Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৯ , ৮ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.3/5 (6 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৯-২৪-২০১৯

অস্ট্রিয়ায় এমপি হওয়ার দৌড়ে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নয়ন

বোরহান উদ্দিন


অস্ট্রিয়ায় এমপি হওয়ার দৌড়ে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নয়ন

ভিয়েনা, ২৪ সেপ্টেম্বর - ইউরোপের দেশ অস্ট্রিয়ার শৈশব, কৈশোর কেটেছে মাহমুদুর রহমান নয়নের। তবে এই যুবকের শেকড় বাংলাদেশে। ১৯৯৫ সালে অস্ট্রিয়ায় জন্ম নিলেও তার পৈত্রিক বাড়ি দ্বীপজেলা ভোলায়। সেই ছেলেটি স্বপ্ন দেখছেন অস্ট্রিয়ার জাতীয় নির্বাচনে জয়ী হয়ে সংসদে যাওয়ার। চার বছর পর পর ‍অনুষ্ঠিত এই নির্বাচন হবে আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর।

ইতিমধ্যে সাড়া ফেলেছেন ২৪ বছর বয়সী নয়ন। বিশেষ করে বাংলাদেশি কমিউনিটিসহ সেখানকার স্থানীয়দের কাছে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন উচ্চশিক্ষিত এই যুবক। নয়নের বাবা মুক্তিযোদ্ধা মাহবুবুর রহমান অস্ট্রিয়ায় সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে জড়িত।

নয়ন আশা করছেন সংসদে যাওয়ার সুযোগ মিলবে এবারের নির্বাচনে। এটা তার দ্বিতীয়বারের মতো নির্বাচনে অংশ নেয়া। এর আগে ২০১৭ সালে নির্বাচন করলেও তিন হাজার ভোটে হেরে যান নয়ন।

এবার দেশটিতে আগাম নির্বাচন হচ্ছে। নয়ন প্রতিনিধিত্ব করছেন অস্ট্রিয়ান পিপলস পার্টির হয়ে। ভিয়েনার ১৩, ১৪ ও ২৩ নম্বর ডিস্ট্রিকের প্রার্থী তিনি। গত নির্বাচনে হেরে গেলেও এবার আঁটঘাট বেঁধে নেমেছেন নয়ন। তার হয়ে কাজ করছেন সেখানকার বাংলাদেশি কমিউনিটির লোকজনও।

নয়নের জন্ম অস্ট্রিয়ায। তবে বয়স যখন এক বছর তখন পরিবারের সঙ্গে বাংলাদেশে আসেন। পরে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করে চলে যান অস্ট্রিয়ায়। যেখানে যাওয়ার পর সমস্যার মুখে পড়তে হয় তাকে। স্থানীয় একটি হাইস্কুলে ভর্তি হলেও তিনি জানতেন না জার্মান ভাষা। পড়াশোনার ফাঁকে ভাষাটিও রপ্ত করতে হয় তাকে।

হাইস্কুলে ফাইনাল পরীক্ষায় নয়ন প্রথম স্থান অর্জন করলে তাকে মডেল হিসেবে ঘোষণা করা হয়। পরে কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং পড়তে ভিয়েনার হাইয়ার টেকনিক্যাল কলেজে (এইচটিএল) ভর্তি হন। ফাইনাল পরীক্ষায় সফটওয়ার ইঞ্জিনিয়ারিং এ অস্ট্রিয়ান গ্রেড অনুযায়ী চমৎকার ফলাফল করার পর উচ্চশিক্ষার জন্য নয়ন চলে যান ব্রিটেনে। সেখানে সফটওয়ার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ থেকে প্রথম শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হওয়ার পর একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ম্যানেজমেন্টের ওপর এমএমসি ডিগ্রি লাভ করেন।

বর্তমানে অস্ট্রিয়াতে জার্মানের একটি আইটি কোম্পানিতে সিনিয়র কনসালটেন্ট হিসেবে কাজ করছেন নয়ন।

অস্ট্রিয়ার কলেজে ভর্তি হওয়ার পর নানা সমস্যা নিয়ে কথা বলে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন নয়ন। পরে দুবার তাকে কলেজের ছাত্র সংসদের সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত করেন শিক্ষার্থীরা। একসময় অস্ট্রিয়ার কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হন। ইতিমধ্যে নয়ন অস্ট্রিয়ান যুব পিপলস পার্টির নেতৃতে চলে এসেছেন।

ব্রিটেনে পড়াশোনার সময়ে নয়ন পিপলস পার্টি থেকে ভিয়েনা ডিসট্রিক্ট কাউন্সিলর হিসেবে মনোনয়ন পান।

২০১৭ সালের অক্টোবরে ব্রিটেনে মাস্টার্স করার সময় তরুণ এই রাজনীতিকের ডাক পড়ে অস্ট্রিয়ার জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অস্ট্রিয়ান পিপলস পার্টি থেকে নির্বাচন করার জন্য। সবার উৎসাহে নির্বাচনে অংশ নিলেও অন্য প্রার্থীর কাছে হেরে যান তিনি।

অস্ট্রিয়ায় সংসদ নির্বাচনের নিয়ম হলো জনগণ সরাসরি ভোট দেবে রাজনৈতিক দলকে। শতকরা হিসেবে দলগুলো এমপির আসন পাবে। পরে দল সিদ্ধান্ত নিয়ে যাদের সংসদে পাঠাবে তারাই হবে সংসদ সদস্য।  

রাজনীতিতে সক্রিয় হওয়ার পেছনে অনুপ্রেরণা হিসেবে নিজের বাবা-মায়ের কথা জানালেন নয়ন। প্রবাসে থাকা বাংলাদেশি তরুণদের উদ্দেশে তিনি বলেন, সবার আসলে নিজেদের কমিউনিটিতে সামাজিক, সাংস্কৃতিক কাজের সঙ্গে স্থানীয় রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হওয়া জরুরি।

নির্বাচনে জয়ী হওয়ার ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেন নয়ন। বাংলাদেশি কমিউনিটির সবার সহযোগিতা চেয়ে বলেন, স্বপ্ন দেখি অস্ট্রিয়ার পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে হিসেবে বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশকে তুলে ধরবো।

এদিকে নয়নের বাবা সাংবাদিক মাহবুবুর রহমান বলেন, আমার তিন সন্তানের মধ্যে নয়ন সবার ছোট। আমি ১৯৮৪ সালে অস্ট্রিয়াতে এসেছি। সাংবাদিকতা ছাড়াও এখানকার নানা সামাজিক সংগঠনের সঙ্গে জড়িত আছি। আমিও চাই আমাদের কমিউনিটির লোকজন এগিয়ে আসুক নয়নকে বিজয়ী করতে।

এন এ/ ২৪ সেপ্টেম্বর

অন্যান্য

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে