Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৯ , ৮ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ১০-০৪-২০১৯

দেশ কেনাবেচার ইতিহাস

দেশ কেনাবেচার ইতিহাস

দেশের পরিসর বাড়াতে কানাডার উত্তর-পূর্বে অবস্থিত গ্রিনল্যান্ড কিনতে চেয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সে খবর শুনে অনেকেই অবাক হয়েছেন। ট্রাম্পের সিদ্ধান্ত নিয়ে হাসিঠাট্টাও শুরু হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। কিন্তু জানেন কি, দেশ কেনাবেচা এই প্রথম নয়, দেশের আয়তন বাড়াতে আগেও হয়েছে কেনাবেচা।

১০৯৭ খ্রিস্টাব্দ থেকে ১১০১-এর মধ্যে বর্জেসের রাজা ওডো আরপিনাস তাঁর রাজত্ব থেকে বর্জেস ও ডান তৎকালীন ফ্রান্সের রাজা প্রথম ফিলিপের কাছে বিক্রি করে দেন। বিনিময়ে তিনি পান ৬০ হাজার শিলিং। ইতিহাসবিদরা মনে করেন, ১১০১ সালে ধর্মযুদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন ওডো আরপিনাস। সে জন্য অর্থ সাহায্যর জন্য এই দুই দেশ বেচে দিয়েছিলেন তিনি, আবার ইতিহাসবিদদের একাংশের মতে, আরপিনাস নিঃসন্তান হওয়ায় তিনি এই দুই দেশের দায়িত্ব ছেড়ে দিয়েছিলেন।

স্কটল্যান্ডের পশ্চিম উপকূলে অবস্থিত হেব্রিডিস, গ্রেট ব্রিটেন ও আয়ারল্যান্ডের মাঝে অবস্থিত আইল অব ম্যান-এর স্বত্ব ১২৬৬ সালে স্কটল্যান্ডকে দিয়ে দেয় নরওয়ে। ১২৬৬ সালের ২ জুলাই পার্থের চুক্তির সময় স্কটল্যান্ডের তৎকালীন রাজা তৃতীয় আলেকজান্ডার আর নরওয়ের ষষ্ঠ ম্যাগনাসের মধ্যে এই চুক্তি হয়েছিল। বিনিময়ে নরওয়ে পেয়েছিল চার হাজার মির্কে (স্কটিশ সিলভার কয়েন)।

১৭৩৩ সালে ক্যারিবিয়ান আইল্যান্ড সেন্ট ক্রয়েক্স ফ্রান্সের কাছ থেকে কিনে নিয়েছিল ডেনমার্কের ওয়েস্ট ইন্ডিয়া কম্পানি। এই অঞ্চলের জন্য সাত লাখ ৫০ হাজার লিভরে দিয়েছিল কম্পানি। ১৭৫০ সালে জেনোয়ার বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করে কর্সিকা। ইতালির জেনোয়াকে তখন ফ্রান্সের সামরিক সাহায্য নিতে হয়েছিল। শর্ত ছিল কর্সিকাকে ফ্রান্সের অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। ১৭৬৮ সালে কর্সিকা পুরোপুরি ফ্রান্সের অন্তর্ভুক্ত হয়।

১৮০৩ সালে ফ্রান্সের কাছ থেকে এক কোটি ৫০ লাখ ডলারের বিনিময়ে লুইসিয়ানা কিনে নিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। সব মিলিয়ে মোট দুই কোটি এক লাখ ৪০ হাজার বর্গকিলোমিটার অঞ্চল কিনেছিল যুক্তরাষ্ট্র। ফ্রান্সের ফ্রানকো বারবে মারবয়ে এবং আমেরিকার জেমস মনরো ও রবার্ট লিভিংস্টোনের মধ্যে এই চুক্তি হয়েছিল। ১৮১৯ সালে ফের দেশ কেনে যুক্তরাষ্ট্র। এবার স্পেনের কাছ থেকে ফ্লোরিডা কিনে নেয়। এর জন্য তখন যুক্তরাষ্ট্রকে ৫০ লাখ ডলার গুনতে হয়েছিল।

১৮৪৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে গুয়াদালুপের চুক্তি হয়েছিল মেক্সিকোর। সেই চুক্তিতে তৎকালীন এক কোটি ৫০ লাখ ডলারের বিনিময়ে পাঁচ লাখ ২৫ হাজার বর্গমাইল অঞ্চল কিনে নেয় যুক্তরাষ্ট্র। এই অঞ্চলের মধ্যে বর্তমানে আরিজোনা, ক্যালিফোর্নিয়া, নেভাদা ও উটাহ শহর গড়ে উঠেছে। রাশিয়ার সঙ্গে অনেক দর-কষাকষির পর ১৮৬৭ সালে সাত কোটি ২০ লাখ ডলারের বিনিময়ে আলাস্কা কিনে নেয় যুক্তরাষ্ট্র। স্পেন-যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধের সময় ১৮৯৮ সালে দুই কোটি ডলারের বিনিময়ে ফিলিপিন্স কিনে নেয় যুক্তরাষ্ট্র। প্যারিস চুক্তির মাধ্যমে এই চুক্তি মঞ্জুর হয়েছিল।

১৯০৩ সালে পানামা খাল ও এর আশপাশের অঞ্চল লিজ নেয় যুক্তরাষ্ট্র। বিনিময়ে এক কোটি ডলার পানামাকে দিয়েছিল আমেরিকা। ১৯৯৯ সালে এই লিজের সময়সীমা শেষ হয়। ফের পানামা খালের স্বত্ব পানামা সরকারকে ফিরিয়ে দেয় যুক্তরাষ্ট্র।

আর/০৮:১৪/৪ অক্টোবর

জানা-অজানা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে