Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১১-৩০-২০১৯

জলবায়ু পরিবর্তনের ধাক্কা ইউরোপে

জলবায়ু পরিবর্তনের ধাক্কা ইউরোপে

লন্ডন, ৩০ নভেম্বর - রেকর্ড সৃষ্টিকারী তাপমাত্রা, বন্যা আর খরা- গত এক বছরে প্রকৃতির সব বৈরি রূপই দেখেছে ইউরোপের মানুষ। বলা হচ্ছে, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে এমন প্রবণতা বাড়বে প্রতিবছরই।

২০১৯ সালে ইউরোপজুড়ে গ্রীষ্মের তাপমাত্রা আগের সমস্ত রেকর্ড ভেঙেছে। জুলাই মাসে সর্বকালের সবচেয়ে বেশি গরম পড়েছে জার্মানিতে। তাপমাত্রা উঠেছে ৪২ দশমিক ছয় ডিগ্রি সেলসিয়াসে। এক বছরেই দুইবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড ভেঙেছে ফ্রান্স। ৪৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে পুড়েছেন সেখানকার মানুষ।

চলতি বছরের নভেম্বরে ইটালির ভেনিস একাধিকবার বন্যার কবলে পড়েছে। একমাসে প্রথমবারের মতো তিনবার পানির উচ্চতা দেড় মিটারের রেখা স্পর্শ করেছে। জলবায়ু পরিবর্তনে সমুদ্রের উচ্চতা বৃদ্ধি পাওয়ায় সামনের দিনগুলোতে প্রায়ই বন্যার কবলে পড়তে হতে পারে ভেনিসবাসীকে।

যেই তাপদাহে পুড়েছে ফ্রান্স ও জার্মানি, তা ২০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ দাবানলের জন্ম দিয়েছে স্পেনে। আগুনে ধ্বংস হয়ে গেছে গ্রান কানারিয়া দ্বীপের ন্যাশনাল পার্ক, যা দেশটিতে পর্যটকদের অন্যতম আকর্ষণ। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে ইউরোপের তাপমাত্রা হয়ে উঠছে একদিকে উষ্ণ আর অন্যদিকে শুষ্ক। এর ফলে এমন দাবানলের ঝুঁকিও ক্রমশ বাড়ছে।

খরা, ঝড় আর তীব্র তাপে ধীরে ধীরে হারিয়ে যাচ্ছে জার্মানির বনাঞ্চল। জার্মানির বন বিষয়ক একটি সংগঠনের হিসাবে ২০১৮ সালের পর এখন পর্যন্ত ১০ লাখ গাছের মৃত্যু হয়েছে। এটা কোনো একক আবাহওয়ার ঘটনায় নয়, বরং জলবায়ু পরিবর্তনের কারণেই হয়েছে বলে জানান বিডিএফ নামের এই সংগঠনের এক কর্মী।

আল্পসের ইটালি অংশে মঁ ব্লঁ পর্বতের বরফ গলে গেছে চলতি বছরে। সুইস আল্পসের পিজল নামের একটি হিমবাহও পুরোপুরি হারিয়ে গেছে। এজন্য অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ারও আয়োজন করা হয়েছে সেখানে। বিজ্ঞানীরা বলছেন, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণেই হারিয়ে যাচ্ছে আল্পসের এসব হিমবাহ।

পরপর দুই বছরের খরায় বিপাকে পড়েছেন জার্মান কৃষকরা। ২০১৮ সালে রেকর্ড খরার পর ২০১৯ সালের তাপদাহে ব্যাপকভাবে ফসলের ক্ষতি হয়েছে। জলবায়ু পরিবর্তনে জার্মানি এমন বৈরি আবহাওয়ায় আক্রান্ত হতে থাকবে বলে উল্লেখ করেছেন জার্মান আবহাওয়া বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট পাউল বেকার। সূত্র: ডয়চে ভেলে।

সূত্র : ঢাকা টাইমস
এন এইচ, ৩০ নভেম্বর

পরিবেশ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে