Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ , ১২ ফাল্গুন ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০১-০৭-২০২০

আজ সোলেইমানির দাফন

আজ সোলেইমানির দাফন

তেহরান, ৭ জানুয়ারি- ইরাকে মার্কিন বিমান হামলায় নিহত ইরানি কমান্ডার লে. জেনারেল কাসেম সোলাইমানির কফিন মঙ্গলবার সকালে তার জন্মভূমি কেরমান শহরে পৌঁছেছে বলে জানিয়েছে কাতারভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল জাজিরা। আর অল্প কিছুক্ষণ পর এখানেই সমাহিত করা হবে তাকে।

এর আগে সোমবার সকালে রাজধানী তেহরানের তেহরান বিশ্ববিদ্যালয়ের জুমা নামাজ প্রাঙ্গনে জেনারেল সোলেইমানির জানাজা সম্পন্ন হয়। এতে প্রচুর লোকের সমাগম হয়েছিলো। এই নামাজে ইমামতি করেন ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লা আলী খামেনি। এসময় তার চোখও জল দেখা যায়।

জানাজা শেষে বিকেলে জেনারেল সোলাইমানিসহ মার্কিন বিমান হামলায় নিহত পাঁচ কমান্ডারদের লাশ তেহরানের দক্ষিণে অবস্থিত কোম নগরীতে নেয়া হয়। সেখানকার জানাজাতেও লাখ লাখ মুসল্লি অংশগ্রহণ করেন।

মঙ্গলবার সকালেই ইরানের দক্ষিণাঞ্চলীয় কেরমান শহরে পৌঁছেছে সোলেইমানির কফিন। জেনারেল সোলাইমানির ইচ্ছানুযায়ী তার জন্মস্থানেই তাকে সমাহিত করার প্রস্ততি চলছে। এখানে তার শেষ জানাযা অনুষ্ঠিত হওয়ার পর তার লাশ দাফন করা হবে বলে জানা গেছে।

জানাজার মতো তার দাফনেও প্রচুর লোক সমাগমের ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। প্রিয় নেতাকে শ্রদ্ধা জানাতে মঙ্গলবার সকাল থেকেই প্রচুর লোক জমা হতে শুরু করেছেন কিরমানের সড়কগুলোতে। তাদের অনেকের হাতেই শোভা পাচ্ছে সোলেইমানির ছবি সম্বলিত পোস্টার। তারা ‘আমেরিকা নিপাত যাক’‘ইসরাইল নিপাত যাক’, ‘আমার ভাইকে যারা মেরেছে তাদেরকে হত্যা করব’ইত্যাদি স্লোগানে প্রকম্পিত করে তুলছে গোটা শহর।

ইরানের অন্যান্য শহর থেকেও লোকজন তার দাফন কাজে শরিক হতে ছুটে আসছেন। কেননা গোটা ইরান জুড়ে ছড়িছে রয়েছে তার অগণিত ভক্ত ও সমর্থক। শুধু ইরানই নয়; ইরাক, সিরিয়া ও ফিলিস্তিনের লোকজনের কাছেও সমান জনপ্রিয় ছিলেন কাসেম সোলেইমানি। তাই তার মৃত্যুতে শোকে ভাসছে গোটা মধ্যপ্রাচ্য।

আর/০৮:১৪/০৭ জানুয়ারি

মধ্যপ্রাচ্য

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে