Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৯ , ৬ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৯-১৭-২০১৯

এবার ঝাড়খণ্ড থেকে বিদ্যুৎ আমদানি

এবার ঝাড়খণ্ড থেকে বিদ্যুৎ আমদানি

ঢাকা, ১৭ সেপ্টেম্বর- প্রতিবেশী দেশ ভারতের বিভিন্ন দিক থেকে ইতোমধ্যে বিদ্যুৎ আমদানি করছে বাংলাদেশ। এবার পূর্বভারতের ঝাড়খণ্ড রাজ্য থেকে বিদ্যুৎ আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। এ জন্য ঝাড়খণ্ডে নির্মাণাধীন একটি বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে বিদ্যুৎ আমদানি করতে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ২৮ কিলোমিটার ৪০০ কেভি সঞ্চালন লাইন নির্মাণ করতে যাচ্ছে সরকার।

এ লক্ষ্যে মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় একটি প্রকল্পের অনুমোদন দেয়া হয়।

ভারতের ঝাড়ঝণ্ড রাজ্যের গড্ডা জেলায় আদানি পাওয়ার লিমিটেডের (এপিজেএল) নির্মাণাধীন ১ হাজার ৪৯৬ মেগাওয়াট কোল ফায়ার্ড থার্মাল পাওয়ার প্লান্ট থেকে বাংলাদেশের বিদ্যুৎ আমদানি করাই এ প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য। ঝাড়খণ্ডে নির্মাণাধীন এই বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে উৎপাদিত বিদ্যুৎ সঞ্চালনের জন্য ভারত অংশে এপিজেএল এবং বাংলাদেশ অংশে গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ লিমিটেডের (পিজিসিবি) মাধ্যমে সঞ্চালন অবকাঠামো নির্মাণ করা হবে। এই বিদ্যুৎ রাজশাহী ও রংপুর অঞ্চলসহ রাজধানীতে ব্যবহার করা হবে।

‘ভারতের ঝাড়খণ্ড হতে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ আমদানি করার লক্ষ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার রহনপুর থেকে মনাকষা সীমান্ত পর্যন্ত ৪০০ কেভি সঞ্চালন লাইন নির্মাণ’ প্রকল্পে মোট ব্যয় হবে ২২৫ কোটি ৪৯ লাখ ২২ হাজার টাকা। এতে বাংলাদেশ সরকার দেবে ২১৬ কোটি ৩২ লাখ ৭২ হাজার এবং সংস্থার নিজস্ব অর্থায়ন ৯ কোটি ১৬ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে বাস্তবায়ন করবে পিজিসিবি। চলতি বছরের জুলাই থেকে ২০২১ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে বাস্তবায়ন করা হবে।

এ বিষয়ে একনেক সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘ভারতের সঙ্গে আমাদের বিদ্যুৎ আনা-নেয়ার একটা বিষয় আছে। ভারত থেকে ইতোমধ্যে আমরা বিদ্যুৎ আনছি। পশ্চিম দিক থেকেও আনছি, পূর্বদিক থেকেও আনছি। এবার ভারতের ঝাড়খণ্ড থেকে বিদ্যুৎ আনা হবে। এখন আমরা বিদ্যুৎ আনছি। এমনও হয়তো পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে, এক সময় আমরা বিদ্যুৎ দিতেও পারি। রফতানিও করতে পারি। এটা শুধু আসার জন্য নয়, এই লাইনে বিদ্যুৎ দেয়া-নেয়া দুটোই করা যাবে।’

প্রকল্প সূত্রে জানা যায়, দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ও অগ্রগতির জন্য বিদ্যুতের উত্তরোত্তর চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে সরকার বিদ্যুৎ উৎপাদন বৃদ্ধির পাশাপাশি প্রতিবেশী দেশ থেকে আন্তঃদেশীয় সহযোগিতার মাধ্যমে বিদ্যুৎ আমদানির এই কার্যক্রম নেয়া হয়েছে।

পিজিসিবির বাস্তবায়নাধীন একটি প্রকল্পের আওতায় চাঁপাইনবাবগঞ্জের রহনপুর থেকে বগুড়া পর্যন্ত ২৮ কিলোমিটার ৪০০ কেভি সঞ্চালন লাইন নির্মাণ করা হচ্ছে। বাংলাদেশের এই গ্রিডের সঙ্গে ভারত থেকে আমদানি করা বিদ্যুৎকেন্দ্রের সংযোগ স্থাপনের লক্ষ্যে বিবেচ্য প্রকল্পের আওতায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর ইউনিয়ন থেকে একই জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা ইউনিয়ন (বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তবর্তী সংযোগ স্থল) পর্যন্ত ২৮ কিলোমিটার ৪০০ কেভি ডাবল সার্কিট সঞ্চালন লাইন নির্মাণের জন্য প্রকল্পটি অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

সূত্র: জাগোনিউজ

আর/০৮:১৪/১৭ সেপ্টেম্বর

ব্যবসা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে