Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৯ , ৩ ভাদ্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-১৫-২০১৯

‘বাউন্ডারি বিধান’ মানতে পারছেন না উইলিয়ামসন

‘বাউন্ডারি বিধান’ মানতে পারছেন না উইলিয়ামসন

লন্ডন, ১৬ জুলাই- নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে স্কোর সমান। নিউজিল্যান্ড ২৪১, ইংল্যান্ডও ২৪১। পরে সুপার ওভারেও স্কোর সমান ১৫ করে।

রোববার লর্ডসের চরম নাটকীয় বিশ্বকাপের ফাইনালের নিষ্পত্তি হয়েছে বাউন্ডারি আইনে। মূল ম্যাচ ও সুপার ওভার মিলিয়ে বেশি বাউন্ডারি মারায় প্রথমবারের মতো বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড।

বিজয়ী ইংলিশদের কাছে নিশ্চয় ‘বাউন্ডারি আইন’টা খুব মিষ্টি লাগছে। কিন্তু, পরাজিত নিউজিল্যান্ডের কাছে?

বাউন্ডারি আইনটা এতটাই তিতা লাগছে যে, কিছুতেই তা গিলতে পারছেন না কিউইরা। কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন সরাসরি বলেও দিয়েছেন, ‘বাউন্ডারি বিধান’টা গিলতে পারছেন না তিনি!

গিলতে পারছেন না। তার মানে কিন্তু এই নয় যে, কিউই অধিনায়ক আইসিসির এই বিধান নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। তিনি প্রশ্ন তুলেননি। পরে বিতর্ক শুরু হয়ে যেতে পারে, সেটা ভেবে আগেই বলে রেখেছেন, বাউন্ডারির বিধান নিয়ে তার কোনো অভিযোগ নেই। তাহলে?

আসলে বিশ্বকাপের ফাইনালে দু’দল সমানে সমানে লড়াইয়ের পর এক দল স্রেফ ম্যাচে বেশি বাউন্ডারি মারায় বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন, আরেক দলের স্বপ্ন ভেঙে খানখান, এই ভাবনাটাই কষ্ট দিচ্ছে উইলিয়ামসনকে।

বাউন্ডারি আইনে বিশ্বকাপের ফাইনাল নিষ্পত্তি মানে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন নির্ধারণ কতটা যৌক্তিক, এমন প্রশ্নের উত্তরেই উইলিয়ামসন বলেছেন, ‘আমার মনে হয়, আপনি কখনোই ভাবেননি, আপনাকে এমন প্রশ্ন করতে হবে। আমিও কখনো ভাবিনি আমাকে এমন প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। তবে হ্যাঁ, আবেগের বিষয়টি তো আছেই। আবেগের দিক থেকে বলতে হয়, এটা গেলাটা সত্যিই খুব কঠিন। বিশেষ করে দু’দলই যখন খুবই কঠিন পরিশ্রম করে, সেই মুহূর্তে এটা গেলাটা কঠিন।’

বিতর্কের ভয়ে উইলিয়ামসন সরাসরি প্রশ্ন না তুললেও অদ্ভূত বাউন্ডারি আইন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিশ্বের অনেক সাবেক ক্রিকেটার এবং সাংবাদিকই।

অস্ট্রেলিয়ার সাবেক স্পিনার শেন ওয়ার্ন থেকে শুরু করে ভারতের সাবেক ক্রিকেটার যুবরাজ সিং, গৌতম গম্ভীর, ক্রিকেট পরিসংখ্যানবিদ ও সাংবাদিক রজনীশ গুপ্ত, ক্রিকেট সাংবাদিক ব্রেইডন কভারডেল, অস্ট্রেলিয়ার সাবেক পেসার ব্রেট লি, অস্ট্রেলিয়ার আরেক সাবেক ক্রিকেটার ডিন জোন্স সরাসরিই বলেছেন, বিশ্বকাপ ফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে বাউন্ডারি আইনে ফল নির্ধারণ ঠিক নয়।

টুইট বার্তায় তারা বরং দাবি করেছেন, দু’দলকেই যুগ্ম চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা উচিত ছিল। তাদের কথা, কাল লর্ডসের ফাইনালে কেউ হারেনি!

উল্লেখ্য, কালকের ফাইনালে মূল ম্যাচ ও সুপার ওভার মিলিয়ে ইংল্যান্ড বাউন্ডারি মেরেছে ২৬টি। বিপরীতে নিউজিল্যান্ডের বাউন্ডারি সংখ্যা ছিল ১৭টি। এই বেশি বাউন্ডারি মারার সুবাদেই প্রথমবারের মতো বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড। সমানে সমানে লড়াই করেও স্বপ্নভঙ্গ নিউজিল্যান্ডের।

এমএ/ ০২:১১/ ১৬ জুলাই

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে