Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শনিবার, ১৭ আগস্ট, ২০১৯ , ২ ভাদ্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-২০-২০১৯

যে কারণে নিজেকে যোগ্য মনে করেন সুজন

যে কারণে নিজেকে যোগ্য মনে করেন সুজন

ঢাকা, ২০ জুলাই- বিশ্বকাপের পর থেকেই কোচ নেই বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। সেই খালেদ মাহমুদ সুজনের ভারপ্রাপ্ত কোচিংয়েই টাইগাররা যাবে শ্রীলঙ্কা সফরে। দ্বিতীয়বারের মতো অস্থায়ী ভিত্তিতে বাংলাদেশ দলের দায়িত্ব পেয়েছেন খালেদ মাহমুদ। এর আগে থেকেই তিনি মিডিয়ার কাছে বলেছিলেন, ভারপ্রাপ্ত কোচ নয়; জাতীয় দলের স্থায়ী কোচ হতে চান তিনি। তবে একদিন আগে জানিয়েছেন, বোর্ড প্রধানের নির্দেশেই আপাতত তার প্রধান কোচ হওয়া হচ্ছে না। তবে কেন তিনি নিজেকে জাতীয় দলের প্রধান কোচ হওয়ার যোগ্য মনে করেন- এমন প্রশ্নের সরাসরি উত্তরই দিয়েছেন সুজন।

সংবাদ সম্মেলনে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, 'আমি নিজেকে যোগ্য মনে করি। আমি কতটুকু যোগ্য জানি না। তবে আমি মনে করি, এটা কোনো রকেট সায়েন্স নয়। অন্য কোচরা বলেন, আমরা লেভেল থ্রি-ফোর করেছি। আমিও ২০০৬-০৭ সালে তা করেছি। আর করে বসে ছিলাম, তাও নয়। মাঠে কাজ করেছি। ক্রিকেটের কৌশলগুলো তো সবারই একরকম। স্কয়ার কাট সবাই একভাবেই মারে বা ইনসুইং-আউট সুইং একই রকম থাকে। এটা নির্ধারিত বিষয়।'

শুধু তাই নয়; বিদেশি কোচের চেয়েও নিজেকে যোগ্য মনে করার কারণও ব্যখ্যা করেন তিনি, 'যেহেতু আমি এ দেশে বড় হয়েছি, এই খেলোয়াড়দের সঙ্গে খেলেছি, মাঠে আমার জন্য পরিকল্পনা সাজানো অনেক সহজ হবে। আমি একেকজনের মানসিকতা খুব তাড়াতাড়ি বুঝতে পারি। ক্রিকেট অনেকটা মানসিক খেলা। ১১টা মানুষকে মাঠে এক করা, টিম স্পিরিট তৈরি করে ম্যাচ জেতানোর ব্যাপার থাকে। তো সেটার জন্য মনে করি যে আমি পারি। আমার জন্য সহজ হয়। একটা নতুন কোচ আসলে যেটা হয় একটা টিমকে চেনা, নতুন খেলোয়াড়কে চেনা-বোঝা—এটা করতে করতে অনেক সময় চলে যায়। সেটা আমার লাগবে না। জুনিয়র যেসব খেলোয়াড় আছেন, তাদের সবার সঙ্গেই আমি কাজ করে অভ্যস্ত।'

দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটে নিজের অবদান নিয়ে সুজন বলেন, 'ক্যারিয়ার ১৪-১৫ বছর হয়ে গেছে। বিভিন্ন বড় দলের সঙ্গে কাজ করেছি। প্রিমিয়ার লিগটা যদি ওভাবে না ধরি, বিপিএলে ৫ বছর ধরে প্রধান কোচ হিসেবে কাজ করছি। চিটাগংয়ে ছিলাম। পরে ঢাকা ডায়নামাইটসে কাজ করছি। সুতরাং আমার তো অভিজ্ঞতা আছে কোচিংয়ের। আর আমি তো বললাম, এটা কোনো রকেট সায়েন্স নয়। আমার ক্রিকেটে হাতেখড়ি ১৩ বছর বয়স থেকে। ক্রিকেটের সঙ্গেই আছি, নানা ধরনের কোচের সঙ্গে কাজ করেছি। কারা কী করতে চায়, কীভাবে টিম হ্যান্ডেল করে—সবকিছু মিলিয়ে ক্রিকেটের ব্যাপারে আমি কতটুকু ইচ্ছুক। সবকিছু মিলিয়ে ক্রিকেটের ব্যাপারে আমি খুবই আগ্রহী।' 

এনইউ / ২০ জুলাই

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে