Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ , ৫ আশ্বিন ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৮-২৪-২০১৯

মেয়র বিদেশে, তাই মশকনিধন অভিযান বন্ধ!

শাহেদ শফিক


মেয়র বিদেশে, তাই মশকনিধন অভিযান বন্ধ!

ঢাকা, ২৪ আগস্ট- মশা নিধনে গত মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) চিরুনি অভিযান শুরু করে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। তবে মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম দেশের বাইরে থাকায় গত দুদিন ধরে এ অভিযান বন্ধ রয়েছে। যদিও সংস্থাটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, প্রতিদিন এ অভিযান চলবে।

গত বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) ডিএনসিসি মেয়র নেপাল গেছেন। সেন্ট্রাল জোন ভলিবল চ্যাম্পিয়নশিপ টুর্নামেন্টের সমাপনীতে যোগ দেওয়ার পর আজ শনিবার (২৪ আগস্ট) তার দেশে ফেরার কথা।

চিরুনি অভিযান শুরু করার বিষয়ে ডিএনসিসি থেকে বলা হয়, এডিস মশার লার্ভা নিধনে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। প্রাথমিকভাবে সংস্থাটির ১৯ নং ওয়ার্ডে অভিযান শুরু করা হয়। ডিএনসিসি মেয়র ও বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। তবে উদ্বোধনের দিনসহ তিন দিন চলার পর শুক্রবার (২৩ আগস্ট) থেকে অভিযান বন্ধ রয়েছে। যদিও শুক্র ও শনিবার সরকারি ছুটির দিন। তবে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের এ ছুটি বাতিল করেছে মন্ত্রণালয়।
গতকাল শুক্রবার ও আজ শনিবার সরেজমিনে ডিএনসিসির ১৯ নং ওয়ার্ডে গিয়ে মশকনিধন অভিযানের কাউকে দেখা যায়নি। একাধিক পরিচ্ছন্নতাকর্মী নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, তারা শুক্রবার ও শনিবার কাজ করেননি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ডিএনসিসির একজন শীর্ষ কর্মকর্তা এ প্রতিবেদককে বলেন, ‘বর্তমানে সব কর্মকর্তা-কর্মচারীর ছুটি বাতিল রয়েছে। সবাইকে ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবিলায় কাজ করার নির্দেশ রয়েছে।’

তিনি স্বীকার করেন, ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণের জন্য পরীক্ষামূলক কর্মসূচি (চিরুনি অভিযান) গতকাল ও আজ বন্ধ রয়েছে। কর্মীরা কাজ করেননি। মেয়র সাহেব দেশে থাকলে এই অভিযান বন্ধ রাখা যেতো না বলে মন্তব্য করেন তিনি।

জানতে চাইলে ডিএনসিসির প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোমিনুর রহমান মামুন এ প্রতিবেদককে বলেন, ‘আমরা ১৯ নং ওয়ার্ডে পাইলট প্রকল্প হিসেবে কাজ শুরু করি। আগামীকাল রবিবার (২৫ আগস্ট) থেকে একই স্টাইলে ৩৫টি ওয়ার্ডে কাজ শুরু হবে।’

দুদিন অভিযান না হওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘গতকালকের বিষয়ে আমি একটি জায়গা থেকে অভিযোগ শুনেছি। কিন্তু আমার কাছে অভিযান চালানোর বিষয়ে এমন কোনও নির্দেশনা ছিল না। কিন্তু আমি জানি, আমার কর্মীরা তো কাজ করেছেন। আর চিরুনি অভিযান তো আমরা শুধু একটি ওয়ার্ডেই করছি। আমি শুনেছি মেয়র সাহেবকে বলা হয়েছে, শুক্রবারটা একটু কর্মীদের রিলাক্স দেওয়ার জন্য। কিন্তু ফাইনালি কী হয়েছে, আমি জানি না।’ বিষয়টি সম্পর্কে খোঁজখবর নিয়ে তিনি কথা বলবেন বলে জানান।

তবে অভিযান শুরুর দিনই বাড়িমালিকদের একধরনের বাধার মুখে পড়ে ডিএনসিসি। বাড়ির দরজা বন্ধ, লিফটের ডিভাইস খুলে রাখা, ছাদে তালা দিয়ে দেওয়াসহ নানা কাণ্ড ঘটান তারা। মেয়র আতিকুল ইসলামও এমন অভিযোগের কথা স্বীকার করেন।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

আর/০৮:১৪/২৪ আগস্ট

ঢাকা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে