Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (17 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-২৩-২০১৯

ভুইলোনা আমারে- মাটি ও মা অনুষ্ঠানের সফল আয়োজন

মম কাজী


ভুইলোনা আমারে- মাটি ও মা অনুষ্ঠানের সফল আয়োজন

টরন্টো, ২৩ অক্টোবর- হেমন্তের পাতাঝরা প্রহরের আগ মুহূর্তে প্রকৃতিতে যখন রঙের ছটা লাগে, যখন সুদূর উত্তরমেরু থেকে শীতের আগমনী বার্তা বয়ে আনে চপলা শীতল হাওয়া, তখন উষ্ণ বাংলাদেশের জন্য আমাদের হৃদয় হাহাকার করে উঠে। আর দেশের কথা মনে হলেই তো মনে হয় মায়ের কথা, মাটির কথা। আহা... মাটি ও মা - প্রানের এই স্পন্দনকে কি কখনও ভোলা যায়? প্রানের এই অনুভূতিটিকে নগরীর নানা বর্ণের দর্শকদের সামনে প্রানবন্তভাবে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে মোহাম্মদ আলমগীর আলম আয়োজিত “ভুইলোনা আমারে- মাটি ও মা” অনুষ্ঠানে।

গত ১৯ শে অক্টোবর টরন্টোর অত্যন্ত বিখ্যাত ড্যানিয়েল স্পেকট্রাম হলে আয়োজন করা হয় “মাটি ও মায়ের” এই অনুষ্ঠানটি। অনুষ্ঠানে কমিউনিটির বিভিন্নস্তরের নেতৃবৃন্দের সাথে অন্যান্য দেশের মানুষেরা উপস্থিত থেকে উপভোগ করেছেন শিল্পীদের পরিবেশনা। 

অনুষ্ঠানটি মূলত ছিল গানের ভূবনের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র আইরিন আলমের একক পরিবেশনা। আইরিন আলম ছোটবেলা থেকেই গানের সাথে জড়িত। তালিম নিয়েছেন তার নিজ শহর কুমিল্লায় এবং কাজ করেছেন বিখ্যাত “শাপলা-শালুকের” সাথে। তিনি বাংলাদেশ টেলিভিশনের একজন তালিকাভূক্ত শিল্পীও ছিলেন। নজরুল ও রবীন্দ্র সংগীতে বিশেষ তালিম নিলেও তিনি তার বলিষ্ঠ কন্ঠ কাজে লাগিয়েছেন বাংলাদেশের মাটির গান পল্লীগীতির মাঝে। আলোচিত অনুষ্ঠানটিতে তিনি পরিবেশনা করেন এই মাটির গানগুলোই। জাতীয় সংগীতের পর পর ১২টি গান পরিবেশন করেন তিনি। তার মধ্যে ছিল প্রেমের গান, বিরহের গান, দেশের গান, পাহাড়ী গান, আধ্যাত্মিক গানসহ আরও বেশকিছু চমৎকার পরিবেশনা। দেশের গানে তার সাথে সঙ্গ দিয়েছিলেন তার অত্যন্ত যোগ্য দুই কন্যা আফিয়া ও সুমাইয়া। গানের মাঝে “ইন্দু বালা”, “রঙের দুনিয়া”, মাটির গাছে লাউ”, “বিহুরী লগন” ইত্যাদি গান তুমুল দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছে।

অনুষ্ঠানটিতে অত্যন্ত চমকপ্রদ উপকরনের মধ্যে ছিল সম্পূর্ণ ব্যাতিক্রমধর্মি দু’টি ড্রামার দলের উপস্থাপনা। প্রথমটি ছিল “মুহতাদি আফ্রিকান ওয়ার্লড ড্রামারস” যাদের পরিচালনায় ছিলেন ল্যান্স কামবারবাখ। তাঁর প্রানোচ্ছল নেতৃত্বে দর্শকের হৃদয়ে ছন্দের দোলা দিয়ে উপস্থাপন করেন এই যন্ত্রশিল্পীরা। দ্বিতীয়টি ছিল “ইশিন ডাইকো জাপানিজ ড্রামার গ্রুপ”- নারীদের এই দলটি শুধু ড্রাম বাজানো নয়, বরং তাদের পোশাক এবং অঙ্গভঙ্গীর মাধ্যমেও উপস্থিত সকলের মন জয় করেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন টরন্টোর আরেক জনপ্রিয় শিল্পী নোবেল। তিনি আইরিন আলমের সাথে দ্বৈত এবং একক গান পরিবেশন করেন।

আইরিন আলমের গানের সাথে সাথে নৃত্য পরিবেশন করেন শহরের দুটি অত্যন্ত অসাধারন নাচের স্কুল “নৃত্যকলা কেন্দ্র” এবং “সুকন্যা নৃত্যাঙ্গন”। দুই স্কুলের শিক্ষার্থীরা অনেকগুলো নৃত্য পরিবেশন করেন। গুনী দুই নৃত্যশিক্ষক ও নৃত্যশিল্পী বিপ্লব কর ও অরুনা হায়দারকে সংবর্ধনাসহ ক্রেস্ট প্রদানের মাধ্যমে সম্মান প্রদর্শন করা হয়। 

অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন প্রিয়মুখ ফারহানা আহমেদ ও মম কাজী। 

কানাডা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে