Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বুধবার, ২১ আগস্ট, ২০১৯ , ৬ ভাদ্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 2.7/5 (6 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৮-০৬-২০১৯

অর্থমন্ত্রীর মেয়ে সেজে ব্যবসায়ীর কাছে মোটরসাইকেল দাবি!

অর্থমন্ত্রীর মেয়ে সেজে ব্যবসায়ীর কাছে মোটরসাইকেল দাবি!

কুষ্টিয়া, ০৭ আগস্ট- অর্থমন্ত্রীর মেয়ে নাফিসা কামালের নামে একটি ভুয়া ফেসবুক আইডি খুলে এক ব্যবসায়ীকে প্রতারণার অভিযোগে আশিকুল ইসলাম (২৭) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার সন্ধায় কুষ্টিয়া শহরের বড়বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার আশিকুল তার স্ত্রীকে নাফিসা কামাল সাজিয়ে ওই ব্যবসায়ীর সঙ্গে ম্যাসেঞ্জারে কথা বলাতো বলে অভিযোগ রয়েছে।

পুলিশ জানায়, অভিযুক্ত আশিকুল ইসলাম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন সময়ে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিল। এসব কাজে তিনি তার স্ত্রীকে ব্যবহার করেছেন।

সম্প্রতি আশিক তার মোবাইল ফোনে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামালের মেয়ে নাফিসা কামালের নামে একটি ফেসবুক আইডি খোলেন বলে প্রমাণ পেয়েছেন কুষ্টিয়া পুলিশ।

পুলিশের অভিযোগ, ওই আইডি থেকে নিজের স্ত্রীর মাধ্যমে কুষ্টিয়া শহরের অন্যতম ব্যবসায়ী অজয় সুরেকাকে প্রতারণার ফাঁদে ফেলার চেষ্টা করেছিল আশিকুল।

প্রথম অর্থমন্ত্রীর মেয়ে সেজে ব্যবসায়ী অজয় সুরেকারের সঙ্গে বন্ধুত্ব গড়ে তোলে আশিকুলের স্ত্রী ফারহানা ফারদিন পপি।

বন্ধুত্বের এক পর্যায়ে রূপপুর পারমানবিক কেন্দ্রে একটি ঠিকাদারী কাজ দেবার কথা বলে সখ্যতা গড়ে তোলেন পপি।

আশিকের সঙ্গে সবসময় যোগাযোগ রাখলে এবং তাকে সহযোগিতা করলে ঠিকাদারী কাজটি মিলবে বলে অজয়কে জানায় পপি।

এ সময় আশিকের সঙ্গে অজয় সুরেকা দেখা করলে কয়েকটি মোটরসাইকেল লাগবে বলে জানায় আশিক।

বিষয়টিকে বিশ্বাসযোগ্য করতে আশিক তার স্ত্রীকে নাফিসা কামাল সাজিয়ে ফেসবুক ম্যাসেঞ্জার ও মোবাইল ফোনে কথা বলিয়ে দেয়।

কিন্তু বিষয়টি অজয় সুরেকার সন্দেহ হলে পুলিশকে জানান তিনি।

মঙ্গলবার সন্ধায় আশিক বড়বাজার এলাকায় অজয় সুরেকার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এলে পরিকল্পনা মতো পুলিশ গিয়ে আশিককে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে যায়।

ফেসবুকে প্রতারণা করার বিষয়টি স্বীকার করে থানায় আশিক সাংবাদিকদের বলেন, অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে কোনো সম্পর্ক নেই তার। অর্থমন্ত্রীর মেয়েকে তিনি কোনোদিন সরাসরি দেখেননি এবং তাদের কেউ তাকে চেনেনও না। নিজের স্ত্রীকে অর্থমন্ত্রীর মেয়ে সাজিয়ে প্রতারণার ফাঁদ ফেলেছিলেন তিনি।

এ বিষয়ে কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসির উদ্দিন বলেন, আশিক তার ফেসবুকে এবং নাফিসা কামালের ভুয়া আইডি খুলে দেশের বড় বড় ব্যবসায়ী ও রাজনীতিবিদদের ছবি দিয়ে থাকে। যাতে যে কেউ সহজে তাকে বিশ্বাস করতে পারে।

ওসি জানান, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আশিকুলের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আজ বুধবার তাকে কুষ্টিয়া আদালতে নেয়া হবে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গ্রেফতার আশিকুল ইসলাম কুষ্টিয়া মিরপুর উপজেলার রানাখড়িয়া এলাকার আবদুস সাত্তারের ছেলে। দুই বছর আগে কুষ্টিয়ার কুঠিপাড়ার সিরাজুল ইসলামের মেয়ে ফারহানা ফারদিন পপিকে বিয়ে করেন তিনি।

উচ্চ মাধ্যমিক পাস করে আশিকুল ইসলাম তার দুসম্পর্কের চাচা তালবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নানের বালুমহালে চাকরি করেন।

সূত্র: যুগান্তর

আর/০৮:১৪/০৭ আগস্ট

অপরাধ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে