Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯ , ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৯-২৫-২০১৯

স্মার্টফোনের চার্জ বেশিক্ষণ রাখার উপায়

স্মার্টফোনের চার্জ বেশিক্ষণ রাখার উপায়

স্মার্টফোনে চার্জ কম থাকে এ অভিযোগ সবার। চার্জ যাতে বেশিক্ষণ থাকে এ জন্য নতুন নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন করছে স্মার্টফোন কোম্পানিগুলো। কিন্তু তারপরেও তা মেটাতে পারছেনা ক্রেতাদের চাহিদা। এছাড়া ফোন কেনার পর যত দিন যায় ফোনে চার্জ থাকার স্থায়িত্ব ততই কমতে থাকে। তবে কিছু নিয়ম-কানুনের মাধ্যমে স্মার্টফোন ব্যবহার করলে ব্যাটারির স্থায়ীত্ব বাড়ান যায়।

চলুন একনজরে জেনে নেওয়া যাক কিভাবে স্মার্টফোনের ব্যাটারির চার্জ বেশিক্ষণ ধরে রাখা যায়:

ভুল ধারণা বাদ দিন
অনেকেই ভাবেন যে, স্মার্টফোনের ব্যাটারি একবারে শতভাগ চার্জ দিতে হয়। আর চার্জ ৯ থেকে ১০ শতাংশে নেমে না আসা পর্যন্ত ফের চার্জ দেওয়া উচিত নয়। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শতভাগ চার্জ অথবা চার্জ সম্পূর্ণ খরচ করলে বরং লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারির ওপর চাপ সৃষ্টি হয়। এতে করে ব্যাটারির মধ্যে থাকা রাসায়নিক দুর্বল হয়ে পড়ে। ফলে ব্যাটারির আয়ু কমে আসে। বিশেষজ্ঞদের মতে তাই, ব্যাটারির চার্জ ৫০ থেকে ৮০ শতাংশের মধ্যে রাখা উচিত। এছাড়া খেয়াল রাখতে হবে, চার্জ কমতে কমতে যেন ২০ শতাংশের নিচে নেমে না যায়।

তাপমাত্রা নিয়ে সচেতনতা
লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারির কেন্দ্রে থাকা রাসায়নিক পদার্থ কখনোই খুব বেশি বা খুব কম তাপমাত্রা পছন্দ করে না। তাই ফোনকে স্বাভাবিক তাপমাত্রায় রাখার যথাসাধ্য চেষ্টা করতে হবে।

ধৈর্য ধরতে হবে
তারবিহীন চার্জিং প্রযুক্তি বেশ সাড়া ফেলেছে। পাশাপাশি ফাস্ট-চার্জিং প্রযুক্তিও এসে গেছে। মাত্র কয়েক মিনিটেই ব্যাটারি ৫০ শতাংশ পর্যন্ত চার্জ করা যাচ্ছে। তবে এসব প্রযুক্তির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে এখনো ব্যাটারিসংশ্লিষ্ট প্রযুক্তি অতটা এগোয়নি। লিথিয়াম-আয়ন এখনো ‘ধীরে চলো’ নীতিতে চলছে। খরগোশের মতো নয় বরং কচ্ছপের গতিতে চার্জ করলে ব্যাটারি দীর্ঘস্থায়ী হয়। তবে এর অর্থ এই নয় যে, ফাস্ট-চার্জিং কিংবা তারবিহীন চার্জিং প্রযুক্তি খারাপ। কিন্তু এই সুবিধাগুলো নিতে হলে অবশ্যই কিছু বিষয়ে সচেতন থাকতে হবে। ফাস্ট–চার্জিং প্রযুক্তির জন্য অবশ্যই যে কোম্পানির স্মার্টফোন তারই চার্জার ব্যবহার করতে হবে। তারবিহীন চার্জিংয়ের ক্ষেত্রেও একই নীতি প্রযোজ্য। তবে ওই স্মার্টফোন কোম্পানি যদি অন্য কোনো পক্ষের নির্মিত চার্জার ব্যবহারে বৈধতা দেয়, তবে তা ব্যবহার করা যেতে পারে।

‘আপডেট’ থাকুন
ব্যাটারি দীর্ঘদিন ব্যবহার উপযোগী রাখতে ফোনের সফটওয়্যার আপডেট করার বিকল্প নেই। আইওএস ও অ্যান্ড্রয়েড দিন দিন বেশ উন্নতি করছে। এই অপারেটিং সিস্টেমগুলো ইদানিং নিজ থেকেই ব্যাটারি–সংক্রান্ত অনেক বিষয়ের ওপর নজরদারি করার সক্ষমতা অর্জন করছে। তাই সফটওয়্যারগুলোর সর্বশেষ ভার্সন ব্যবহারের চেষ্টা করতে হবে।

একবার চার্জ দিয়ে বেশি সময় ব্যবহার
প্রতিটি ব্যাটারির নির্দিষ্ট জীবনকাল আছে। কত দিন একটি ব্যাটারি সেবা দিতে পারবে সেটি নির্ধারণ করে দেয় এর ভেতরে থাকা রাসায়নিক উপাদান। প্রতিবার শতভাগ চার্জ আর পুরোপুরি ব্যবহার ব্যাটারির জীবনকালকে সীমিত করে ফেলে। এ জন্য একবার চার্জ করে দীর্ঘ সময় ব্যবহার করার চেষ্টা করা উচিত। কিছু বিষয়ের দিকে একটু নজর দিলে চার্জ কম খরচ করেও দীর্ঘ সময় ফোন ব্যবহার করা যায়। যেমন, মোবাইল স্ক্রিনের উজ্জ্বলতা কমিয়ে রাখা ও ফোনের স্পিকারের পরিবর্তে হেডফোন দিয়ে ভিডিও দেখা ও অডিও শোনা ইত্যাদি।
কিছু অ্যাপ (ফেসবুক, মেসেঞ্জার, গুগল ম্যাপ ইত্যাদি) আছে, যেগুলো ব্যাটারি চার্জ খরচ করে বেশি। এসব অ্যাপের ব্যবহার যত কম করা যায় ততই ভালো। অন্যদিকে ব্লুটুথ ও জিপিএস সেবা দ্রুতই ব্যাটারির চার্জ ফুরিয়ে ফেলে। তাই প্রয়োজন ছাড়া এগুলো বন্ধ রাখা যেতে পারে।

আর/০৮:১৪/২৫ সেপ্টেম্বর

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে