Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

ইউনিজয়
ফনেটিক
English
টরন্টো, রবিবার, ১৮ আগস্ট, ২০১৯ , ৩ ভাদ্র ১৪২৬

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

আপডেট : ০৭-১৫-২০১৯

‘এই মুহূর্তে আমিই নিউজিল্যান্ডের সবচেয়ে ঘৃণিত বাবা’

‘এই মুহূর্তে আমিই নিউজিল্যান্ডের সবচেয়ে ঘৃণিত বাবা’

ওয়েলিংটন, ১৬ জুলাই- দম আটকানো ফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে শিরোপা জিতল ইংল্যান্ড। আর ইংল্যান্ডকে শিরোপাটা জেতালেন কিনা নিউজিল্যান্ডের এক ক্রিকেটার! ম্যাচসেরা হয়েছেন ইংল্যান্ডের অলরাউন্ডার বেন স্টোকস। তার জন্ম নিউজিল্যান্ডে।

নিজের জন্মভূমির বিপক্ষে খেলা এই ইংলিশ অলরাউন্ডার হয়েছেন ম্যাচ সেরা। পূত্রের এই নায়কোচিত পারফরম্যান্সের পর স্টোকসের বাবা সাবেক রাগবি খেলোয়াড় জেরার্ড স্টোকস বললেন, তিনিই সম্ভবত এখন নিউজিল্যান্ডের সবচেয়ে ঘৃনিত বাবা।

ম্যাচ শেষে তিনি বলেন, ‘আমাকে দুই একজন বলেছে আমি নাকি এই মুহূর্তে নিউজিল্যান্ডের সবচেয়ে ঘৃনিত ও অপছন্দনীয় বাবা। যদিও আমি মনে করি ওরা এটা মজা করেই বলেছে।’

ইংল্যান্ডে রাগবি কোচের হওয়ার সুবাদে ইংল্যান্ড পাড়ি জমান জেরার্ড স্টোকস। তাই ইংল্যান্ডে বেড়ে ওঠা বেন স্টোকসের। পরে ইংল্যান্ডের হয়ে জাতীয় দলে সুযোগও পেয়ে যান স্টোকস। ঘরের টিভিতে বসে ফাইনাল ম্যাচটি সবার চেয়ে বেশি উপভোগ করেছেন বলেন জেরার্ড স্টোকস।

ম্যাচ শেষে সংবাদিকদের জেরার্ড স্টোকস আরো বলেন, ‘টিভিতে ম্যাচ দেখতে বসে নিজের ছেলের অসাধারণ পারফরম্যান্স করতে দেখাটা একটা ভিন্নরকম অনুভূতি। আমরাই সম্ভবত দুই পক্ষের মধ্যে সবচেয়ে বেশি উপভোগ করতে পেরেছি। আমি মনে করি এই ম্যাচ এরই মধ্যে একদিনের ক্রিকেট ইতিহাসের সেরা ম্যাচ হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে।’

ফাইনালে হার না মানা ৮৪ রানের ইনিংসের ওপর ভর করে ম্যাচ সুপার ওভারে পৌঁছে ইংলিশরা। সুপার ওভারে ব্যাট হাতে ৩ বলে ৮ রান করেন স্টোকস। দুর্দান্ত ব্যাটিং নৈপুণ্যে দলে জিতিয়ে হয়েছেন ম্যাচ সেরা।

ম্যাচ শেষে আবেগে কেঁদেছেন স্টোকসের মা ডেবোরাহ, ‘খেলা শেষে খুব কেঁদেছি। ব্ল্যাক ক্যাপসের জন্য খারাপ লেগেছে। এটা ড্র হলে সবচেয়ে ভালো হতো।’

উল্লেখ্য, বেন স্টোকস ইংল্যান্ডে থিতু হলেও তার বাবা-মা ২০১৩ সাল থেকে ক্রাইস্টচার্চে স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন।

এমএ/ ০১:৩৩/ ১৬ জুলাই

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে