Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯ , ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.0/5 (3 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৯-২৩-২০১৯

প্রাইভেটকারে ঘুরে বেড়ান আর চাকরি দেন তিনি

প্রাইভেটকারে ঘুরে বেড়ান আর চাকরি দেন তিনি

বরিশাল, ২৩ সেপ্টেম্বর- সেনাবাহিনীর মেজর পরিচয় দিয়ে প্রতারণার অভিযোগে মো. সাইফুল ইসলাম (৩০) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে বরিশাল র‌্যাব-৮-এর সদস্যরা।

সোমবার দুপরে নগরীর সিঅ্যান্ডবি রোড ঘোষের বাড়ির সামনে থেকে সেনাবাহিনীতে ওয়ারেন্ট অফিসার পদে চাকরি দেয়ার কথা বলে টাকা নেয়ার সময় তাকে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়। মো. সাইফুল ইসলাম বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলার বাইশারী এলাকার নুরুজ্জামান হাওলাদারের ছেলে।

নগরীর ডিআর মোটরস অ্যান্ড কার ডেকরেশনের মালিক দেলোয়ার হোসেন বলেন, সাইফুল বিভিন্ন সময় প্রাইভেটকারের বিভিন্ন যন্ত্রাংশ কেনার জন্য আমার দোকানে আসেন। তার প্রাইভেটকারের সামনের গ্লাসে সাদা কাগজে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী লেখা স্টিকার রয়েছে। নিজেকে তিনি সেনাবাহিনীর মেজর পরিচয় দিতেন। পরিচয়ের সূত্র ধরে সাইফুল ইসলাম সেনাবাহিনীর ওয়ারেন্ট অফিসার পদে চাকরি দেয়ার সুযোগ রয়েছে বলে আমাকে জানান। চাকরির বিনিময়ে ৪ লাখ টাকা দাবি করেন সাইফুল। পরে তার সঙ্গে আমার চুক্তি হয়।

সোমবার দুপুরে আমার ছেলের জীবন বৃত্তান্ত এবং ৪ লাখ টাকার অগ্রিম বাবদ ৫০ হাজার টাকা নিতে আসেন সাইফুল। এ সময় তার কথাবার্তায় আমার সন্দেহ হয়। তখন সেনাবাহিনীতে কর্মরত আমার আত্মীয় সেনা কর্মকর্তাকে বিষয়টি জানাই। তিনি বিষয়টি বরিশাল র‌্যাবকে জানান। কিছুক্ষণ পর ঘটনাস্থল থেকে সাইফুল ইসলামকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।

র‌্যাব-৮-এর উপ-অধিনায়ক মেজর খান সজিবুল ইসলাম বলেন, ২০১৮ সালের ২৮ আগস্ট সাইফুল ইসলামকে প্রতারণার অভিযোগে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। তখন সাইফুল নিজেকে চিকিৎসক পরিচয় দিয়ে বরিশালের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা সহজ-সরল রোগী ও স্বজনদের ফাঁদে ফেলে টাকা নিতেন।

বরিশাল নগরীর সাগরদী ইসলামি আলিম মাদরাসা থেকে দাখিল ও আলিম পাস করলেও নিজেকে চিকিৎসক পরিচয় দিয়ে বাকেরগঞ্জ উপজেলার এক বিত্তবান পরিবারের মেয়েকে বিয়ে করেন সাইফুল।

হাসপাতালের কর্মচারী আ. রশিদের ছেলেকে চাকরি দেয়ার কথা বলে দুই বছর আগে ১ লাখ ৫ হাজার টাকা নিয়েছেন সাইফুল। ওই সময় পুলিশের হাতে গ্রেফতার হওয়ার পর তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। পরে আদালত থেকে জামিনে ছাড়া পান সাইফুল। এবার প্রতারণার ধরন পরিবর্তন করেছেন তিনি। চিকিৎসকের পাশাপাশি নিজেকে সেনাবাহিনীর মেজর পরিচয় দিচ্ছেন সাইফুল। এখন প্রাইভেটকারে ঘুরে বেড়ান আর চাকরি দেয়ার নামে প্রতারণা করেন তিনি।

র‌্যাবের মেজর খান সজিবুল ইসলাম আরও বলেন, সম্প্রতি সেনাবাহিনীর ওয়ারেন্ট অফিসার পদে চাকরি দেয়ার কথা বলে লোকজনের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। সোমবার দুপুরে এক লোকের কাছ থেকে টাকা নেয়ার সময় সাইফুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়। প্রতারণার ফাঁদে ফেলে টাকা হাতিয়ে নেয়ার কথা স্বীকার করেছেন সাইফুল। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সূত্র: জাগোনিউজ

আর/০৮:১৪/২৩ সেপ্টেম্বর

বরিশাল

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে