Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৯ , ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (14 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)


আপডেট : ০৮-১৭-২০১৯

কাঁঠালবাড়ী ঘাটে যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড়

কাঁঠালবাড়ী ঘাটে যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড়

মাদারীপুর , ১৭ আগস্ট- আগামীকাল রোববার থেকে শুরু হচ্ছে কর্মদিবস। ইতোমধ্যেই শেষ হয়েছে ঈদের ছুটি। ঈদের লম্বা ছুটি কাটিয়ে কর্মস্থলে যোগ দিতে রাজধানীতে ফিরতে শুরু করেছে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মানুষ। শনিবার সকাল থেকেই শিবচরের কাঁঠালবাড়ী ঘাটে রয়েছে যাত্রীদের ভিড়। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বেড়ে চলেছে রাজধানীমুখো যাত্রীদের সংখ্যা। লঞ্চ, স্পিডবোট ও ফেরিতে করে পদ্মা পার হচ্ছেন যাত্রীরা।

শনিবার ভোরের আলো ফোটার আগে বেশ কিছুক্ষণ বৃষ্টি ছিল। তবে সকাল থেকে বৃষ্টি না হলেও আকাশ মেঘলা রয়েছে। সেই সঙ্গে হালকা বাতাসও বইছে।

দ্রুত পদ্মা পার হতে স্পিডবোটে যাত্রীদের ভিড় দেখা গেছে। তবে শৃঙ্খলা বজায় রাখতে স্পিডবোট ঘাটে পুলিশের টিম সার্বক্ষণিক মনিটরিং করছে।

টানা বেশ কিছুদিন বাড়িতে থেকে ঢাকায় ফিরতে মন টানছে না এমন অভিমত ব্যক্ত করে গোপালগঞ্জ থেকে আসা যাত্রী মাসুদ বলেন, ঈদের ছুটিতে বেশকিছু দিন বাড়িতে ছিলাম। কেন যেন যেতে ইচ্ছা করছে না। মন চাইছে আরও কিছুদিন থাকি! কিন্তু কালকে কাজে যোগ দিতে হবে। যাওয়া ছাড়া উপায় নেই।

তিনি বলেন, বাড়ি থেকে খুব ভোরে রওনা দিয়েছি। যাতে ভিড় বাড়ার আগেই পদ্মা পার হতে পারি। কিন্তু ঘাটে এসে দেখি প্রচণ্ড ভিড়।

তবে স্পিডবোটে বাড়তি ভাড়া নেয়া হচ্ছে অভিযোগ করে অনেকে বলেন, ২শ টাকা করে স্পিডবোটে নিচ্ছে। অথচ আগে ছিল দেড়শ টাকা। তবে মূল ভাড়া ১৩০ টাকা। সারা বছরই ভাড়া বেশি নেয়। আর ঈদ এলে আরও বেশি।

বিআইডব্লিউটিসির কাঁঠালবাড়ী ঘাট সূত্র জানায়, সকাল থেকে আবহাওয়া ভালো থাকায় নৌ-চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। ৮৭টি লঞ্চ, ১৭টি ফেরি ও ২ শতাধিক স্পিডবোট চলছে।

লঞ্চঘাট সূত্র জানায়, সকাল থেকেই লঞ্চে যাত্রীদের প্রচণ্ড ভিড় রয়েছে। ধারণক্ষমতা অনুযায়ী যাত্রীদের পার করা হচ্ছে।

অপরদিকে কাঁঠালবাড়ী ফেরিঘাট সূত্র জানিয়েছে, সকাল থেকেই ঘাট এলাকায় ব্যক্তিগত গাড়ির বেশ চাপ রয়েছে। তবে সবকটি ফেরি চলাচল করায় তেমন সমস্যা হচ্ছে না।

শিবচর উপজেলা প্রশাসন সূত্র জানিয়েছে, ঈদ শেষে কর্মস্থলে ফেরা যাত্রীদের কাঁঠালবাড়ী ঘাটে নির্বিঘ্নে পারাপার নিশ্চিত করতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। পুলিশ, র‌্যাব, আনসার, ভ্রাম্যমাণ আদালতের টিম ও স্বেচ্ছাসেবকরা কাজ করছেন।

বিআইডব্লিউটিএর কাঁঠালবাড়ী লঞ্চঘাটের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর আক্তার হোসেন জানান, নদী শান্ত থাকায় লঞ্চ ও স্পিডবোটে যাত্রীদের ভিড় সকাল থেকেই বেশি। নৌরুটে সকল নৌযান চলাচল স্বাভাবিক থাকায় যাত্রীরা স্বাচ্ছন্দ্যে পার হতে পারছে।

সূত্র: জাগো নিউজ২৪
এনইউ / ১৭ আগস্ট

মাদারীপুর

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে