Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, বৃহস্পতিবার, ২৩ জানুয়ারি, ২০২০ , ১০ মাঘ ১৪২৬

গড় রেটিং: 3.2/5 (19 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৯-২৯-২০১৩

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে আজও নির্মিত হয়নি বুরুঙ্গা সেতু


	ময়মনসিংহের গৌরীপুরে আজও নির্মিত হয়নি বুরুঙ্গা সেতু

ময়মনসিংহ, ২৮ সেপ্টেম্বর- ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার বুরুঙ্গা নদীর উপর একটি সেতুর অভাবে ২০টি গ্রামের প্রায় কয়েক হাজার মানুষকে নদী পারাপার হতে গিয়ে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। স্বাধীনতার পর থেকে প্রতিবার জাতীয় সংসদ ও স্থানীয় সরকার নির্বাচনে নেতারা এখানে সেতু নির্মাণের প্রতিশ্র“তি দিলেও এখন পর্যন্ত কেউই তা বাস্তবায়ন করতে পারেনি। ফলে সেতু নির্মাণের দাবিতে বর্তমান মহাজোট সরকার ও স্থানীয় সাংসদ স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রীর উপর দিন দিন এলাকাবাসীর ক্ষোভ বৃদ্ধি পাচ্ছে।
সরজমিনে ঘুরে দেখা গেছে যে, গৌরীপুর উপজেলার ৩নং অচিন্তপুর ও ৫নং সহনাঠি ইউনিয়নের ভেতর দিয়ে বয়ে গেছে এ বুরুঙ্গা নদী। কিন্তু নদীর উপর কোনো সেতু নির্মান না হওয়ায় এই দুই ইউনিয়নের- গোপীনাথপুর, খালিয়াজুরী, খয়রা, ছিলীমপুর, ভালুকাপুর, বাইরাকান্দা, বহেরাতলাসহ অত্র অঞ্চলের প্রায় ২০টি গ্রামের কয়েক হাজার মানুষের নদী পারাপারের একমাত্র ভরসা হচ্ছে নৌকা। তাই প্রতিদিন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নৌকা দিয়ে অত্র অঞ্চলের স্কুল, কলেজের শির্ক্ষাথী, ব্যাবসায়ী, কৃষক, শ্রমিক সহ নানা পেশাজীবি মানুষ তাদের গন্তব্যস্থলে যাতায়াত করে এবং নদী পারপার হতে গিয়ে প্রায়ই দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে। এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা গেছে, নদীর দক্ষিণ পাড়ে ভালুকাপুর গ্রামে ১টি উচ্চ বিদ্যালয় ও ১টি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মোড়ের বাজার নামে রয়েছে ১টি বাজার। এজন্য উভয় পাড়ের মানুষকে নানা প্রয়োজনে প্রতিদিন নিজে নৌকা বেয়ে জীবনের ঝুকি নিয়ে চলাচল করতে হয়। শুকনো মৌসুমে যাতায়াতে কষ্ট কম হলেও বর্ষার সময় নদীতে পানি বেশী থাকায় অত্র অঞ্চলের লোকজনের নদী পার হতে চরম দূর্ভোগ পোহাতে হয়। সেতু নির্মান না হওয়ায় নদীর উত্তর পাড়ের শির্ক্ষাথীরা ৫/৬ কিলোমিটার দূরে শাহগঞ্জ স্কুল এন্ড কলেজে গিয়ে পড়াশোনা করে। তাছাড়া প্রায় ১৫ কিলোমিটার দূরে গৌরীপুর হাসপাতালে মূমূর্ষ রোগীদের চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়ার প্রয়োজন হলে এ নদীটির কারণেই রোগী আরো ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ে।
এলাকবাসীর সাথে কথা জানা গেছে, নদীর দুই পাড়ের মানুষের কয়েক যুগের দাবি এ সেতু। স্বাধীনতার পর থেকে দীর্ঘ এ ৪২ বছরের মধ্যে বিভিন্ন সরকারের সাংসদ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা বুরুঙ্গা নদীর উপর সেঁতু নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দিয়ে আসলেও এখন পর্যন্ত কার্যকর হয়নি। সর্বশেষ ২০০৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক নিয়ে ডা. ক্যাপ্টেন (অব.) মজিবুর রহমান ফকির বিপুল ভোটের ব্যাবধানে বিজয়ী হয়ে সরকারের মন্ত্রী সভায় স্থান করে নেন। পরবর্তীতে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আলী আহাম্মদ খান পাঠান সেলভী উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তাদের উভয়ের প্রতিশ্রুতি ছিল এ সেতু নির্মাণ। সর্বশেষ ২০১৩ সালের ৩০শে জানুয়য়ারি উপজেলার অচিন্তপুর ইউনিয়নের শাহগঞ্জ স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে আয়োজিত এক আঞ্চলিক জনসভায় স্বাস্থ্য ও পরিবার  কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. ক্যাপ্টেন (অব.) মজিবুর রহমান ফকির এমপি বুরুঙ্গা নদীর উপর সেতু নির্মানের ঘোষনা দেন। এরপর প্রাথমিক কাজ শুরু হয়েছিল। নদীর উপর সেতু নির্মানের জায়গা পরিমাপ ও মাটি পরীক্ষা হয়েছিলো। কিন্তু হঠাৎ বন্ধ হয়ে গেলো। কেন বন্ধ হল তা বলতে জানতে পারেনি এলাকাবাসী।
ভালুকাপুর গ্রামের বাসিন্দা আব্দূল মতিন ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ভোটের সময় খালি আমরার এনো আইয়্যা কয় পূল কইর‌্যা দিবো, হুনতে হুততে বুড়া অইয়্যা গেলাম পুল আর অইলোনা।
সেতু নির্মানের বিষয়টি স্থানীয় সংসদ সদস্যের নির্বাচনী অঙ্গীকার থাকলেও সরকারের এ শেষ সময়ের কাছাকাছি এসে সেতুটি নির্মান হবে কিনা সে বিষয়ে অনেকেই সন্দিহান। তবে স্থানীয় রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করছেন, জনপ্রতিনিধিদের অনেক প্রতিশ্রুতি ও আশ্বাসের পরেও  বুুরুঙ্গা নদীর উপর সেতু নির্মিত না হওয়ায় আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটের রাজনীতিতে এর যথেষ্ঠ প্রভাব পড়তে পারে।
এদিকে সেতু নির্মানের বিষয়টি জানতে চাইলে অচিন্তপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আহাম্মদ উল্লাহ জানান, বুরুঙ্গার উপর সেতু নির্মান বিষয়টি অত্র অঞ্চলের মানুষের দীর্ঘদিনের একটি দাবি। মাননীয় স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী সেতু নির্মানের বিষয়ে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, এ বিষয়ে কয়েকটি মিঠিংও হয়েছে। কিন্তুু কী কারনে সেতু নির্মানের বিষয়টি ঝুলে আছে সে ব্যাপারে আমি অবগত নই।
সেতু নির্মানের বিষয়ে জানতে চাইলে গৌরীপুর উপজেলা পষিদের চেয়ারম্যান আলী আহাম্মদ খান পাঠান সেলভী জানান, বুরুঙ্গার উপর সেতু নির্মানের বিষয়টি স্থানীয় সংসদ সদস্যের নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি ছিলো। কিন্তু কি কারনে সেতু নির্মান হচ্ছেনা এ বিষয়টি তিনিই ভালো জানেন। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সেতুর বিষয়টি ভোটের রাজনীতিতে প্রভাব ফেলতে পারে কিনা এমন এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যেহেতু বুরুঙ্গার উপর দিয়ে চলাচলের জন্য আশ পাশে বিকল্প পদ্ধতি আছে তাই মনে হয়না ভোটের রাজনীতিতে এটা বড় রকম কোনো প্রভাব ফেলতে পারবে।

ময়মনসিংহ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে