Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, সোমবার, ১৪ অক্টোবর, ২০১৯ , ২৯ আশ্বিন ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.0/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৮-০৫-২০১৯

যৌতুকের জন্য গৃহবধূ হত্যা, টাঙ্গাইলে স্বামীসহ ২ জনের মৃত্যুদণ্ড

যৌতুকের জন্য গৃহবধূ হত্যা, টাঙ্গাইলে স্বামীসহ ২ জনের মৃত্যুদণ্ড

টাঙ্গাইল, ০৫ আগস্ট - টাঙ্গাইলে সাত বছর আগে যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে হত্যার দায়ে বরখাস্ত পুলিশ কনস্টেবল স্বামীসহ দুইজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত।

সোমবার টাঙ্গাইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক খালেদা ইয়াসমিন এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডিতরা হলেন- কালিহাতী উপজেলার হিন্নাইপাড়া গ্রামের আবু হানিফের ছেলে আব্দুল আলীম ওরফে সুমন (৩২) ও তার বন্ধু একই গ্রামের আবুল হাশেমের ছেলে শামীম আল মামুন (২৯)।

রায় ঘোষণার সময় তারা আদালতের কারাগারে উপস্থিত ছিলেন।

মৃত্যুদণ্ডের পাশাপাশি বিচারক তাদের এক লাখ টাকা করে অর্থদণ্ডও দিয়েছেন।

আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী একেএম নাছিমুল আক্তার মামলার বরাতে বলেন, আব্দুল আলীম গাজীপুর শিল্প পুলিশের কনস্টেবল থাকাকালীন ২০১১ সালের ৬ মে টাঙ্গাইল সদর উপজেলার ফলিয়ারঘোনা গ্রামের সুলতান আহমেদের মেয়ে সুমি আক্তারকে বিয়ে করেন।

বিয়ের সময় আলীমকে পাঁচ লাখ টাকা যৌতুক দেওয়ার কথা থাকলেও সুমির বাবা তিন লাখ টাকা পরিশোধ করেছিলেন। পরে যৌতুকের বাকি টাকার দাবিতে আলীম প্রায়ই সুমিকে নির্যাতন করতেন। এক পর্যায়ে আলীম তার স্ত্রীকে বাবার বাড়ি পাঠিয়ে দেন।

২০১২ সালের ২০ এপ্রিল বঙ্গবন্ধু সেতু এলাকায় ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে সুমিকে তার বাবার বাড়ি থেকে নিয়ে যায় আলীম। পরে সুমিকে ঢাকার তুরাগ থানার বেড়িবাঁধ এলাকায় নিয়ে অপর আসামি শামীমের সহায়তায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে হত্যা করে।

এ ঘটনায় আলীমকে গ্রেপ্তার করা হলে তিনি আদালতে জবানবন্দি দেন। পরে আলীমকে পুলিশ কনস্টেবল পদ থেকে বরখাস্ত করা হয।

পরে সুমির মা বাদী হয়ে টাঙ্গাইল সদর থানায় দুইজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

তদন্ত শেষে কালীহাতি থানার তৎকালীন এসআই নাসির উদ্দিন তালুকদার ২০১২ সালের ৮ অগাস্ট আদালতে অভিযোগপত্র দিলে এ মামলার বিচার শুরু করে আদালত।

সূত্র : বিডিনিউজ
এন এইচ, ০৫ আগস্ট.

টাঙ্গাইল

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে