Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১১-০২-২০১৯

স্কুল মাঠ দখল করে ইউপি মেম্বারের মাছ চাষ

স্কুল মাঠ দখল করে ইউপি মেম্বারের মাছ চাষ

সিরাজগঞ্জ, ০২ নভেম্বর - সিরাজগঞ্জে ক্লাবের নামে স্কুলের মাঠ দখল করে মাছ চাষ করার অভিযোগ উঠেছে এক ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য ইকবাল হোসেনের বিরুদ্ধে। তিনি শাহজাদপুরের উপজেলার কায়েমপুর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য। গত ২-৩ মাস ধরে তিনি ওই মাঠে মাছ চাষ করে আসছেন। ২৫ অক্টোবর, শুক্রবার সন্ধ্যায় হাঁস তাড়াতে গিয়ে ওই পুকুরে মাছ পাহারার জন্য ব্যবহৃত বৈদ্যুতিক বাল্বের সংযোগ তারে স্পৃষ্ট হয়ে এক নারীর মৃত্যুর পর বিষয়টি আলোচনায় আসে। এ বিষয়ে স্থানীয়দের অভিযোগ, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা না নেয়ায় কায়েমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তিন শতাধিক ও পার্শবর্তী কায়েমপুর মাস্টার আজগর আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থী চরম ঝুঁকির মধ্যে ক্লাস করছেন।

এলাকাবাসী জানান, ২-৩ মাস আগে স্কুলের মাঠে মাছ ছাড়া হয়। গত বছর না করলেও এর আগের বছর সেখানে মাছ চাষ করেন অভিযুক্ত ইউপি সদস্য। শুক্রবার সন্ধ্যায় হাঁস তাড়াতে গিয়ে ওই মাঠের মাছ পাহারার জন্য ব্যবহৃত বৈদ্যুতিক তারে জড়িয়ে মারা যান কায়েমপুর গ্রামের রাজমিস্ত্রি জয়নাল প্রামাণিক কালুর স্ত্রী ইসমত আরা (৩০)। ২৬ অক্টোবর, শনিবার ভোরে স্কুলমাঠের পানি থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। ইউপি চেয়ারম্যান হাসিবুল হক হাসান বলেন, ‘স্কুলের পাশের খেলার মাঠে ঘের দিয়ে ৪নং ওয়ার্ডের সদস্য ইকবাল মাছ চাষ করছেন। হাঁস তাড়াতে গিয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় সেখানে গৃহবধূ ইসমতের মৃত্যু হয়েছে। তার মৃত্যুর দায় ইকবাল কোনোভাবেই এড়াতে পারেন না।’

এ বিষয়ে কায়েমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা তানজিলা চৌধুরী বলেন, ‘মাঠটি স্কুলের নয়। তাই এ বিষয়ে কিছু বলার নেই।’ শিক্ষার্থীরা দীর্ঘদিন ঝুঁকির মধ্যে পাঠগ্রহণ করলেও কেন আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হয়নি-এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি বিষয়টি এড়িয়ে যান। এদিকে কায়েমপুর মাস্টার আজগর আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা হাফিজা পারভীন জানান, মাছ চাষের বিষয়টি তার জানা নেই। মাছ দেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করে তিনি বলেন, ‘এগুলো মিথ্যা কথা।’

তবে ওই ইউপি সদস্য জানান, ‘মাঠের চারপাশে রাস্তা ও বিভিন্ন স্থাপনা গড়ে ওঠায় রাস্তা উপচিয়ে খেলার মাঠে বর্ষার পানি ঢুকে পড়ে। মাঠের পাশে আমার একটি খাল রয়েছে। খালের মাছ মাঠে ঢুকে পড়ায় এখানেও কিছু মাছ ছেড়েছি। মাঠের মাছ বিক্রি করে লাভের একটি অংশ ক্লাবের উন্নয়নে ব্যয় করা হয়। এ ছাড়া কিছু মাছ হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষককে খাওয়ার জন্য দেওয়া হয়।’ তিনি আরো বলেন, ‘বিষয়টি হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষকের সাথে আলোচনা করেই করা হয়েছে।’

শাহজাদপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ফজলুল হক বলেন, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জায়গা যিনি দান করেছেন স্কুল মাঠটি তার দেওয়া জায়গা। মাঠে মাছ চাষ হচ্ছে তা আমাকে আগে অবগত করা হয়নি। জানলে আগেই এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া যেত। তিনি বলেন, বিষয়টি খোঁজ নিচ্ছি। শাহজাদপুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল কাদের বিশ্বাসের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, বর্ষায় মাঠের পানি সরবরাহ প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে মাছ চাষের ঘটনা আমাকে কেউ বলেননি। তিনিও বলেন, বিষয়টি খোঁজখবর নিচ্ছি। জানা গেছে, ওই খেলার মাঠে কয়েকদিন আগে এক সন্ধ্যায় হাঁস খুঁজতে গিয়ে মাঠের মধ্যে বৈদ্যুতিক তারে স্পৃষ্ট হয়ে এক সন্তানের জননী গৃহবধূ ইসমত আরা (৩০) নিহত হন। ইসমত আরা কায়েকপুর গ্রামের রাজমিস্ত্রি জয়নাল প্রামাণিক কালুর স্ত্রী। এ ঘটনায় পরদিন নিহতর স্বামী বাদী হয়ে শাহজাদপুর থানায় একটি ইউডি মামলা দায়ের করেন।

সূত্র : বিডি২৪লাইভ
এন এইচ, ০২ নভেম্বর

সিরাজগঞ্জ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে