Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ২৭ জানুয়ারি, ২০২০ , ১৩ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১২-০৬-২০১৯

অপহরণের দায়ে গ্রেপ্তার ভারতীয় ক্রিকেটার

অপহরণের দায়ে গ্রেপ্তার ভারতীয় ক্রিকেটার

মুম্বাই, ০৬ ডিসেম্বর- এক ঋণ এজেন্টকে অপহরণ করে তার পরিবারের কাছ থেকে অর্থ আদায়ের চেষ্টা করার অভিযোগে ভারতের সাবেক এক ক্রিকেটারসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ৩০ নভেম্বর এই অপহরণের ঘটনাটি ঘটে বলে বৃহস্পতিবার মুম্বাই পুলিশের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন।

মামলার প্রধান আসামি রবিন মরিস (৫৩) একজন সাবেক ব্যাটসম্যান, যিনি মুম্বাইয়ের হয়ে রঞ্জি ট্রফিসহ অন্যান্য ঘরোয়া টুর্নামেন্টে খেলেছিলেন।

অন্য চার আসামি হলেন-গ্রাভিন ডিসৌজা, আহমেদ আলী আনসারী, অ্যালেক্স মিরান্ডা ও রূপেশ ভিমানী। তাদের সবাইকে ১ ডিসেম্বর গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মুম্বাইয়ের কুড়লা থানার সিনিয়র পরিদর্শক দত্ত শিন্ডে।

পুলিশের বরাত দিয়ে ইন্ডিয়া টুডে জানিয়েছে, কয়েক বছর আগে মরিস একটি ব্যাংক থেকে ৩ কোটি রুপি ঋণ পাওয়ার জন্য একজন এজেন্টের স্মরণাপন্ন হন। ঋণ পাইয়ে দেওয়ার আশা দেখিয়ে এজেন্ট তার কাছ থেকে ৭ লাখ টাকা কমিশন নিয়েছিল, কিন্তু সেই ঋণ মঞ্জুর করতে পারেনি। মরিস তার টাকা ফেরত চাইলে এজেন্ট সাড়ে ৫ লাখ রুপি ফেরত দিয়েছিলেন। বারবার দাবি করা সত্ত্বেও বাকি অর্থ ফেরত দিতে অস্বীকৃতি জানান এজেন্ট। ফলে সেই এজেন্টকে অপহরণ করে টাকা আদায় করার পরিকল্পনা করেন মরিস ও তার চার বন্ধু।

পরিকল্পনা অনুযায়ী সেই এজেন্টকে ৩০ নভেম্বর মুম্বাইয়ের কুরলা স্টেশনের কাছে এক রেস্টুরেন্টে আসতে বলেন মরিস। চার বন্ধুর সাহায্যে রেস্টুরেন্ট থেকে জোর করে এজেন্টকে তুলে নিয়ে নিজের বাসায় নিয়ে যান মরিস। সেখান থেকেই এজেন্টের বাড়িতে ফোন করে টাকা দাবি করেন। এজেন্টের বাড়ির লোকজনই পরে পুলিশকে জানায় ঘটনাটা। পুলিশ পরে মরিসের বাসায় গিয়ে ৪৩ বছর বয়সী ওই এজেন্টকে উদ্ধার করে।

এর আগেও মরিস সমালোচিত হয়েছেন কুকীর্তির জন্য। গত বছর বাজিকরদের বিষয়ে একটা স্টিং অপারেশনে ধরা পড়েছিলেন তিনি। যেখানে অভিযোগ করা হয়েছিল, তিনি ভারত-শ্রীলঙ্কা, ভারত-ইংল্যান্ড এবং ভারত-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের আগে 'পিচ-ডক্টরিং' করার জন্য প্রভাবিত করেন।

এ ছাড়াও গত বছর মুম্বাইয়ের ঘরোয়া এক টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে স্পট-ফিক্সিংয়ের অভিযোগ উঠেছিল তার বিরুদ্ধে। পাকিস্তানের সাবেক ব্যাটসম্যান হাসান রাজার সঙ্গে এ নিয়ে আলোচনার সময় আল-জাজিরার গোপন ক্যামেরায় ধরা পড়েছিলেন মরিস। তা নিয়ে চরম বিতর্কও উঠেছিল।  যদিও তিনি অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

সূত্র : আমাদের সময়
এন কে / ০৬ ডিসেম্বর

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে