Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১১ নভেম্বর, ২০১৯ , ২৭ কার্তিক ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.1/5 (8 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৯-১১-২০১৯

শোভন-রাব্বানীকে সরানো হতে পারে শনিবার

শোভন-রাব্বানীকে সরানো হতে পারে শনিবার

ঢাকা, ১১ সেপ্টেম্বর- নানা অনিয়ম, বিতর্কিত কর্মকাণ্ড ও অভিযোগের পাহাড় জমেছে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানীর বিরুদ্ধে। একারণে খুব দ্রুত তাদের সরিয়ে দেয়া হতে পারে। আগামী শনিবার আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় শোভন-রাব্বানীর বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসতে পারে বলে জানিয়েছে একটি সূত্র।

জানা যায়, সম্প্রতি আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার ও সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের যৌথসভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে মূল এজেন্ডা ছিলো রংপুর-৩ আসনে উপনির্বাচন এবং কয়েকটি উপজেলা নির্বাচনের প্রার্থী চূড়ান্ত করা। কিন্তু সেখানে সবচেয়ে বেশি আলোচনা হয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে ঘিরে। একপর্যায়ে ছাত্রলীগের সাম্প্রতিক কর্মকাণ্ডে বিরক্তি প্রকাশ করে কমিটি ভেঙে দিতে বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই দুই নেতার বিরুদ্ধে বিতর্কিতদের কেন্দ্রীয় কমিটিতে জায়গা দেয়া, দুপুরের আগে ঘুম থেকে না ওঠা, অনৈতিক আর্থিক লেনদেন ইত্যাদি অভিযোগ এসেছে প্রধানমন্ত্রীর কাছে।

এদিকে গণভবন থেকে এমন খবরের পর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে দেখা করার চেষ্টা করেন শোভন-রাব্বানী। তবে সেই চেষ্টা সফল হয়নি। পরবর্তীতে নিজেদের মধ্যে দফায় দফায় বৈঠকে বসেন শোভন-রাব্বানী। পদ টিকেয়ে রাখতে যোগাযোগের চেষ্টা করেন দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের সাথে। তবে কোনো উপায় কাজে দেয়নি। সবশেষ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাস ভবন গণভবনে প্রবেশের পাসও বাতিল করা হয়।

আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা গেছে, এখন পর্যন্ত শোভন-রাব্বানীকে পদচ্যুতির বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো নির্দেশনা আসেনি। তবে আগামী শনিবার গণভবনে আসন্ন আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসতে পারে। ওই দিনই শোভন-রাব্বানীকে দলীয় পদ থেকে সরানোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে।

এ বিষয়ে ছাত্রলীগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলকে বলেন, তার (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) কাছে ক্ষুদ্ধ হওয়ার মতো কোনো তথ্য যেহেতু এসেছে এবং তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন, তাই এই জায়গাটায় কারো কোনো ধরণের ভিন্ন চিন্তা করার উপায় নেই।

শোভন-রাব্বানী প্রসঙ্গে জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, কমিটি পরিবর্তন প্রয়োজন কিনা কিংবা কাউন্সিল কবে দেবে, এই সিদ্ধান্তগুলো সর্বোচ্চ জায়গা থেকে আসবে। যারা দেখভালের দায়িত্বে আছেন আমরা বৈঠক করছি, সাধারণ সম্পাদকের সাথে বৈঠক করছি, আমরা আমাদের নেত্রীর সাথে সাক্ষাত করছি, দেখা করছি, কথা বলছি। আমরা অচিরেই আপনাদেরকে একটা সংবাদ দিতে পারবো।

আর/০৮:১৪/১১ সেপ্টেম্বর

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে