Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১৪ অক্টোবর, ২০১৯ , ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৯-২০-২০১৯

নিজের ‘দ্বিতীয় বাড়ি’তেই আজ শেষ ম্যাচ মাসাকাদজার

নিজের ‘দ্বিতীয় বাড়ি’তেই আজ শেষ ম্যাচ মাসাকাদজার

ঢাকা, ২০ সেপ্টেম্বর- জাতীয় দলের হয়ে তো বটেই, ঘরোয়া ক্রিকেটে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ বা বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ খেলতে অসংখ্যবার বাংলাদেশে এসেছেন জিম্বাবুয়ে জাতীয় ক্রিকেট দলের বর্তমান অধিনায়ক হ্যামিল্টন মাসাকাদজা। যে কারণে বেশ কয়েকবার ভিন্ন ভিন্ন সাক্ষাৎকারে এ ভূখণ্ডকে নিজের ‘দ্বিতীয় বাড়ি’ বলতে কুণ্ঠাবোধ করেননি ডানহাতি এ ব্যাটসম্যান।

এবার নিজেই এ দ্বিতীয় বাড়িতেই শেষবারের মতো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে নামবেন মাসাকাদজা। এবারে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে আসার আগেই জানিয়েছিলেন, এ সফরটিই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তার শেষবারের মতো মাঠে নামা। সেই কথা মোতাবেক আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটিই হতে যাচ্ছে মাসাকাদজার শেষ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ।

তবে ক্যারিয়ারের শেষভাগে এসে একটি আক্ষেপ রয়েই গেছে তার মধ্যে। পরিকল্পনা ছিলো ২০২০ সালে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলে, তবেই বিদায় জানাবেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে। কিন্তু আইসিসির নিষেধাজ্ঞায় পড়ার কারণে সেই বিশ্বকাপ তো পরে, চলতি বছরে হতে যাওয়া বিশ্বকাপ বাছাইপর্বেও খেলা হবে না জিম্বাবুয়ের। তাই আগেভাগেই নিজের ক্যারিয়ার গুটিয়ে নিলেন ৩৬ বছর বয়সী মাসাকাদজা।

পুরো ক্যারিয়ার জুড়েই অবশ্য এমন অনেক আক্ষেপ সঙ্গী হয়ে ছিলো মাসাকাদজার। পড়াশোনা ও ব্যক্তিগত জীবনের খাতিরে অভিষেকের পরেও ক্যারিয়ার থেকে হারিয়ে ফেলেছেন ৩টি বছর। পরে আবার জিম্বাবুয়ে স্বেচ্ছা নির্বাসনে থাকায় টেস্ট ক্রিকেট খেলতে পারেননি আরও কয়েক বছর। আক্ষেপ ছিলো ২০১৫ সালের আগে ওয়ানডে বিশ্বকাপ খেলতে না পারারও। তবে বছর চারেক আগে সেটি মিটিয়েছেন অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ আসরে অংশ নিয়ে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে মাসাকাদজার শুরুটা ছিলো চমক জাগানিয়া। ঘরের মাঠে ২০০১ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে নিজের অভিষেক টেস্টেই খেলেছিলেন ৩১৬ বলে ১১৯ রানের এক ইনিংস। যা ছিলো তৎকালীন সময়ে অভিষেক টেস্টে সর্বকনিষ্ঠ সেঞ্চুরির রেকর্ড। তার সে রেকর্ডে ভর করে সে ম্যাচে অবিশ্বাস্য এক ড্র পায় জিম্বাবুয়ে।

কিন্তু এরপর আর সে অর্থে বড় কিছু হয়নি মাসাকাদজার ক্যারিয়ারে। জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটের সঙ্গে সঙ্গে নিচের দিকে গেছে মাসাকাদজার ক্যারিয়ারের গ্রাফটাও। তবু দেশের অন্যান্য অনেক ক্রিকেটারের চেয়ে এগিয়েই থাকবেন তিনি। এর মধ্যে ২০০৯ সালে কেনিয়ার বিপক্ষে এক সিরিজে ৪৬৭ রান করে তখনকার সময়ের বিশ্বরেকর্ড গড়েছিলেন মাসাকাদজা।

আজ প্রায় ১৮ বছর পর নিজের শেষ ম্যাচ খেলতে নামার আগে জিম্বাবুয়ের জার্সি গায়ে ৩৮ টেস্ট, ২০৯ ওয়ানডে এবং ৬৫ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন মাসাকাদজা। সমান ৫টি করে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন টেস্ট ও ওয়ানডেতে। সাদা পোশাকের ক্রিকেটে ৩০ গড়ে করেছেন ২২২৩ রান, ওয়ানডেতে ২৭ গড়ে তার সংগ্রহ ৫৬৫৮ রান। এছাড়া টি-টোয়েন্টিতে দেশের পক্ষে সর্বোচ্চ ১৫৯১ রানের মালিক তিনি।

এন কে / ২০ সেপ্টেম্বর

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে