর রহমান। আলোচনা সভায় মালয়েশিয়াতে অবস্থিত বাংলাদেশী প্রবাসী, বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সভার শুরুতে হাই কমিশনের জনৈক কর্মকর্তা বিজয় দিবস উপলক্ষ্যে বাংলাদেশ রাষ্ট্রপ্রধানদের দেওয়া এক বাণী পড়ে শোনান। এতে স্বাধীনতার ঘোষক হিসেবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাম উচ্চারণ করায় তাৎক্ষনিক ক্ষোভ ও এর প্রতিবাদ জানান ওই অনুষ্ঠানের আমন্ত্রিত অতিথি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল এর কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি ও বিএনপি মালয়েশিয়া শাখার আহবায়ক মাহবুব আলম শাহ। এসময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত অন্য বিএনপি নেতাকর্মীরাও এর তীব্র প্রতিবাদ করেন। পরে মাহবুব আলম শাহ তার বক্তব্যে বলেন, সাবেক সফল রাষ্ট্রনায়ক বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা ও বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা জিয়াউর রহমানই প্রথম স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন। এখন এ নিয়ে বিতর্কের কোন অবকাশ নেই। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ফ্যাসিবাদ চরিত্র কায়েম করে এখন দেশের প্রকৃত ইতিহাস বিকৃত করার চেষ্টা করছে।

মাহবুব তার বক্তব্যে এ ধরনের ইতিহাস বিকৃতির তীব্র নিন্দা করেন এবং স্বাধীনতার ঘোষক হিসেবে জিয়াউর রহমানকে নিয়ে কোন ধরনের বিতর্কে না জড়াতো আওয়ামী লীগ নেতাদের প্রতি আহবান জানান।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি মালয়েশিয়া শাখার নেতা মোশাররফ হোসেন, মনজু খাঁ, ফরিদুর রহমান, মজনু মুন্সী, যুবদল সভাপতি নাসির উদ্দিন, রফিকুল ইসলাম ইলিয়াস, সালাউদ্দিন, সাখাওয়াত হোসেন, আফজাল হক, ওয়ালিউল্লাহ, এসএম নিপু, লিটন চৌধুরী, সেলিম ভূইয়া প্রমুখ। আওয়ামীগ মালয়েশিয়া শাখার সভাপতি আলমগীর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আলী রেজা প্রমুখ।

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে