Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ , ১১ ফাল্গুন ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০১-০৮-২০২০

অনেকেই যেতে রাজি তবে মুশফিক নন!

অনেকেই যেতে রাজি তবে মুশফিক নন!

ঢাকা, ০৮ জানুয়ারি - বাংলাদেশ দলের পাকিস্তান সফরের ভবিষ্যৎ এখনো ঠিক স্পষ্ট নয়। আয়োজক পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) একই সফরে তিন টি-টোয়েন্টির পর দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজও সফরকারীদের খেলিয়ে ছাড়তে চায়। কিন্তু বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও (বিসিবি) টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলিয়ে দল দেশে ফেরাতে চায় এবং পরে সুবিধাজনক কোনো এক সময়ে টেস্ট খেলতে পাঠানোর বিষয়ে যখন অনড়, তখন নাটকীয় কোনো পটপরিবর্তনের সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যায় না। যায় না কারণ বিসিবি এরই মধ্যে পাকিস্তান সফরের জিও-র (সরকারি আদেশ) জন্য আবেদনে খেলোয়াড়দের সই নিতে শুরু করে দিয়েছে। যে বা যারা ইতিমধ্যে সই করেছেন, তাঁদের মধ্যে আছেন এমনকি বাংলাদেশের হয়ে শুধুই টেস্ট খেলা ক্রিকেটারও।

গতকাল রাতে বাংলাদেশ দলের একাধিক সিনিয়র ক্রিকেটারকে নিয়ে পাকিস্তান সফর বিষয়ক আলোচনায় বসারও কথা ছিল বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানের। যদিও সেই সভাটি শেষ পর্যন্ত কাল হয়নি। হওয়ার কথা আছে আজ। যদিও আগে থেকেই বলে আসা হচ্ছে যে এই সফরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত চূড়ান্তের আগে খেলোয়াড়দের মতামত নিতে চায় দেশের সর্বোচ্চ ক্রিকেট প্রশাসন। কোচিং স্টাফের বিদেশি সদস্যদেরও মতামত নেওয়া হয়েছে। তাতে কেউ কেউ যেতে আপত্তি করলেও হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গো সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন যে দল পাঠানো হলে তিনিও যেতে রাজি।

রাজি অনেক ক্রিকেটারও। যাঁরা এর মধ্যেই জিও-র আবেদনে সইও করেছেন। বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, সই করা ক্রিকেটারদের মধ্যে আছেন নভেম্বরের ভারত সফরে বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক মমিনুল হকও। শুধুই টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে গেলে তাঁর সই প্রয়োজন কেন, সে প্রশ্নও তাই উঠছে। কারণ অনেক দিন থেকেই বাংলাদেশের ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি বিবেচনায় মমিনুল নেই। না থাকা মমিনুলের মতো আরো অনেকেই পাকিস্তান সফরে যাওয়ার সম্মতি জানিয়ে জিও-র আবেদনে সই করে দিলেও দেননি জাতীয় দলের এক বড় তারকা।

যত দূর জানা গেছে, সেই ক্রিকেটারটি মুশফিকুর রহিম। যদিও আরো আগেই তিনি পাকিস্তান সফরে যাওয়ার অনিচ্ছার কথা বলে আসছিলেন ঘনিষ্ঠজনদের। পাকিস্তান যাওয়ার বিষয়ে মুশফিকের মনোভাব কাল পর্যন্তও বদলায়নি বলে জানিয়েছে তাঁরই ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র। মুশফিকের আপত্তি থাকলেও বাংলাদেশের বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারের কারণে আবার চড়ে বসারও সুযোগ পেয়েছিল পিসিবি। কারণ নিজ নিজ এজেন্টরা ২০ ফেব্রুয়ারি থেকে পাকিস্তান সুপার লিগে (পিএসএল) খেলার ক্ষেত্রে তাঁদের সম্মতির কথা জানিয়ে দিয়ে বিপাকে ফেলেছিলেন বিসিবিকে। ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি আসরের পুরোটাই এই প্রথমবারের মতো পাকিস্তানে হতে যাচ্ছে। সেখানে খেলতে বাংলাদেশের অনেক ক্রিকেটারের সম্মতিকেই পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে যাওয়ার যুক্তি হিসেবে দাঁড় করাচ্ছিল পিসিবি। যদিও এই ঘটনার পর আগ্রহী ক্রিকেটাররা নিজ নিজ এজেন্টের মাধ্যমে জানিয়েও দিয়েছেন যে পিএসএল খেলার জন্য তাঁরা ‘অ্যাভেইলেবল’ নন!

সূত্র : কালের কণ্ঠ
এন এইচ, ০৮ জানুয়ারি

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে