Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ২৭ জানুয়ারি, ২০২০ , ১৪ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-২৮-২০১৯

ভাসানচরে যেতে চায় ৯০ রোহিঙ্গা পরিবার

ভাসানচরে যেতে চায় ৯০ রোহিঙ্গা পরিবার

কক্সবাজার, ২৮ অক্টোবর- বাংলাদেশে আশ্রিত ৯০টি রোহিঙ্গা পরিবার নোয়াখালীর ভাসানচরে যেতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। কক্সবাজারের শালবাগান রোহিঙ্গা ক্যাম্পে থাকা এসব পরিবারে পাঁচ শতাধিক সদস্য রয়েছে। এসব রোহিঙ্গা পরিবারকে আগামী নভেম্বরে ভাসানচরে স্থানান্তর করা হবে বলে জানিয়েছে রোহিঙ্গা ক্যাম্প প্রশাসন।

টেকনাফের ২৬ নম্বর শালবাগান রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ইনচার্জ খালেদ হোসেন এ প্রতিবেদককে বলেন, ‘ভাসানচরে যাওয়ার ব্যাপারে যেসব রোহিঙ্গা পরিবারের মতামত নেওয়া হয়েছে, তাদের প্রায় সবাই ইতিবাচক মনোভাব দেখিয়েছে। এই ক্যাম্প থেকে এ পর্যন্ত ৯০ রোহিঙ্গা পরিবার তাদের আগ্রহের কথা জানিয়েছে। ভাসানচরে যাওয়ার তালিকাভুক্ত রোহিঙ্গাদের সম্মতি সাপেক্ষে ফরম পূরণ করা হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে এক লাখ রোহিঙ্গাকে ভাসানচরে স্থানান্তরের পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। তবে কোনো রোহিঙ্গা পরিবার নিজ ইচ্ছায় যেতে না চাইলে তাদের জোর করে পাঠানো হবে না।’

ক্যাম্পের রোহিঙ্গা মাঝি জাফর উল্লাহ বলেন, ‘ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের জন্য আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সংবলিত শেডসহ অবকাঠামো নির্মাণের কথা রোহিঙ্গারা বিভিন্ন মাধ্যমে আগেই জেনেছে। তাই সবাই সেখানে যেতে আগ্রহ দেখাচ্ছে। তবে এ মুহূর্তে রোহিঙ্গারা মিয়ানমারে ফিরে যাওয়ার চেয়ে ভাসানচরে যেতেই বেশি আগ্রহী। কেননা নিজ দেশটিকে ওরা অনেকেই এখনো নিরাপদ মনে করছে না। তাই আমরাও রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে নেওয়ার উদ্যোগকে স্বাগত জানাই। পাশাপাশি রোহিঙ্গাদের এ ব্যাপারে উদ্বুদ্ধ করছি।’

শালবাগান ক্যাম্পের ডি ব্লকের রোহিঙ্গা নারী নুর বাহার বলেন, ‘আমাদের থেকে মতামত চাওয়া হয়েছে ভাসানচরে যাওয়ার ব্যাপারে। আমরা খুশিতেই সেখানে যেতে আগ্রহ প্রকাশ করেছি। শুনেছি, ভাসানচরে এখানকার চেয়ে আরো বেশি সুযোগ-সুবিধা পাওয়া যাবে।’ একই ক্যাম্পের আরেক রোহিঙ্গা মোহাম্মদ ফারুক বলেন, ‘পাহাড়ে আমরা অনেক কষ্টে জীবন যাপন করছি। এখানকার চেয়ে ভাসানচর আমাদের জন্য অনেক নিরাপদ হবে বলে মনে করছি।’

এদিকে স্থানীয় বাসিন্দাদের অনেকে শঙ্কা প্রকাশ করে বলে, রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোতে একাধিক সুবিধাবাদী গোষ্ঠী রয়েছে। তারা রোহিঙ্গাদের নিয়ে সরকারের যেকোনো উদ্যোগকে ভণ্ডুল করার চেষ্টায় থাকে। তা ছাড়া দেশি-বিদেশি অনেক এনজিও এই কাজে বাধা হতে পারে। তাই ভাসানচরে যাওয়ার ব্যাপারে রোহিঙ্গাদের ইতিবাচক মনোভাব ধরে রাখতে ওই সব সুবিধাবাদী গোষ্ঠী ও এনজিওর দিকে দায়িত্বশীলদের নজর রাখা প্রয়োজন।

সূত্র: কালের কণ্ঠ

আর/০৮:১৪/২৮ অক্টোবর

কক্সবাজার

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে