Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ২৭ জানুয়ারি, ২০২০ , ১৩ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১২-০১-২০১৯

মেসির জাদুকরী গোলে মাদ্রিদকে হারিয়ে শীর্ষে বার্সেলোনা

মেসির জাদুকরী গোলে মাদ্রিদকে হারিয়ে শীর্ষে বার্সেলোনা

ওয়ান্দা মেট্রোপলিটন- যেকোনো দলের জন্য সাক্ষাৎ দুঃস্বপ্ন অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের এই মাঠ। এখান থেকে জয় নিয়ে ফেরার চিন্তা করার আগে নিশ্চিত করতে হয় নিজেদের দ্বিগুণ সেরা পারফরম্যান্স মাঠে ঢেলে দেয়ার কথা। তবেই না মিলবে রক্ষণাত্মক ও আক্রমণাত্মক মিশেলে গড়া অ্যাতলেটিকোর বিপক্ষে জয়।

শনিবার রাতে আলাভেসের বিপক্ষে জিতে বার্সাকে টপকে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। তাদের শীর্ষস্থান আরও মজবুত করার দায়িত্ব বর্তেছিল নগর প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের কাঁধে। কিন্তু দুই মাদ্রিদকেই হতাশ করে দুর্দান্ত এক জয়ে টেবিলের শীর্ষে ফিরেছে লা লিগার বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

তবে অ্যাতলেটিকো যে নিজেদের কাজ ঠিকঠাক করতে পারেনি বা করার চেষ্টা করেনি- এমনটা নয়। আক্রমণ, পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠা ম্যাচে কঠিন পরীক্ষা দিয়েছে দুই দলের রক্ষণভাগ। মনে হচ্ছিলো, গোলশূন্য ড্রয়ের দিকেই এগিয়ে যাচ্ছে ম্যাচ।

কিন্তু হুট করেই জাদুকরের রুপে আবির্ভুত হয়ে পার্থক্য গড়ে দেন বার্সা অধিনায়ক লিওনেল মেসি। তার করা একমাত্র গোলেই অ্যাতলেটিকোকে হারিয়েছে বার্সেলোনা। যার ফলে টানা ১৯ ম্যাচ ক্লাবটির বিপক্ষে অপরাজিত রইলো কাতালুনিয়ানরা।

নিজেদের ঘরের মাঠে ম্যাচের শুরু থেকেই বার্সার রক্ষণে চাপ দিতে থাকে অ্যাতলেটিকো। সাত মিনিটের মাথায় গোলও পেয়ে যেতে পারতো তারা। কিন্তু বল ফিরে আসে পোস্টে লেগে। এরপর একাধিক আক্রমণ বাজপাখির ক্ষিপ্রতায় প্রতিহত করেন বার্সা গোলরক্ষক মার্ক টের স্টেগান।

শুরুর ধাক্কা সামলে গুছিয়ে উঠতে ২০ মিনিট সময় নেন মেসি-সুয়ারেজরা। এরপরই জমে ওঠে খেলা। দুইদলই জমাট রক্ষণ রেখে বারবার উঠছিল আক্রমণে আর হতাশ হচ্ছিলো গোলরক্ষকদের কারণে। পুরো ম্যাচে অ্যাতলেটিকো ১৭টি এবং বার্সা আক্রমণ করে ১৩টি। দুই দলেরই লক্ষ্য বরাবর শট ছিলো অবশ্য মাত্র ২টি।

যার ফলে প্রথম গোলের জন্য অপেক্ষা করতে হয়ে ৮৬ মিনিট পর্যন্ত। নিজেদের অর্ধে বল পেয়ে দ্রুতগতির ড্রিবলিংয়ে আক্রমণে উঠে যান মেসি। প্রতিপক্ষের ডি-বক্সের কাছে ছোট করে বাড়ান সুয়ারেজের উদ্দেশ্যে, নিজে দাঁড়ান যুতসই অবস্থানে। বল রিসিভ না করে আলতো ছোঁয়ায় মেসির বাম পায়ে পাস দেন সুয়ারেজ, সরাসরি শটে অ্যাতলেটিকোর জাল কাঁপান আর্জেন্টাইন সুপারস্টার।

এ জয়ের ফলে ১৪ ম্যাচে ৩১ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে অবস্থান করছে বার্সেলোনা। সমান ম্যাচে রিয়ালেরও পয়েন্ট ৩১, তবে গোল ব্যবধানে পিছিয়ে থাকায় তাদের অবস্থান দ্বিতীয়। এক ম্যাচ বেশি খেলা অ্যাতলেটিকো ২৫ পয়েন্ট নিয়ে অবস্থান করছে ছয় নম্বরে।

সূত্র: জাগোনিউজ

আর/০৮:১৪/০২ ডিসেম্বর

ফুটবল

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে