Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১১-২১-২০১৯

মোবাইল ব্যাংকিংয়ে ঘুষ আদান-প্রদান, উদ্বেগে দুদক

মোবাইল ব্যাংকিংয়ে ঘুষ আদান-প্রদান, উদ্বেগে দুদক

ঢাকা, ২১ নভেম্বর- দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, মোবাইল ব্যাংকিং চ্যানেল ব্যবহার করে অপরাধীরা যাতে ঘুষ লেন-দেন কিংবা জঙ্গি অর্থায়ন করতে না পারে সেটা নিশ্চিত করা জরুরি। কারণ অভিযোগ রয়েছে অপরাধীরা এ জাতীয় চ্যানেল ব্যবহার করে ঘুষ নেওয়াসহ বিভিন্ন অপরাধ করে। তাই এ বিষয়ে কমিশনের উদ্বেগ রয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুর্নীতি দমন কমিশনের প্রধান কার্যালয়ে মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসসমূহের নির্বাহীদের সঙ্গে এক বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, আমরা চাই সকলের সহায়তায় সমন্বিতভাবে পদ্ধতিগত উন্নয়নের মাধ্যমে মোবাইল ব্যাংকিং চ্যানেলে ঘুষ লেন-দেন ও মানিলন্ডারিং প্রতিরোধ করতে। আপনারা মোবাইল ব্যাংকিং চ্যানেলে প্রতিটি লেন-দেনের বিস্তারিত তথ্য সংরক্ষণ করবেন এবং সন্দেহজনক লেনদেন সংঘটিত হলে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে রিপোর্টিং এজেন্সিকে রিপোর্ট করবেন। প্রতিটি লেনদেনের ডিজিটাল রশিদ রাখতে হবে।

তিনি আরো বলেন, কমিশনে একজন কর্মকর্তাকে ফোকাল পয়েন্ট হিসেবে নিয়োগ করা হবে। তিনি অনুসন্ধান বা তদন্তের স্বার্থে কমিশনের অনুমোদন সাপেক্ষে আপনাদের কাছে তথ্য চাইলে তাৎক্ষণিকভাবে ফোকাল পয়েন্ট কর্মকর্তাকে তথ্য প্রদান করবেন।

এসময় বিকাশের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কামাল কাদির, ডাচ-বাংলা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কাশেম শিরিন-দুদক চেয়ারম্যানকে জানান, তাদের মোবাইল ব্যাংকিং চ্যানেলের সকল রেকর্ডপত্র যথাযথভাবে সংরক্ষণ করা হয়। দুর্নীতি দমন কমিশন চাইলে এসব লেনদেনের তথ্য তারা কমিশনকে সরবরাহ করবে। তারা আরও জানান সন্দেহজনক লেনদেন হলে সংশ্লিষ্ট সংস্থাকে নিয়মিত জানানো হয়।

মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন রকেট এর এসইভিপি আবেদুর রহমান সিকদার, বিকাশের হেড অব রেগুলেরটরি এন্ড কর্পোরেট অ্যাফেয়ার হুমায়ুন কবীর, বাংলাদেশ ব্যাংকের জেনারেল ম্যানেজার মেজবাউল হক, ডাক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এসএস ভদ্র, দুদকের মানিলন্ডারিং অনুবিভাগের মহাপরিচালক আনম আল ফিরোজ, প্রশিক্ষণ ও আইসিটি অনুবিভাগের মহাপরিচালক একেএম সোহেল, গোয়েন্দা শাখার পরিচালক মীর জয়নুল আবেদীন শিবলী, মানিলন্ডারিং অনুবিভাগের পরিচালক গোলাম শাহরিয়ার চৌধুরী প্রমুখ।

একই স্থানে কুরিয়ার সার্ভিসের নির্বাহীদের নিয়ে বৈঠক করেন দুদক চেয়ারম্যান। এসময় তিনি বলেন, মালামাল পাঠানোর ক্ষেত্রে প্রেরক ও প্রাপকের সঠিক পরিচয় কুরিয়ার সার্ভিস পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠানকে নিশ্চিত করতে হবে। এসময় এস এ পরিবহনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ সালাউদ্দীন বক্তব্য রাখেন।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন কে / ২১ নভেম্বর

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে