Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ১৮ জানুয়ারি, ২০২০ , ৫ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-২৭-২০১৯

দুর্ঘটনার শিকার মোটরসাইকেল আরোহীর জুতায় ১৮ স্বর্ণের বার

দুর্ঘটনার শিকার মোটরসাইকেল আরোহীর জুতায় ১৮ স্বর্ণের বার

রাজবাড়ী, ২৭ অক্টোবর- দ্রুত গতির দুই মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে গুরুতর আহত হয়েছে দুই আরোহী। এ সময় বিপ্লব হোসেন (৩০) নামে একজনের জুতার ভেতর থেকে ১৮টি স্বর্ণের বার বের হয়। 

ঘটনাটি ঘটেছে রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের দৌলতদিয়া সাইন বোর্ড এলাকায়।

বিপ্লব হোসেন মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর উপজেলার গোবিন্দল গ্রামের ফরহাদ হোসেনের ছেলে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিপ্লব স্বর্ণের বারগুলো বৈধ দাবি করে জানান, ১৮টি নয় ২০টি স্বর্ণের বার তার কাছে ছিল। 

শান্ত (৩৩) নামের অপর মোটরসাইকেল আরোহী গুরুতর আহত হয়েছেন। তিনি গোয়ালন্দ পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের কুমড়াকান্দি গ্রামের জনাব আলীর ছেলে।

এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ছয় জনকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। তারা হলেন, বিপ্লবের মোটরসাইকেলের যাত্রী মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর উপজেলার গোবিন্দল গ্রামের দেওয়ান মো. জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে দেওয়ান মো. ইসমাইল হোসেন (২৬), দৌলতদিয়ার আঞ্জু বেগম (৪০), আব্দুর রাজ্জাক (৪৫), আব্দুল করিম শেখ, মো. বাদশা মিয়া (৪৫)।

আঞ্জু বেগম জানান, দৌলতদিয়ার সাইন বোর্ড এলাকায় দুইটি দ্রুত গতির পালসার মোটর সাইকেলের সংর্ঘষ হয়। এতে মোটর সাইকেল দুটি দুমড়ে মুচড়ে যায়। স্থানীয়রা এগিয়ে এসে আহতদের উদ্ধার করে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠায়। এসময় রাস্তার উপর পড়ে থাকা চামড়ার জুতার ভেতর থেকে ১৮ টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করে পুলিশকে দেন।

দেওয়ান ইসমাইল হোসেন জানান, তিনি কুষ্টিয়াতে বিএডিসির চাকরিতে যোগদানের জন্য যাচ্ছিলেন। বিপ্লবও একই দিকে যাওয়ায় তিনি তার মোটরসাইকেলে ওঠেন এবং গোয়ালন্দ মোড় এলাকায় নেমে তিনি কুষ্টিয়ায় যাবেন। স্বর্ণের বার সম্পর্কে তিনি কিছু জানেন না বলে দাবি করেন।

গোয়ালন্দ ঘাট থানার ওসি রবিউল ইসলাম জানান, দুর্ঘটনার শিকার মোটরসাইকেল আরোহীর জুতার ভেতর থেকে ১৮ পিস স্বর্ণের বার উদ্ধার করেছে স্থানীয় জনগণ। স্বর্ণের বারের বিষয়ে কোন বৈধ কাগজপত্র এখনো পাননি তারা। স্বর্ণের বার বহনকারী বিপ্লব গুরুতর আহত থাকায় তার চিকিৎসা চলছে। দুইটি স্বর্ণের বার হারিয়ে যাওয়ায় স্থানীয় কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। প্রতিটি বারের ওজন ১০০ গ্রাম করে হবে বলে তিনি ধারণা করেন।

সূত্র : সমকাল
এন কে / ২৭ অক্টোবর

রাজবাড়ী

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে