Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৯ , ৮ ভাদ্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-১৬-২০১৯

অভাবের তাড়নায় ৫ হাজার টাকায় নবজাতককে বিক্রি করলেন মা

অভাবের তাড়নায় ৫ হাজার টাকায় নবজাতককে বিক্রি করলেন মা

পিরোজপুর, ১৬ জুলাই- অভাবের তাড়না সইতে না পেরে মাত্র পাঁচ হাজার টাকায় নিজের নবজাতক সন্তানটিকে বিক্রি করে দেন ছয় সন্তানের মা সেলিনা বেগম (৩২)। হৃদয়বিদারক এই ঘটনাটি ঘটেছে পিরোজপুর জেলা হাসপাতালে।

রোববার (১৪ জুলাই) রাতে সন্তান বিক্রির এ ঘটনা ঘটলে মঙ্গলবার তা জানাজানি হয়। পড়ে এই ঘটনা সেখানে ‘টক অব দ্যা টাউনে’ পরিণত হয়।নবজাতককে হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সন্তানকে যখন কোল থেকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল, দারিদ্রের নির্মম কষাঘাতে পর্যুদস্ত ছয় সন্তানের মা তখন দিশেহারা হয়ে পড়েন। সেই রাতেই হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান ওই মা।

হাসপাতাল সূত্র জানিয়েছে, বাগেরহাট জেলার অধিবাসী স্বামী পরিত্যক্তা ৬ সন্তানের জননী সেলিনা প্রসববেদনা নিয়ে রোববার দুপুরে পিরোজপুর জেলা হাসপাতালে ভর্তি হন। ওই দিন রাতেই হাসপাতালে তিনি একটি কন্যা সন্তান প্রসব করেন।

হাসপাতালের শয্যায় মা সেলিনা বেগমের সঙ্গে পরিচয় হয় অপর শয্যার চিকিৎসাধীন এক রোগী পরিবারের।

চরম দরিদ্রের মধ্যে বাস করা সেলিনা তার ছয় কন্যা সন্তান নিয়ে অর্ধাহারে-অনাহারে সংসার জীবন পার করার মধ্যে পুনরায় আর এক নবজাতক সন্তান কোলে আসার সমস্যা তুলে ধরেন ওই পরিবারটির কাছে।

ওই পরিবারের এক কন্যা নিঃসন্তান থাকায় তারা ওই নবজাতককে ক্রয় করার আগ্রহ প্রকাশ করেন।

পরে পাঁচ হাজার টাকায় সন্তান বিক্রি করতে সম্মত হন সেলিনা বেগম। তিনি নগদ পাঁচ হাজার টাকা হাতে পেয়ে মহিলা ওয়ার্ড থেকে গোপনে রাতেই পালিয়ে যান। 

এবিষয়ে পিরোজপুরের সিভিল সার্জন ডা. ফারুক আলম সাংবাদিকদের জানান, হাসপাতালে সদ্য ভূমিষ্ঠ এক বাচ্চা রেখে চলে গেছেন একজন মা, এ খবর জানতে পেরে আমি পুলিশ ও সমাজসেবা কর্মকর্তাকে বিষয়টি অবহিত করি।

জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোল্লা আজাদ হোসেন জানান, বাচ্চা বিক্রয় হওয়ার অভিযোগ শুনে পুলিশ নবজাতককে হেফাজতে নিয়েছে।

সূত্র: গো নিউজ২৪
এনইউ / ১৬ জুলাই

পিরোজপুর

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে