Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৯ , ৪ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৯-১৬-২০১৯

শিশুদের টিফিনের টাকায় লাখো গাছ রোপণ

শিশুদের টিফিনের টাকায় লাখো গাছ রোপণ

রাজশাহী, ১৬ সেপ্টেম্বর- 'সবুজের জয়গানে, এসো মিলি প্রাণে প্রাণে' এ স্লোগানের মধ্য দিয়ে রাজশাহীর বাঘা ও চারঘাট উপজেলার সকল শিক্ষার্থীরা নিজেদের এক দিনের টিফিনের টাকা বাঁচিয়ে ১ লাখ ৫ হাজার বৃক্ষ রোপণ করেছে।

এ উপলক্ষে সোমবার সকাল ১০ টায় চারঘাট পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় ও বাঘা মডেল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে পৃথক দুটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে উপজেলা প্রশাসন।

জলবায়ু পরিবতর্নের বিরূপ প্রভাব মোকাবেলায় বাসযোগ্য পৃথিবী গড়ার প্রত্যয়ে ২০১৫ সাল থেকে উদ্যোমী তরুণ জুবায়ের আল মাহমুদ রাসেল নিজের উদ্ভাবিত থিম 'এক দিনের টিফিনের টাকা বাঁচিয়ে গাছ রোপণ' আন্দোলন শুরু করেন। গত চার বছর এই আন্দোলনে সারাদেশের ৭৫০টি স্কুলের লাখো শিক্ষার্থী অংশ নেয়। এর মধ্যে রাজশাহীর চারঘাট ও বাঘা, পাবনার ঈশ্বরদী, নাটোরের বড়াইগ্রাম, সিলেটের বিয়ানীবাজার এবং খুলনার দিঘলীয় উপজেলার শিক্ষার্থীরা এই আন্দোলনে অংশ নিয়ে প্রায় আড়াই লাখ বৃক্ষ রোপণ করে। সর্বশেষ এ বছর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ১৬ সেপ্টেম্বর ১ লাখ ৬ হাজার গাছ রোপণ করেছে চারঘাট এবং বাঘার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শির্ক্ষার্থীরা। এ নিয়ে গত ৫ বছরে গাছের সংখ্যা দাঁড়ালো সাড়ে তিন লাখ।

অনুষ্ঠানে জুবায়ের আল মাহমুদ জানান, আগামী ২ অক্টোবর পাবনার ঈশ্বরদী এবং নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার শিক্ষার্থীরা একযোগে আরও ১ লাখ গাছ রোপণ করবে। এছাড়া সিলেটের বিয়ানীবাজার ও খুলনার দিঘলীয়া উপজেলায় বিভিন্ন স্কুলে বৃক্ষরোপণ চলছে।

জুবায়ের বলেন, 'প্রতিবছর বিছিন্নভাবে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি হলেও এবারই প্রথমবারের মতো 'বিশ্ব ওজন দিবস' উপলক্ষে চারঘাট-বাঘার শিক্ষার্থীরা অক্সিজেন উৎপাদনের জন্য যে লাখো গাছ রোপণ করল, তা বিশ্বে বিরল।'

তিনি আরও বলেন, 'আমি মনে করি- বাংলাদেশের ৫ কোটি শিক্ষার্থীকে নিয়ে যদি বছরের নির্দিষ্ট একটি দিনে বৃক্ষরোপণ করা যায়, তাহলে খুব সহজে বাংলাদেশ সবুজে পরিণত হবে এবং এই আন্দোলন যদি জাতিসংঘের উদ্যোগে সারা পৃথিবীতে ছড়িয়ে দেওয়া যায়, তাহলে খুব সহজে সারা পৃথিবী বিশাল এক অরণ্যে পরিণত হবে।' তিনি জাতীয়ভাবে বৃক্ষরোপণের জন্য 'জাতীয় বৃক্ষরোপণ দিবস' ঘোষণা করে বাংলাদেশের সকল শিক্ষার্থীকে নিয়ে বৃক্ষরোপণের দাবি জানান।

চারঘাট পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফখরুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চারঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুল হোসেন। অন্যদিকে, বাঘা উপজেলা সদরে অবস্থিত বাঘা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বৃক্ষরোপণ উৎসবে প্রধান অতিথি ছিলেন বাঘা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট লায়েব উদ্দিন লাভলু। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাঘা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা। উভয় অনুষ্ঠানে বৃক্ষরোপণের উপকারিতা সম্পর্কে বিভিন্ন বিষয়ের উপর আলোকপাত করেন বক্তরা।

চারঘাটে উপজেলা চেয়ারম্যান ফখরুল ইসলাম উপস্থিত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, 'তোমরা গাছগুলো বাড়িতে নিয়ে গিয়ে রোপণ করবে এবং যত্ন করবে যেন গাছগুলো তোমাদের সাথেই বেড়ে ওঠে।'

চারঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জানান, বৃক্ষপ্রেমিক জুবায়ের আল মাহমুদের উদ্ভাবন এবং প্রচেষ্টাকে কাজে লাগিয়ে ১ দিনের টিফিনের টাকায় শিক্ষার্থীদের মাঝে ৫৬ হাজার গাছ রোপণের জন্য বিতরণ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, তার উপজেলার প্রতিটি বিদ্যালয়ে আজ সোমবার বৃক্ষরোপণ উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এদিকে বাঘার অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি উপজেলা চেয়ারম্যান লায়েব উদ্দিন লাভলু শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্য বলেন, 'তোমরা আজ পৃথিবীর বুকে ইতিহাস তৈরি করলে। প্রতি বছর একটি নির্দিষ্ট দিনে এই বৃক্ষরোপণ কার্যক্রম যেন অব্যাহত থাকে। তাহলে জলবায়ুর প্রভাব থেকে বাংলাদেশ রক্ষা পাবে।'

অনুষ্ঠানের সভাপতি বাঘা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিন রেজা বলেন, 'জুবায়েরের এই আন্দোলন অত্যন্ত যুগোপযোগী। শিক্ষার্থীরা যদি এই গাছগুলো রোপনের পর বাঁচিয়ে রাখার চেষ্টা করে, তাহলে উপকৃত হবে দেশ। সুফল পাবে জাতি।'

সূত্র: সমকাল
এন কে / ১৬ সেপ্টেম্বর

রাজশাহী

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে