Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১১-১২-২০১৯

সাংবাদিক শিমুল হত্যা : হাইকোর্টে মেয়র মিরুর জামিন

সাংবাদিক শিমুল হত্যা : হাইকোর্টে মেয়র মিরুর জামিন

ঢাকা, ১২ নভেম্বর- সিরাজগঞ্জ শাহজাদপুরের সমকালের সাংবাদিক আবদুল হাকিম শিমুল হত্যা মামলার চার্জশিটভুক্ত প্রধান আসামি মেয়র (বরখাস্থ হওয়া) হালিমুল হক মিরুকে ছয় মাসের অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।

জামিন আবেদনের বিষয়ে আসামি ও বাদী পক্ষের শুনানি নিয়ে মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) হাইকোর্টের বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি ভীষ্মদেব চক্রবর্তীর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

পাশাপাশি হালিমুল হক মিরুকে কেন স্থায়ী জামিন দেয়া হবে না -তা জানতে চেয়ে সংশ্লিষ্টদের প্রতি রুল জারি করেছেন আদালত। আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আদালতে আজ আসামি মিরুর পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট আবদুল আলিম মিয়া জুয়েল। রাষ্ট্রপক্ষে জামিনের বিরোধীতা করে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আমিনুর রহমান চৌধুরী টিকু।

এদিকে উচ্চ আদালত থেকে মিরুর জামিন হয়েছে- শাহজাদপুরে এমন খবর ছড়িয়ে পড়লে এলাকার জনগণের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে বলে দাবি করেছেন মামলার বাদি সাংবাদিক শিমুলের স্ত্রী। তিনি বলেন, দুই ছেলে-মেয়ের নিরাপত্তা নিয়ে আমি শঙ্কিত। মেয়র জেলখানা থেকে বের হয়ে যেকোনো ধরনের দুর্ঘটনা ঘটাতে পারেন।

এছাড়া হাইকোর্টের দেয়া জামিন স্থগিত চেয়ে আপিল আবেদন করা হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট বেঞ্চের আইন কর্মকর্তা ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. আমিনুর রহমান চৌধুরী টিকু।

তিনি বলেন, এটি একটি চাঞ্চল্যকর মামলা। একজন জনপ্রতিনিধির হাতে থাকা অস্ত্রের গুলিতে সাংবাদিক শিমুল মারা গেছেন। রাষ্ট্রপক্ষ থেকে বিষয়টি জানানোর পরেও মামলার প্রধান আসামিকে জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। জামিনের বিরুদ্ধে আপিল করার জন্য ইতোমধ্যে নোট পাঠানো হয়েছে।

সর্বশেষ ২০১৮ সালের ৪ নভেম্বর হাইকোর্ট হালিমুল হক মিরুকে জামিন দেন। পরবর্তীতে জামিন স্থগিত চেয়ে আপিল আবেদন করা হলে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ হাইকোর্টের দেয়া জামিন স্থগিত করে আদেশ দেন। একই সঙ্গে ছয় মাসের আগে জামিন আবেদন না করার জন্যও নির্দেশনা দেন। তারই ধারাবাহিকতায় ৬ মাস অতিক্রম হওয়ার পর হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেন আসামিপক্ষ।

বর্তমানে শিমুল হত্যা মামলাটি রাজশাহী দ্রুত বিচার ট্রাইবুন্যালে অভিযোগ (চার্জ) গঠনের পর্যায়ে রয়েছে। ট্রাইব্যুনালের বিচারক মামলার চার্জ গঠনের জন্য আগামী ২১ নভেম্বর দিন ধার্য রয়েছে।

২০১৭ সালের ২ ফেব্রয়ারি সিরাজগঞ্জ শাহজাদপুর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি বিজয় মাহমুদকে অপহরণের পর মেয়র হালিমুল হক মিরুর বাড়িতে আটকে রেখে তার দুই সহোদরের মারপিটের ঘটনায় স্থানীয় আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষে হয়। ওই সংঘর্ষে পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় আওয়ামী লীগ নেতা মেয়র মিরুর হাতে থাকা রাইফেল থেকে ছোড়া গুলিতে গুলিবিদ্ধ হয়ে পরদিন হাসপাতালে মারা যান সাংবাদিক শিমুল।

ওই ঘটনায় মিরু ও তার সহোদর হাবিবুল হক মিন্টুসহ ৪০ জনকে আসামি করে শাহজাদপুর থানায় মামলা করেন নিহত শিমুলের স্ত্রী। মামলা দায়েরের পর ২০১৭ সালের ২ মে শাহজাদপুর আমলি আদালতে ৩৮ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ। চার্জশিটে বলা হয়, মেয়র মিরুর গুলিতেই শিমুলের মৃত্যু হয়েছে। আসামিপক্ষের নানা ধরনের টালবাহানার কারণে চার্জ গঠন বার বার পিছিয়ে যাচ্ছে।

সূত্র: জাগোনিউজ

আর/০৮:১৪/১২ নভেম্বর

আইন-আদালত

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে