Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ , ১ আশ্বিন ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৮-২২-২০১৯

অন্য ফরম্যাটে জাতীয় দলে ফেরা নিয়ে যা ভাবছেন মুমিনুল

অন্য ফরম্যাটে জাতীয় দলে ফেরা নিয়ে যা ভাবছেন মুমিনুল

ঢাকা, ২২ আগস্ট - কে না চায় সব ফরম্যাটে জাতীয় দলে খেলতে? টেস্ট, ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টি তিন ফরম্যাটে জাতীয় দলে খেলার চেয়ে ভাল লাগার ও সুখের আর কি আছে? মুমিনুল হক সৌরভও সেটা চান। তবে চাইলেই তো আর হবে না। এজন্য সবার আগে দরকার পারফরমেন্স।

সেটা কি তিন ফরম্যাটে সমান ভাল খেলা? সৌম্য সরকার, লিটন দাস আর সাব্বির রহমান রুম্মনরা কি সমান ভাল খেলে তিন ফরম্যাটেই দলে জায়গা করে নিয়েছেন?

একটু খুঁটিয়ে দেখুন, আপনা আপনি উত্তর পেয়ে যাবেন। হয়তো একটি ফরম্যাটে একটু বেশি ভাল খেলেছেন। রান করেছেন। নামের পাশে সেঞ্চুরি, হাফ সেঞ্চুরি যোগ হয়েছে বেশ। তখন টিম ম্যানেজমেন্ট আর নির্বাচকদের কাছেও আস্থা বাড়ে। তারা ভাবেন, ‘আরে অমুক তো অমুক ফরম্যাটে বেশ ভাল খেললো। ধারাবাহিকভাবে রান করলো। তাহলে তাকে অন্য ফরম্যাটেও নেয়া যায়। হয়ত তাতেও সফল হবে।’

আসলে টিম ম্যানেজমেন্ট আর নির্বাচকরা কোন এক ফরম্যাটে রান করতে দেখলেই তাকে নিয়ে ভাবেন বেশি। তার প্রতি আস্থা বাড়ে। তার দিকে নজরটাও থাকে বেশি।

বাংলাদেশের ক্রিকেটের ইতিহালে এমন নজিরই বেশি। ফর্মে আর রানে থাকলে সেই ক্রিকেটারই বিবেচনায় থাকেন। সেই শাহরিয়ার নাফীস, জুনায়েদ সিদ্দিকী, নাজিমউদ্দীন, ইমরুল কায়েস, এনামুল হক বিজয়- সবার ক্ষেত্রেই এমনটা দেখা গেছে। কোন এক বিশেষ ফরম্যাটে ভাল খেলে রান করে বাকি ফরম্যাটেও দলে জায়গা পেয়েছেন।

মুমিনুল হকও তা খুব ভালই বোঝেন। জানেন। এ কারণেই আপাততঃ তার লক্ষ্য টেস্টে খুব ভাল খেলা। রান করা এবং পরিসংখ্যান তথা গড়টাকে খুব ওপরে নিয়ে যাওয়া। তার অনুভব তাহলেই সুযোগ আসবে অন্য ফরম্যাটেও।

এ কারণেই তার চোখ শুধুই বিপিএলের ওপর স্থির নয়। জানেন, বিপিএলে ভাল খেললে নজরে আসবেন। বিবেচনায়ও থাকবেন। তারপরও কক্সবাজারের পরিপাটি ব্যাটিং শৈলির বাঁ-হাতি উইলোবাজের মূল লক্ষ্য আগে টেস্টে খুব ভাল খেলা। রান করা এবং পরিসংখ্যানটাকে সমৃদ্ধ করা।

এ কারণেই মুখে এমন কথা, ‘না, আমি শুধু বিপিএল নিয়ে ওভাবে চিন্তা করছি না। আমার কাছে মনে হয়, টেস্ট ক্রিকেটে যদি আমি খুব ভালো গড় নিয়ে যাই বা বিপিএলে ভালো অবস্থান নিয়ে যাই, যদি ভালো করতে পারি তাহলে ভালো একটা সুযোগ আসবে।’

নতুন কোচের সঙ্গে সৌজণ্য বিনিময়, হাই-হ্যালো ছাড়া সে অর্থে কোন কথা হয়নি। স্কিল নিয়ে কোন কথা-বার্তাও হয়নি তার। ‘মাঠের টেকনিক্যাল কোনও বিষয়ে কথা হয়নি। হাই-হ্যালো হয়েছে শুধু। দেখা যাক, পরে কি হয়।’

আজ জাতীয় দলের অনুশীলনের পর শেরে বাংলায় উপস্থিত সাংবাদিকদের সাথে আলাপে কোচের কাছে তার কি প্রত্যাশা আর কোচ তার কাছে কি চান? প্রশ্ন করা হলে তা নিয়েও কথা বলেন মুমিনুল।

যেহেতু কোচ সবে কাজ শুরু করেছেন। কাজেই ওই ধরনের কথা বার্তা হয়নি। তবে মুমিনুলের ব্যাখ্যা, ‘এখনও ওভাবে চিন্তা-ভাবনা করিনি। হেড কোচ ডোমিঙ্গো যে পরামর্শ দেবেন, যেটা আমার জন্য দরকার সেটা নিবো। আমার যদি ভালো লাগে তাহলে ওভাবে নিবো। সবকিছু মিলে হয়তো ভালোই হবে।’

কোচ কি চাচ্ছে? তা নিয়ে বেশি মাথা না ঘামিয়ে মুমিনুল চান নিজের কাজটি ঠিকমত করতে। তার কথা, ‘কোচ কি চাচ্ছেন ওটা চিন্তা না করে নিজের কাজ ঠিকভাবে করলেই হয়। যেমন আপনি যদি ফিটনেসের দিক দিয়ে বা ব্যাটিং বোলিংয়ে ভালো করেন তাহলে দুনিয়ার যত ভালো কোচ হোক বা যত খারাপ কোচ হোক- আপনাকে এমনিতেই দলে নেবে।’

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ২২ আগস্ট

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে