Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৯ , ৩০ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-১৮-২০১৯

গুরু–শিষ্য মুখোমুখি, প্রেসিডেন্সিতে বসছে অর্মত্য সেন ও অভিজিৎ ব্যানার্জির মুখাবয়ব

গুরু–শিষ্য মুখোমুখি, প্রেসিডেন্সিতে বসছে অর্মত্য সেন ও অভিজিৎ ব্যানার্জির মুখাবয়ব

কলকাতা, ১৮ অক্টোবর - অর্থনীতিতে নোবেল পুরস্কার জয় করে দেশ তথা কলকাতাকে গর্বের শিখরে নিয়ে গিয়েছেন অভিজিৎ বিনায়ক ব্যানার্জি। কলকাতাবাসীর সঙ্গে অবশ্যই গর্বিত এবং আনন্দিত প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়। এখানকারই ছাত্র অভিজিৎ। এবার এই বিশ্ববিদ্যালয়ের দেওয়ালেই দেখা যাবে তাঁর মুখবয়ব। ২০২ বছরের পুরনো প্রেসিডেন্সি সিদ্ধান্ত নিয়েছে, দুই নোবেল জয়ী অর্মত্য সেন ও অভিজিৎ ব্যানার্জির মুখাবয়ব মুখোমুখি বসানো হবে বিশ্ববিদ্যালয়ে। দুই ছাত্রের অসামণ্য কৃতিত্বে যে কোনও ভারতীয় প্রতিষ্ঠানই তা নিয়ে গর্ব বোধ করতে পারে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সেরা প্রাক্তনীদের নাম ফলকে অভিজিত ব্যানার্জির নাম রাখার কথা আগেই জানানো হয়েছিল। এবার নোবেলজয়ী দুই প্রাক্তনী অর্মত্য সেন এবং অভিজিতের মুখাবয়ব বসানো হবে বিশ্ববিদ্যালয়ের দেওয়ালে। অর্থনীতি বিভাগেই এই মুখাবয়ব বসবে। সঙ্গে থাকবে তাঁদের আত্মজীবনীও। তবে অর্থনীতি বিভাগের ঠিক কোন জায়গায় তা বসবে তা এখনও ঠিক হয়নি। বৃহস্পতিবার বৈঠকে বসে প্রেসিডেন্সির প্ল্যানিং অ্যান্ড ডেভলপমেন্ট কমিটি।

সেখানেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে নোবেল জয়ী প্রাক্তনীদের নাম '‌ওয়াল অফ ফেমে’‌ থাকবে। যেখানে ইতিমধ্যেই অর্মত্য সেনের নাম উঠে গিয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ভবনের এই '‌ওয়াল অফ ফেমে’‌ নাম রয়েছে জনপ্রিয় প্রাক্তন ছাত্র তথা রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসু, বিজ্ঞানী সত্যেন্দ্রনাথ বোস এবং পরিচালক সত্যজিত রায়ের নাম। রেজিস্টার দেবজ্যোতি কোনার বলেন, '‌ব্যানার্জ, ১৯৮১ সালে প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে অর্থনীতিতে বিএসি করেন। তালিকায় তাঁর নাম ১০১ নম্বরে র‌য়েছে।’ ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিশততম উপলক্ষ্যে এই '‌ওয়াল অফ ফেম’‌ বসানো হয়।

যেখানে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশিষ্ট ছাত্র ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপকদের নাম লেখা থাকবে। মুখবয়বের পরিকল্পনা নতুন হলেও, বিশ্ববিদ্যালয় মনে করছে অর্থনীতি বিভাগের দুই শীর্ষস্থানীয়কে শ্রদ্ধা জানানো। বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে জানা গিয়েছে, '‌এখনও কোথায় মুখবয়ব বসবে তা স্থির হয়নি। কিন্তু আমরা চেষ্টা করছি প্রধান ভবনেই এই মুখবয়ব বসানোর।’‌ এছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয় কমিটি ঠিক করেছে, নোবেল জয়ীদের নাম অর্থীতি বিভাগের করিডরে একটি বোর্ডে লেখা থাকবে। বৈঠকে অভিজিত এবং এস্থাকে সংবর্ধনা–সম্মান দেওয়ার ব্যাপারে নানা প্রস্তাব উঠে আসে। চলতি মাসে অভিজিত কলকাতায় আসবেন বলে খবর থাকলেও এ দফায় তিনি প্রেসিডেন্সির জন্য সময় বের করতে পারছেন না। তাই এখনই কোনও বড় অনুষ্ঠান বিশ্ববিদ্যাল্যয়ে হচ্ছে না। আপাতত বিশেষ ভাবে তৈরি শুভেচ্ছাপত্র যত দ্রুত সম্ভব বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে অভিজিতের কাছে পাঠানো হবে। ‌

এন এইচ, ১৮ অক্টোবর

পশ্চিমবঙ্গ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে