Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ , ৫ আশ্বিন ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৯-১১-২০১৯

টরন্টোর ডেন্টোনিয়া পার্কে স্থাপিত হতে যাচ্ছে মাতৃভাষা স্মৃতিস্তম্ভ!

টরন্টোর ডেন্টোনিয়া পার্কে স্থাপিত হতে যাচ্ছে মাতৃভাষা স্মৃতিস্তম্ভ!

টরন্টো, ১১ সেপ্টেম্বর- অবশেষে নগরীর বাঙালি অধ্যুষিত এলাকা ভিক্টোরিয়া পার্ক এবং ড্যানফোর্থের সন্নিকটে ডেন্টোনিয়া পার্কে স্থাপিত হতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস স্মৃতিস্তম্ভ। গত ১০ সেপ্টেম্বর স্থানীয় ঘরোয়া ক্লাসিক রেষ্টুরেন্টে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় এ সু-সংবাদটি জানালেন আইএমএলডির চেয়ারপার্সন ব্যারিষ্টার চয়নিকা দত্ত। তিনি আরও জানান, বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের আদলে (রেপ্লিকা) এটা নির্মাণ করা হবে। কমিউনিটির বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দের উপস্থিতি এবং সক্রিয় অংশগ্রহণের মাধ্যমে সভাটি ছিল প্রাণবন্ত। উপস্থিত সকলে এ উদ্যোগের প্রশংসা করে সর্বত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দেন। 
সভায় আরও জানানো হয়, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা স্মৃতিস্তম্ভটি নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে আনুমানিক দেড় লক্ষ ডলার। ইতিমধ্যে ৫০ হাজার ডলার তহবিল সংগ্রহ করা হয়েছে বাকি অর্থের জন্য বিশিষ্ট নারী উদ্যোক্তা নাহিদ আক্তারকে আহবায়ক করে আগামী ২২শে সেপ্টেম্বর একটি তহবিল সংগ্রহের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। উদ্যোক্তারা কমিউনিটির সকলের কাছে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়ার জন্য আহবান জানিয়েছেন।

মত বিনিময় সভায় বক্তাগণ বিভিন্ন পরামর্শ রেখেছেন, পাশাপাশি কেউ কেউ তাদের ক্ষোভও প্রকাশ করেছেন। পরামর্শগুলোর মধ্যে একটি কথা সবার কাছ থেকে এসেছে সেটা হলো- যেভাবেই হোক স্মৃতি স্তম্ভ করতেই হবে। ক্ষোভের মধ্যে ফুটে উঠেছে বর্তমান কমিটির নানান দৈন্যতা, কতিপয় পরিচালকদের হামবড়া ভাব, অসহযোগিতা, নাম ফাটানো ইত্যাদি। 
সভায় উপস্থিত কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তি এ প্রতিবেদককে বলেন, আন্তর্জাতিক স্মৃতিস্তম্ভের আয়োজক কমিটির মধ্যে কোন রাজনৈতিক ব্যক্তি থাকা সমীচীন নয়; নইলে পদে পদে আমাদের হোঁচট খেতে হবে। এছাড়া কমিটিতে এমন অনেক পরিচালকের নাম দেখা যাচ্ছে যাদের কোন গ্রহণযোগ্যতা টরন্টোর বাংলাদেশ কমিউনিটিতে নেই বলে তারা মনে করেন। সভায় উদ্যোক্তাদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দাতাদের নাম প্রকাশ করার প্রস্তাব উপস্থিত নেতৃবৃন্দ নাকচ করে দেন। 


মতবিনিময় সভায় কয়েকজন বক্তা সরাসরি আয়োজকদের প্রতি তাদের খেয়ালিপনার অভিযোগ তুলেছেন। এসব অভিযোগের মধ্যে ছিল (১) বিগত বছরগুলোতে যারা টরন্টোতে অস্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণ করে আসছিলেন তাদের কমিটিতে না রাখা; (২) মত বিনিময় সভায় কমিউনিটির সর্বস্তরের নেতৃবৃন্দকে আহবান না জানানো ইত্যাদি। বক্তাগণ যথাশীঘ্র কমিউনিটিতে যাদের অবদান রয়েছে এমনসব ব্যক্তিবর্গকে সম্মানজনক পদে আসীন করে কমিটি পুনর্গঠনের আহবান জানান। 
মতবিনিময় সভার শেষদিকে আওয়ামীলীগ কানাডার সহ সভাপতি সৈয়দ গফফার এবং টেষ্ট অব বাংলাদেশ এর উদ্যোক্তা রাসেল রহমান এর বিতন্ডা সভার গাম্ভীর্য নষ্ট করেছে বলে উপস্থিত নেতৃবৃন্দ ক্ষোভ প্রকাশ করে নিন্দা জ্ঞাপণ করেন। 

কানাডা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে