Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ , ৩ আশ্বিন ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৮-২২-২০১৯

ঢাকায় আসছেন টাইটানিকের নায়ক ও ব্রাড পিট

ঢাকায় আসছেন টাইটানিকের নায়ক ও ব্রাড পিট

তাবৎ দুনিয়ার চলচ্চিত্রপ্রেমীরা কোয়েন্টিন টারান্টিনোর ছবি দেখার অপেক্ষায় থাকে। খ্যাতিমান এই পরিচালক সম্প্রতি পর্দায় নিয়ে এসেছেন হলিউড ইতিহাসের অন্যতম বিতর্কিত ও মর্মান্তিক এক ঘটনাকে। ষাটের দশকে সিরিয়াল কিলিংয়ের জন্য কুখ্যাত কাল্ট নেতা চার্লস ম্যানসন।

১৯৬৯ সালে চার্লস ও তার অনুসারীরা নির্বিচারে ৭ জনকে হত্যা করে সাড়া ফেলে দেয় যুক্তরাষ্ট্রে। হতভাগ্যদের একজন ছিলেন বিশ্বখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা রোমান পোলানস্কির অন্তঃসত্তা স্ত্রী শ্যারন টেইট। ম্যানসন ফ্যামিলি নামে পরিচিত তার অনুসারীরা রোমান পোলানস্কির স্ত্রী শ্যারন টেইটসহ ৫ জনকে ১৯৬৯ সালের ৯ আগস্ট ধারালো অস্ত্রের আঘাতে হত্যা করে।

পরদিন একই গোষ্ঠীর সদস্যরা লস অ্যাঞ্জেলেসের ধনাঢ্য দম্পতি লেনো ও রোজমেরি লাবিয়ানকাকেও হত্যা করে। মার্কিন ইতিহাসে এ দুটি হত্যাকান্ড টেইট-লাবিয়ানকা হত্যা মামলা নামে সুপরিচিত।

এই ঘটনা অবলম্বনে টারান্টিনো নির্মাণ করেছেন ‘ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন হলিউড’ নামের চলচ্চিত্র। ঘটনাটির ৫০ বছর পূর্তিতে গত ২৬ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রে ছবিটি মুক্তি পেয়েছে। আগামী ২৩ আগস্ট বাংলাদেশের স্টার সিনেপ্লেক্সে মুক্তি পাবে ছবিটি।

তবে হুবহু সেই সত্য ঘটনা নিয়েই ছবিটি নির্মিত হয়নি, সেটার সঙ্গে পরিচালক সংমিশ্রণ ঘটিয়েছেন কল্পনারও। রিক ডাল্টন নামের একজন নিজেকে হারিয়ে খোঁজা অভিনেতা এবং তার বন্ধু ক্লিফ বুথের সংগ্রাম নিয়ে এগিয়েছে গল্প। শ্যারন টেইট ছিলেন রিক ডাল্টনের প্রতিবেশী। না চাইতেও তাই রিক ও ক্লিফকে জড়িয়ে পড়তে হয় এই হত্যাকান্ডের ঘটনাপ্রবাহে।

কমেডি ও থ্রিলারের মিশ্রণে নির্মিত চলচ্চিত্রটির প্রধান দুই চরিত্র রিক ও লিফের ভূমিকায় দেখা যাবে লিওনার্দো ডিক্যাপ্রিও এবং ব্র্যাড পিটকে। শ্যারন টেইটের চরিত্র করছেন মার্গট রবি।

২০১৫ সালে কোয়েন্টিন টারান্টিনোর ‘দ্য হেইটফুল এইট’ মুক্তির পর থেকে দর্শক-সমালোচকরা অপেক্ষায় ছিলেন তার পরবর্তী চলচ্চিত্রের। এরই মধ্যে পরিচালক জানান, আর মাত্র দুটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করেই অবসরে যাচ্ছেন তিনি। তাই ‘ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন হলিউড’ নির্মাণের ঘোষণা আসার পর থেকেই বিনোদন পত্রিকাগুলোর শিরোনামে। প্রধান কারণ অবশ্যই চলচ্চিত্রটির বিষয়বস্তু।

তবে ছবির অন্যতম আকর্ষণ ডিক্যাপ্রিও-ব্র্যাড পিট জুটি। স্বয়ং পরিচালক বলেছেন, এই জুটি পল নিউম্যান ও রবার্ট রেডফোর্ডের পর হলিউডের সবচেয়ে আকর্ষণীয় জুটি হতে চলেছে। এ দুই তারকা আগে টারান্টিনোর চলচ্চিত্রে অভিনয় করলেও একসঙ্গে কখনোই বড় পর্দায় আসেননি। চিত্রায়ণ শুরুর পর থেকে দুজনের রসায়ন সবার মুখে মুখে ফিরছে।

কান চলচ্চিত্র উৎসবে তো দুই তারকা একত্রেই জানিয়েছেন, আবারও বড় পর্দায় একত্রে অভিনয় করতে চান তারা। কান উৎসবে দর্শকদের প্রবল প্রশংসায় ভেসেছে চলচ্চিত্রটি। প্রদর্শনী শেষ হওয়ার পর তো দর্শকরা টানা ৭ মিনিট দাঁড়িয়ে হাততালি দিয়ে সম্মান জানিয়েছে পরিচালককে।

এন এইচ, ২২ আগস্ট

হলিউড

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে