Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৯ , ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.7/5 (7 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-১৩-২০১৯

মৃত ব্যক্তিতে জীবিত করতে ইসির সুপারিশ

আরমান হোসেন


মৃত ব্যক্তিতে জীবিত করতে ইসির সুপারিশ

ঢাকা, ১৪ অক্টোবর- গত ২রা সেপ্টেম্বর বগুড়ার সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার মো: মাহবুব আলম শাহ স্বাক্ষরিত এক পত্রে বলা হয়েছে, বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন অফিসার জানান যে, মো: শাহাদৎ হোসেন (জাতীয় পরিচয়পত্র নং-১৯৬৭১০১৯৪৭৯১৭৪২৫৫) শিবগঞ্জ উপজেলাধীন রায়নগর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের টেপাগাড়ী গ্রামের বাসিন্দা। বিদ্যমান ভোটার তালিকায় তার নাম খুঁজে পাওয়া যায়নি। ভোটার তালিকার ডাটাবেজ যাচাইয়ে করে তার স্ট্যাটাস মৃত প্রদর্শিত হচ্ছে। প্রকৃতপক্ষে উক্ত ব্যক্তি জীবিত আছেন। উক্ত ব্যক্তিকে পুনরায় ভোটার তালিকায় অন্তর্ভূক্তির জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ সুপারিশ পাঠানো হয়েছে।

একইভাবে গত ২৫ সেপ্টেম্বর শেরপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ শুকুর মাহমুদ মিঞা স্বাক্ষরিত একপত্রে উল্লেখ করেন, মো: আমির হোসেন (এনআইডি নং-৮৯১৩৭৫০৮৮৯২৮১) গ্রাম-বাতিয়াগাঁও, পোষ্ট-হাতীবান্দা, উপজেলা ঝিনাইগাতী, জেলা-শেরপুর এর নাম মৃত্যুজনিত কারণে কর্তন হওয়ায় পুনরায় অন্তর্ভূক্তির জন্য তার দাখিলকৃত আবেদন উপজেলা নির্বাচন অফিসার, ঝিনাইগাতী, শেরপুর-এ কার্যালয়ে প্রেরণ করেছেন। সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির দাখিলকৃত আবেদনপত্র প্রেরণ করা হলো।

গত ২২ সেপ্টেম্বর সিলেটের সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো: রফিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত আরেকটি আবেদনে বলা হয়েছে, জকিগঞ্জের রহিমখাঁরচক এলাকার মো :আবুল কালাম আজাদ (এনআইডি নং-১৯৮১৯১১৯৪৮৫০০০০০৯) ও তাহমিনা আক্তার পপি (১৯৯৩৯১১৯৪৮৫০০০২৮০) ব্যক্তিদ্বয়ের তথ্য নির্বাচন কমিশনের ডাটা বেইজে প্রদর্শিত হলেও ভোটার তালিকায় ভোটারের নাম নেই।

অনুরুপভাবে চট্টগ্রামের সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো: মুনীর হোসাইন খান জানান, চট্টগ্রামের দক্ষিণ মোঘলটুলীর মোহাম্মদ সাদেক হোসাইন (এনআইডি নং-১৯৮৪৩৩২৩০০১১৯০৭৪৫/ ১৫০৯৪০০০১০৮২) ব্যক্তি ভোটার তালিকা থেকে অজ্ঞাত কারণে তার নাম কর্তন করা হয়েছে মর্মে ডবলমুরিং থানা নির্বাচন অফিসার ও রেজিস্ট্রেশন অফিসার বরাবর আবেদন দাখিল করেছেন। উক্ত ব্যক্তি জনপ্রতিনিধি কর্তৃক প্রদত্ত সনদপত্র ও জন্মনিবন্ধন সনদসহ থানা নির্বাচন অফিস, ডবলমুরিং, চট্টগ্রাম এ-স্ব-শরীরে উপস্থিত হয়ে এ বিষয়ে জবানবন্দি প্রদান করেছেন। সংশ্লিষ্ট অফিসার তার নাম পুনরায় ভোটার তালিকায় অন্তর্ভূক্ত করার সুপারিশপত্র প্রেরণ করেছেন।

৮০ লাখ নতুন ভোটারের তথ্য সংগ্রহের লক্ষ্যে চলতি বছরের ২৩ এপ্রিল থেকে সারাদেশে ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম শুরু হয়। এবছর ২০০১, ২০০২, ২০০৩ ও ২০০৪ সালের পহেলা জানুয়ারিতে জন্ম এমন নাগরিকদের তথ্য সংগ্রহ করা হয়। ইসি থেকে প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী এ পর্যন্ত লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি ভোটারের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। ৮৪ লাখ ৮ হাজার ৬৫৩ জন ভোটারের তথ্য সংগ্রহ করা হয়। মৃত ভোটারের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে ৬ লাখ ৩৮ হাজার ১৬৩ জনের। এর মধ্যে ইসির ডাটা বেইজ মৃত ভোটারের তথ্য এন্ট্রি করা হয়েছে ১ লাখ ৬৬ হাজার ৪৬৫ জনের। নতুন ভোটার এবং মৃত ভোটার কর্তনের জন্য এবার সারাদেশে সাড়ে ৫২ হাজার তথ্য সংগ্রহকারী নিয়োগ দিয়েছিলো ইসি।

সূত্র: বিডি২৪লাইভ  

আর/০৮:১৪/১৪ অক্টোবর

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে