Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৯ , ২৯ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-২০-২০১৯

ফেসবুকে আমার অ্যাকাউন্টই নেই: ছাত্রদল সেক্রেটারি

ফেসবুকে আমার অ্যাকাউন্টই নেই: ছাত্রদল সেক্রেটারি

ঢাকা, ২০ অক্টোবর- নিজের নামে ফেসবুক অ্যাকাউন্টের বায়োতে ‘পঁচাত্তরের হাতিয়ার গর্জে ওঠা’র যে বক্তব্য রয়েছে তা সমর্থন করেন না জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল। যে অ্যাকাউন্টে এটা লেখা আছে সেটা তার নয়। এমনকি ফেসবুকে তার কোনো অ্যাকাউন্টই নেই বলে দাবি করেছেন তিনি। ছাত্রদলের সভাপতিরও কোনো ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নেই বলে জানান শ্যামল।  

রবিবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

সম্প্রতি ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদকের নামের একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্টের বায়ো ভাইরাল হয়। যেখানে লেখা ছিল ‘৭৫ এর হাতিয়ার গর্জে উঠো আরেকবার’। এর প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন ডাকে ছাত্রদল। সংবাদ সম্মেলনে সভাপতি ফজলুর রহমান খোকনসহ ছাত্রদলের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমি এবং আমার সভাপতির বর্তমানে কোনো ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নেই। পঁচাত্তর পরবর্তী বিচার বহির্ভূত যে হত্যাকাণ্ড আমার দল ছাত্রদল সেটা সমর্থন করে না। ডাকসুর জিএস তার যে নৈতিক স্থলন সেটিকে ধামাচাপা দেওয়ার জন্যই এটি সামনে নিয়ে এসেছেন। আমাদেরকে বিতর্কিত করার জন্যই ভুয়া অ্যাকাউন্ট খুলে কেউ এগুলো প্রচার করছে।’

শ্যামল বলেন, ‘ছাত্রদল প্রতিহিংসার রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না। আমরা বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা শহীদ জিয়াউর রহমানের আদর্শে বিশ্বাস করি। তার আদর্শ অনুযায়ী আমরা ভিন্নমতকে লালন করি।’

ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘পঁচাত্তরের হাতিয়ার গর্জে উঠো আরেকবার লিখে ফেইক অ্যাকাউন্ট থেকে যেটি প্রচার  করা হচ্ছে, পঁচাত্তরের সেই মানবতাবিরোধী হত্যাকাণ্ডকে আমার দল কখনোই সমর্থন করে না। আমাদের ক্যাম্পাসে যে সহাবস্থান সেটিকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্যই কেউ আমাদের নামে ভুয়া অ্যাকাউন্ট খুলেই এটি প্রচার করা হচ্ছে।’

শ্যামল বলেন, ‘বর্তামানে ছাত্রলীগ সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের নামে একাধিক ভুয়া অ্যাকাউন্ট আছে। যার বিরুদ্ধে তারাও জিডি করেছেন, আমরাও জিডি করেছি।’ এসময় তিনি তাদের প্রতি প্রশ্ন রাখেন, এসব অ্যাকাউন্ট থেকে কেউ ভুয়া কিছু ছড়ালে আপনারা সেটির দায়বার নেবেন কি না।

‘ডাকসুর জিএস গোলাম রাব্বানী আমার দুই বছরের জুনিয়র। এটি সে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার না করে বড় ভাই হিসেবে আমাকে জিজ্ঞেস করতে পারত। কিন্তু সে তা না করে এটিকে নিয়ে রাজনীতি করেছে। এটা খুবই দুঃখজনক।’

এদিকে সংবাদ সম্মেলন শেষে বের হওয়ার পরপরই  ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক শ্যামলকে আটক করার চেষ্টা করে ডিবি। তবে নেতাকর্মীদের বাধার মুখে তাকে ছেড়ে দেয়। এরপরই ছাত্রদল মিছিল নিয়ে ক্যাম্পাস ছাড়ে।

সূত্র: ঢাকাটাইমস

আর/০৮:১৪/২০ অক্টোবর

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে