Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১১-১৭-২০১৯

এবার মেসির সমালোচনায় মুখর সেই ব্রাজিল অধিনায়ক

এবার মেসির সমালোচনায় মুখর সেই ব্রাজিল অধিনায়ক

লিওনেল মেসির করা একমাত্র গোলে শুক্রবার রাতে ব্রাজিলকে ১-০ গোলে হারিয়েছে আর্জেন্টিনা। সে ম্যাচের পর থেকে যেনো ব্রাজিলিয়ান ফুটবলারদের চক্ষুশূলে পরিণত হয়েছে আর্জেন্টাইন অধিনায়ক মেসি। তার সমালোচনায় মেতেছেন ব্রাজিলিয়ান কোচ তিতে, অধিনায়ক থিয়াগো সিলভারা।

মেসির করা গোলে হেরে যাওয়াতা যেনো মানতেই পারছেন না ব্রাজিল অধিনায়ক। অভিযোগ এনেছেন মাঠের মধ্যে রেফারির সিদ্ধান্তও নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেন মেসি। অথচ ম্যাচের আগে তিনিই মেসির প্রশংসায় মেতেছিলেন। এক পরাজয়েই যেনো বদলে গেলো পুরো দৃশ্যপট।

ম্যাচ হেরে নিজের হতাশার কথা জানাতে গিয়ে মেসির দিকে সরাসরি আঙুল তোলেন সিলভা। তিনি বলেন, ‘মেসি মাঠে নিজের কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা করতে চায়। সে দুইজন খেলোয়াড়কে লাথি মারল কিন্তু রেফারি কিছুই করলো না। আমি রেফারির সঙ্গে এ বিষয়ে তর্ক করছিলাম আর সে অনবরত হেসেই যাচ্ছিলো। তার জন্য করা প্রশংসার কথাগুলো আপনাকে একপাশে রেখে ভাবতে।’

‘সে সবসময় রেফারিকে চাপে রাখে, যাতে বিপজ্জনক জায়গায় ফ্রিকিক পেতে পারে। সে প্রতিটা ম্যাচে এটি করে। যারা স্পেনে তার সঙ্গে কিংবা বিপক্ষে খেলে, তাদের সঙ্গেও কথা বলেছি। তারাই জানিয়েছে যে সেখানেও একই কাজ করে। তার চেষ্টা থাকে রেফারির সিদ্ধান্ত এবং ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিজের হাতে।’

এসময় নেইমার দলে না থাকাটা ব্রাজিলের জন্য ক্ষতির বিষয় ছিলো বলে জানান সিলভা। একইসঙ্গে রেফারি নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন না বলেই উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে মেসির সাফল্য কম বলে মন্তব্য করেন ব্রাজিল অধিনায়ক।

তার ভাষ্যে, ‘(উয়েফা) চ্যাম্পিয়নস লিগে সে এ সুযোগটা পায় না, কারণ সেখানে রেফারির আরও কঠোর থাকে। যার ফলে দেখবে চ্যাম্পিয়নস লিগে মেসি খুব বেশি রাজত্ব করতে পারে না। এমন অনেক রেফারি আছে যারা মেসির প্রশংসায় পঞ্চমুখ। তারা খেলার মাঠেও এটি দূরে রাখতে পারে না। এ কারণে নেইমারের মতো তারকা না থাকাটা আমাদের জন্য ক্ষতির বিষয় ছিলো।’

এদিকে ম্যাচের পর আর্জেন্টিনার জয় ছাপিয়ে যেন বড় হয়ে দাঁড়িয়েছে ব্রাজিল কোচ তিতের সঙ্গে মেসির কথা কাটাকাটির একটি বিষয়। ম্যাচের প্রথমার্ধে রেফারির একটি সিদ্ধান্তে ঠিক সন্তুষ্ট হতে পারেননি তিতে। তার মতে সেটি ছিলো মেসিকে হলুদ কার্ড দেখানোর মতো ঘটনা। কিন্তু রেফারি তা আমলে নেয়নি। তবু ব্রাজিল কোচ বারবার ডাকছিলেন রেফারিকে।

তা দেখে মাঠে দাঁড়িয়েই নিজের হাত ও মুখের ইশারায় ব্রাজিল কোচকে চুপ করে থাকতে বলছিলেন মেসি। ম্যাচ শেষে এ বিষয়ে কথা বলেছেন তিতে। তিনি বলেন, ‘আমি তখন অভিযোগ করছিলাম কারণ মেসিকে হলুদ কার্ড দেখানো উচিৎ ছিল। তখন সে (মেসি) আমার দিকে তাকিয়ে বলছিলো, ‘মুখ বন্ধ রাখো’। পাল্টা জবাবে আমিও তাকে বলেছি, ‘তুমি মুখ বন্ধ রাখো’। ঘটনা এটুকুই।’

নিজ দলের কোচের সঙ্গে মেসির এমন ব্যবহারও মানতে পারেননি ব্রাজিল অধিনায়ক। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা যখন ফুটবল মাঠে শ্রদ্ধার কথা বলি, তখন এ বিষয়টা বোঝা খুব কঠিন হয়ে পড়ে। বিশেষ করে বিশ্বের সবচেয়ে প্রশংসিত একজন খেলোয়াড় যখন এমন করে। আপনি বয়ষ্ক কারও সঙ্গে নিশ্চয়ই এমন করেন না। তবু মানলাম তিনি একজন কোচ, কিন্তু রাইভালরি ক্ষেত্রেও আগে সম্মানের বিষয়টা আসা উচিৎ।’

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ১৭ নভেম্বর

ফুটবল

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে