Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ , ১০ ফাল্গুন ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১২-২৩-২০১৯

অযৌক্তিক ব্যয় বাদ দিলে বিদ্যুতের মূল্য কমবে

সঞ্চিতা সীতু


অযৌক্তিক ব্যয় বাদ দিলে বিদ্যুতের মূল্য কমবে

ঢাকা, ২৩ ডিসেম্বর- সরকারের অপরিকল্পিত পদক্ষেপের কারণেই বিদ্যুত খাতে খরচ বাড়ছে মনে করছেন জ্বালানি বিশেষজ্ঞরা। তাদের মতে, সুষ্ঠু পরিকল্পনার অভাবেই বিদ্যুতে উৎপাদন ব্যয় বাড়ছে। সব ধরনের ‘অযৌক্তিক ব্যয়’ কমানো গেলে বিদ্যুতের মূল্য বাড়ানোর প্রয়োজন হবে না। একইসঙ্গে তারা সাশ্রয়ী জ্বালানি নিয়ে যুগোপযোগী পরিকল্পনারও পরামর্শ দিয়েছেন। তারা বলছেন, সুচিন্তিত পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা গেলে বিদ্যুতের মূল্য কমবে।

প্রসঙ্গত, ঘাটতি দেখিয়ে চলতি বছরের নভেম্বরে বিদ্যুতের মূল্য সমন্বয়ের প্রস্তাব দেয় বিতরণ কোম্পানিগুলো। এরপর চলতি মাসের শুরুতেই এই প্রস্তাবের ওপর গণশুনানি করে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)। বিতরণ কোম্পানিগুলোর প্রস্তাব অনুযায়ী জানুয়ারি থেকেই তারা বিদ্যুতের মূল্য সমন্বয় করতে চায়। চলতি মাসের শেষের দিকে ঘোষণা আসতে পারে বলেও কমিশন সূত্র জানায়।

কনজুমার্স অ্যাসোসিয়েন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) বিদ্যুতের মূল্য কীভাবে কমানো যায় এবং ঘাটতি কীভাবে সমন্বয় করা সম্ভব, সে বিষয়ে একটি প্রস্তাবনা দিয়েছে। তাতে ক্যাব জানিয়েছে, বিদ্যুৎ খাতে উৎপাদন, সঞ্চালন ও বিতরণ পর্যায়ে ‘অযৌক্তিক ব্যয়’ ১০ হাজার ৫৪৯ কোটি টাকা। এই ব্যয় নিয়ন্ত্রণ করা গেলে বিদ্যুতের মূল্য বাড়ানোর কোনও প্রয়োজন হবে না বলেও ক্যাব মনে করে।

ক্যাবের প্রস্তাবে আরও বলা হয়, রেন্টাল বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে বিদ্যুৎ কেনার কারণে ক্যাপাসিটি চার্জের চুক্তির প্রথম মেয়াদে বিদ্যুৎকেন্দ্র তৈরির খরচ উসুল হয়েছে। ফলে মূল্য হারে ওই চার্জ সমন্বয় না করলে বছরে ঘাটতি সমন্বয় হবে ২ হাজার ১৭৬ কোটি টাকা। এতে আরও বলা হয়, ভোক্তাদের প্রস্তাবে তাদের অর্থে বিদ্যুৎ রক্ষণাবেক্ষণ ও উন্নয়ন তহবিল গঠিত হয়, ওই তহবিলে অর্থ বরাদ্দ (প্রতি ইউনিটে ১৫ পয়সা) রহিত করে বিদ্যুৎ উৎপাদন ব্যয় কমানো সম্ভব। এর ফলে বছরে ঘাটতি সমন্বয় হবে ১ হাজার ৩০৫ কোটি টাকা।

প্রস্তাবে আরও বলা হয়, সিস্টেম লস পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ (পিজিসিবি)-এর মতো ২ দশমিক ৭৫ শতাংশ। মূল্যহার নির্ধারণে সেই সিস্টেম লস ৩ শতাংশ নয়, ২ দশমিক ৭৫ শতাংশ ধরা হলে সমন্বয় হবে ১১০ কোটি টাকা। বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) সরকারি সেবা সংস্থা হওয়ায় কোম্পানিটির সেবা মুনাফামুক্ত করলে সমন্বয় হবে ৫০০ কোটি টাকা। সরকারি নীতির আওতায় প্রান্তিক ও সেচ গ্রাহককে কম মূল্য বিদ্যুৎ দেওয়ায় যে ঘাটতি, সে ঘাটতি মূল্যহারে সমন্বয় না করে সরকারি অনুদানে সমন্বয় করলে বছরে সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকা ঘাটতি সমন্বয় হবে। এতে আরও বলা হয়েছে, বিতরণে পিডিবি ও আরইবির মুনাফাজনিত ব্যয় ১ হাজার ৮৮ কোটি এবং সরকারি নীতিগত কারণে আরইবিতে জনবল ও অবচয় বাবদ বাড়তি ব্যয় ৮০২ কোটি টাকা।

এছাড়া, ২০ বছরের বেশি সময়ের পুরনো ২ হাজার ৪৪২ মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতার বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলো উৎপাদনে আছে। এসব বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধ হয়ে যাওয়ার কথা। এগুলোর কারণে ব্যয় বাড়ছে। এসব ঘাটতি মেটাতে বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধিতেই ক্যাব আপত্তি জানিয়েছে।

এ বিষয়ে ক্যাবের জ্বালানি উপদেষ্টা শামসুল আলম বলেন, ‘ক্যাবের এই প্রস্তাবনাগুলো আমরা বিইআরসির কাছে তুলে ধরেছি। তাদের বিবেচনা করার আহ্বান জানিয়েছি। এখন কমিশন ঠিক করবে আমাদের প্রস্তাবনা অনুযায়ী বিতরণ কোম্পানিগুলোকে খরচ কমানোর কথা বলবে, না বিদ্যুতের মূল্য বাড়িয়ে সব ব্যয়ের দায় জনগণের ঘাড়ে চাপাবে।’

এদিকে, সম্প্রতি ‘তেল গ্যাস খনিজসম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি’ এক সম্মেলনে জানায়, বিদ্যুতের উৎপাদন খরচ এখন অনেক বেশি। অপরিকল্পিত পদক্ষেপের কারণেই বাড়ছে বিদ্যুতের এই খরচ। এই দায় জনগণ নেবে না। মূল্য না বাড়িয়ে বিদ্যুতের এই ব্যয় কীভাবে কমানো যায়, সেটি কমিশনের বিবেচনা করা উচিত।

এ বিষয়ে গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি বলেন, ‘সরকারের উচিত বিদ্যুতের অপচয় কমানো। তাদের বাড়তি ব্যয় কমানো। বেশিরভাগ কোম্পানি এখন লাভ করছে। তাদের ভবিষ্যতের উন্নয়ন প্রকল্পের টাকার দায় সাধারণ মানুষ কেন নেবে?’ তিনি বলেন, ‘এমনিতেই বিদ্যুতের মূল্যের একটি অংশ দিয়ে তহবিল করা হয়েছে। সেখান থেকেই প্রকল্প হাতে নেওয়া হচ্ছে। তাহলে আরও প্রজেক্ট হাতে নিয়ে সেই টাকা জনগণের কাছ থেকে আদায় করা অগ্রহণযোগ্য একটি বিষয়। এই দায় সাধারণ মানুষ মেনে নেবে না।’ এসব বিষয় বিবেচনা করে বিদ্যুতের মূল্য না বাড়িয়ে বিদ্যুৎ খাতের অপচয় কমানো উচিত বলেও মনে করেন তিনি।

সূত্র : বাংলা ট্রিবিউন
এন কে / ২৩ ডিসেম্বর

ব্যবসা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে